Inqilab Logo

রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৮ সফর ১৪৪৪

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই রাশিয়া থেকে তেল কিনবে মিয়ানমার

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৭ এএম

রাশিয়া থেকে গ্যাসোলিন ও জ্বালানি তেল আমদানির পরিকল্পনা করেছে সামরিক বাহিনী শাসিত মিয়ানমার। গত বুধবার দেশটির জান্তা সরকারের এক মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জ্বালানি তেলের সরবরাহ নিয়ে উদ্বেগ এবং ক্রমবর্ধমান দাম মোকাবিলায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। সউদী সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

মিয়ানমারের এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে রাশিয়ার তেল-গ্যাস রপ্তানির ওপর আরোপিত পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই বিশ্বব্যাপী জ্বালানি সংকটের মধ্যেই আরেকটি উন্নয়নশীল দেশ রাশিয়া থেকে জ্বালানি আমদানির সিদ্ধান্ত নিল।

মিয়ানমারের জান্তা সরকারের মুখপাত্র জাও মিন তুন বলেন, ‘আমরা রাশিয়া থেকে পেট্রল আমদানির অনুমতি পেয়েছি।’ রাশিয়ার জ্বালানির মান ও সাশ্রয়ী মূল্যের কারণেই দেশটি থেকে জ্বালানি আমদানির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তিনি। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে মিয়ানমারে রাশিয়ার জ্বালানি তেল পৌঁছানো শুরু করবে।

পশ্চিমা দেশগুলোর একের পর এক নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে দক্ষিণ–পূর্ব এশিয়ার দেশ মিয়ানমার। উভয় দেশই পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকার পরও সেই সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে গেছে। গত বছর নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখল করায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে এবং চলতি বছর ইউক্রেনে রাশিয়ার দাবিকৃত ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ চালানোয় রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে পশ্চিমা দেশগুলো।

চলতি বছরের শেষ দিকে রাশিয়ার জ্বালানি তেল রপ্তানির ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপের আশঙ্কা করছে মস্কো। এই অবস্থায় অর্থনীতি সচল রাখতে বিকল্প রপ্তানি বাজার খুঁজছে দেশটি। এ ক্ষেত্রে এশিয়ার দিকেই তাদের মনযোগ তাদের সবচেয়ে বেশি। সূত্র : আরব নিউজ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ