Inqilab Logo

সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

সব ষড়যন্ত্র আর নানা প্রতিকূলতাকে মোকাবেলা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে -বজলুল হক হারুন এমপি

রাজাপুর (ঝালকাঠি) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০২২, ৬:২২ পিএম

ঝালকাঠি-১(রাজাপুর-কাঠালিয়া) সংসদ সদস্য, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সদস্য, বাংলাদেশ-সৌদি আরব সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপের সভাপতি বজলুল হক হারুন এমপি বলেছেন --স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ যখন উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছিল, তখন তাঁকে হত্যা করা হয়,১৯৭৫ সনের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর খুনীরা চেয়েছিল বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে চীরতরে শেষ করতে,আল্লাহ মেহেরবানীতে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য ২ কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশের বাহিরে ছিলেন, আল্লাহ রাব্বুল আলআমিন তাদেরকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। ২১ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধান মন্ত্রীকে গ্রেনেট হামল চালিয়ে হত্যা করতে চেয়েছিলেন দেশ বিরোধী বিএনপি জামাত জোট চক্র। আল্লাহর অসীম রহমতে তিনি বেঁচে গেছেন।পবিত্র কোরআন আল্লাহ বলেছেন- সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক আল্লাহ। আল্লাহ যাকে ইচ্ছা ক্ষমতা দেন।মহান আল্লাহ মাননীয় প্রধান মন্ত্রীকে দেশ পরিচালনার ক্ষমতা দিয়োছেন।তিনি

জাতির জনকের স্বপ্নের পূর্ণ বাস্তবায়ন করছেন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।অনেকেই রয়েছেন জাতির জনক ও তাঁর রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে তাদের তেমন কোনো ধারণা নেই। বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে। তাঁর আদর্শ পুরো ধারণ করতে হবে। সেই আদর্শ অনুযায়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো মজবুত করতে হবে। তাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ পুরো ধারণ ছাড়া আমাদের জন্য বিকল্প কোনো পথ নেই।

জাতির জনকের ঝাণ্ডা হাতে নিয়ে এগিয়ে চলছে জননেত্রী শেখ হাসিনা। সেই ঝাণ্ডাকে অনেকেই ধ্বংস করতে চায়। এ জন্য তাদের ষড়যন্ত্রও গভীর। শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র কিন্তু থেমে নেই। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ যখন উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছিল, তখন তাঁকে হত্যা করা হয়। এখনো ষড়যন্ত্র চলছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে যে উন্নয়ন হচ্ছে, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে সেই উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে ষড়যন্ত্র চলছে। ষড়যন্ত্র চলছে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার, নির্বাচন বানচাল করার এবং গণতন্ত্রকে হত্যা করার। ষড়যন্ত্রকারীরা যতই চেষ্টা করুক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আবারও সরকার গঠিত হবে ইনশাআল্লাহ। আগামী জাতীয় নির্বাচন সংবিধান মেনেই হবে।
বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ আজ বিশ্বের মধ্যে উন্নয়নের এক রোল মডেল। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে কেউ থামাতে পারবে না। সব ষড়যন্ত্র আর নানা প্রতিকূলতাকে মোকাবেলা করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে—ভবিষ্যতে আরো এগিয়ে যাবে। সে জন্য আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই নির্বাচনে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে এগিয়ে যাওয়ার মানসে আবারও নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসাতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে তৃণমূল পর্যায় থেকে সব পর্যায়ে আওয়ামী লীগের বিজয় নিশ্চিত করা,আর জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে চলমান উন্নয়নের ধারা আরো জোরালো করতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হতে হবে সকলকে।। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চরিত্র আমাদের কাজকর্মে ও জীবনে প্রতিফলিত হোক।, সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করি। সেই আদর্শে নিজেদের বলীয়ান করে দেশকে এগিয়ে নিই।জাতির পিতার সোনার বাংলা বিনির্মাণে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।।তিনি আজ১৯ আগস্ট রাজাপুর উপজেলার কানুদাসকাঠি ইসলামী কমপ্লেক্স এর আওতাধীন জামে মসজিদে বাদ জুম্মা স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭ তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে এমপি এ সব কথা বলেন।এ অনুস্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন বরিশাল রেন্জ উপ- পুলিশ মহা পরিদর্শক(ডিআইজি) এস এম আক্তারুজ্জামান, এসময় উপস্হিত ছিলেন--উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মোঃ মনিরউজ্জামান, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মাসুদ রানা, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ বদিউজ্জামাল সিকদার ,উপজেলা আওয়ামীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ তরুন সিকদার,শৌলজালিয়া ইউনিয়ন চেয়্যারম্যান মোঃ মাহমুদ হোসেন রিপন ,
সহ বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্হানীয় বিভিন্ন স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষক, নেতাকর্মী, সুধীজন,।আলোচনা শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের প্রয়াত সকল সদস্যদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মুনাজাত করা হয় এবংতবারক বিতরন করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বজলুল হক হারুন এমপি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ