Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

দিনাজপুরে সারের দাবিতে সড়ক অবরোধ

উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কায় কৃষক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় সারের দাবিতে সড়ক অবরোধ করেন কৃষকরা। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে কৃষকরা কাহারোল বাজারের বিভিন্ন সারের দোকানে সার কেনার জন্য লাইন করে দাঁড়িয়ে থেকেও কোনো সার না পেয়ে তারা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। গতকাল দুপুরে কাহারোল উপজেলার উচিৎপুর কাহারোল সড়ক অবরোধ করেন কৃষকরা।

কৃষকদের অভিযোগ, সরকার ইউরিয়া ও টিএসপি সারের মূল্য নির্ধারণ করেছে ১ হাজার ১০০ টাকা বস্তা, ড্যাপ ৮০০ টাকা বস্তা, এমওপি ৭৫০ টাকা বস্তা। সেখানে ডিলাররা সব সারের ক্ষেত্রে প্রতি বস্তা ১০০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত বেশি নিচ্ছেন। আবার কৃষকদের চাহিদা মোতাবেক সার না দিয়ে ডিলারদের স্বজন ও পছন্দের লোকদের চাহিদা মোতাবেক সার দিচ্ছেন। আমরা সময়মতো জমিতে সার দিতে না পারলে উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কায় আছি।

উপজেলার উচিৎপুর গ্রামের কৃষক রায়হানুল ইসলাম জানান, গত কয়েক দিন ধরে এলাকার কৃষকরা ঠিকমতো সার পাচ্ছিলেন না। দু’একটি দোকানে সার পাওয়া গেলেও তার দাম বস্তাতে ১০০ থেকে ২০০ টাকা বেশি নিচ্ছে। আবার চাহিদামতো সার পাচ্ছি না।
উপজেলার মুকুন্দপুর পানিশাইল গ্রামের কৃষক জাকিরুল ইসলাম জানান, চাহিদামতো অন্যান্য সার জমিতে দিতে পারলেও এমওপি সারের জন্য ডিলারের কাছে পাঁচ দিন ধরে ঘুরে সার পাইনি, তাই বাধ্য হয়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে হয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু জাফর মো. সাদেক জানান, সার বিতরণে ডিলারদের বিরুদ্ধে কৃষকরা অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন। কৃষকদের মাঝে সুষ্ঠুভাবে সার বিতরণ করার কথা বিবেচনায় নিয়ে কাহারোল উপজেলায় ১০ জন বিসিআইসি ও বিএডিসির সার ডিলারের গোডাউন সীলগালা করা হয়েছে। গতকাল সকাল থেকে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে যথারীতি সার বিতরণ করার কথা, কিন্তু কৃষকরা সার না পেয়ে সড়ক অবরোধ করে।

কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুল হাসান জানান, আমি ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গিয়ে কৃষকদের বুঝিয়ে সার দেওয়ার তালিকা করেছি। কৃষকদের সার দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিলে কৃষকরা সড়ক অবরোধ তুলে নেন। তিনি আরও বলেন, সার বিতরণে কোনো ধরনের অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না। মনিটরিং কার্যক্রম আরো বাড়ানো হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কৃষক


আরও
আরও পড়ুন