Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

মেলার মহানগরী চট্টগ্রাম!

| প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রফিকুল ইসলাম সেলিম : দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী বন্দরনগরী চট্টগ্রাম এখন মেলার মহানগরী। এসব মেলায় হাজারো মানুষের ভিড়। উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে মেলা প্রাঙ্গনকে ঘিরে। গতকাল (শুক্রবার) সরকারি ছুটির দিনে প্রতিটি মেলায় ছিল উপচেপড়া ভিড়।
সবুজ গাছগাছলীতে ঘেরা রেলওয়ে পলোগ্রাউন্ডে চলছে উইম্যান এসএমই এক্সপো। উইম্যান চেম্বার আয়োজিত মাসব্যাপী এই আন্তর্জাতিক মেলায় দর্শনার্থীর ভিড়। নগরীর হালিশহর আবাহনী মাঠে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী বাণিজ্য ও রফতানি মেলা।
নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের সিজেকেএস অনুশীলন মাঠে চলছে দেশের প্রথম তরুণ উদ্যোক্তা বাণিজ্যমেলা। এই মেলার আয়োজক চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বার।
আর আউটার স্টেডিয়ামের বিশাল এলাকাজুড়ে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে মুুুুুুুুুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলাকে ঘিরে পণ্যমেলা। মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদ আয়োজিত এই মেলা এখন বাঙ্গালীর প্রাণের মেলা। নগরীর হোটেল পেনিনসুলায় চলছে তিন দিনব্যাপী অষ্টম আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা।
আগ্রাবাদস্থ দেশের প্রথম ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে আজ শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে প্রথম আন্তর্জাতিক এসএমই মেলা। চট্টগ্রাম চেম্বার আয়োজিত এ মেলার উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।
এসব মেলা কেনাকাটার পাশাপাশি এখন নগরবাসীর বিনোদনের স্থানও। পরিবার পরিজন নিয়ে মেলায় যাচ্ছেন অনেকে। মহানগরীতে বিনোদন কেন্দ্র হাতে গোনা। অব্যবস্থাপনাসহ নানা ঝক্কি ঝামেলার কারণে অনেকে এসব বিনোদন কেন্দ্রগুলো এড়িয়ে চলেন। একসাথে নগরীতে একাধিক মেলার আয়োজন হওয়ায় নগরবাসী খুশি। তারা ঈচ্ছেমতো ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ পেয়েছেন।
তবে এসব মেলায় আগত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধেও রয়েছে নানা অভিযোগ। ক্রেতাদের কাছ থেকে গলাকাটা হারে মূল্য আদায়ের পাশাপাশি নি¤œমানের পণ্য বিক্রিরও অভিযোগ আছে। একসাথে ৬টি মেলার আয়োজন হওয়ায় নগরীর মার্কেট বিপণি কেন্দ্রে ক্রেতার উপস্থিতি কমে গেছে বলেও অভিযোগ করছেন দোকান মালিক সমিতির নেতারা। তারা বলছেন, এভাবে মাসের পর মাস মেলা চলতে থাকলে তাদের ব্যবসা লাটে উঠবে।
নগরীর হালিশহর আবাহনী মাঠে মাসব্যাপী বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অ্যান্ড এক্সপোর্ট ফেয়ার শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার মাসব্যাপী এ মেলার আয়োজন করে। গত কয়েক বছর ধরে ওই ভেন্যুতে মেলার আয়োজন করে আসছে চেম্বার। মেলা আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক আমিনুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, বিদেশে দেশীয় পণ্যের বাজার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে মেলা চলাকালে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনারদেরকে মেলা পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এ ছাড়া মেলায় আগত দর্শনাথী, অংশগ্রহণকারী এবং সাংবাদিকদের সুবিধার্থে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের লক্ষ্যে সার্বক্ষণিকভাবে একটি ইনফরমেশন বুথ ও মিডিয়া সেন্টার চালু থাকছে। আয়োজক কমিটির সূত্রে জানা যায়, তৃতীয়বারের মতো আয়োজিত বিআইটিইএফ মেলার ১ লাখ ৭০ হাজার বর্গফুট জায়গায় মাসব্যাপী এ রফতানি ও বাণিজ্য মেলায় মোট দুই’শটি উৎপাদন ও বিপণন প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। এ মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে। যা আগামি পহেলা জানুয়ারিতে শেষ হবে। শিশু-কিশোরদের খেলা-বিনোদনের জন্য আছে কিডস জোন। পলোগ্রাউন্ডে চলছে দশ আন্তর্জাতিক উইম্যান এসএমই এক্সপো। এবারের মেলায় ৬টি দেশের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানসহ ৬ শতাধিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। গত ৫ নভেম্বর বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ মেলার উদ্বোধন করেন। মেলা চলবে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত। মেলায় প্রতিদিন হাজারো মানুষের ভিড় জমাচ্ছে। বিশেষ করে সরকারি ছুটির দিনে মেলায় দর্শকের ভিড় বাড়ে বলে জানান আয়োজকরা। চট্টগ্রাম উইম্যান চেম্বার গত দশ বছর ধরে এ মেলার আয়োজন করে আসছে।
এদিকে নগরীর পেনিনসুলা হোটেলে চলছে তিন দিনব্যাপী অষ্টম আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস চিটাগাং ট্রাভেল মার্ট। ভ্রমণবিষয়ক পাক্ষিক দি বাংলাদেশ মনিটর আয়োজিত এ মেলার টাইটেল স্পন্সর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস। বৃহস্পতিবার মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।
নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের সিজেকেএস অনুশীলন মাঠে দেশের প্রথম তরুন উদ্যোক্তা বাণিজ্যমেলা চলছে। জুনিয়ার চেম্বারের আয়োজনে পনের দিনের এ মেলায় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।
অপরদিকে দেশীয় পণ্যের প্রদর্শন ও বিপণনের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বিকাশে চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক এসএমই মেলা। নগরীর আগ্রাবাদে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে তিন দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করছে চট্টগ্রাম চেম্বার। আজ ১১টায় মেলার উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে।
চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, মেলায় কৃষিজাত ও চামড়াজাত পণ্য, হস্তশিল্প, প্লাস্টিক, অটোমোবাইলস, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, ক্যাবল এন্ড ওয়্যার, মেটাল সিকিউরিটি প্রোডাক্টস, স্টিল, বুটিক, হারবাল কসমেটিকস, কৃষি যন্ত্রপাতি, জুয়েলারি, পর্যটন, হজ্ব প্যাকেজ, আইটি, পলিপ্যাক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ, খাদ্য, বিল্ডিং ডিজাইন এবং এসএমই ফাইন্যান্সিং খাতের উদ্যোক্তারা অংশ নিচ্ছে।  
মেলাকে প্রাইম ও জেনারেল জোনে ভাগ করা হয়েছে জানিয়ে চেম্বার সভাপতি জানান, প্রাইম জোনে ২৪ এবং জেনারেল জোনে ৩৪টি স্টল থাকছে। পণ্য ও সেবা খাতে মোট ২২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মেলা

২৮ মার্চ, ২০২২
৫ মার্চ, ২০২২
৪ মার্চ, ২০২২
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ