Inqilab Logo

রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

৫০ বছর পর মিউনিখ অলিম্পিকে নিহত ইসরায়েলিদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে জার্মানি

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৯:৩৩ এএম

১৯৭২ সালের জার্মানির মিউনিখ শহরে অনুষ্ঠিত অলিম্পিকে নিহত ইসরায়েলি নাগরিকদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে যাচ্ছে বার্লিন। ভয়াবহ সেই ঘটনার ৫০ বছর পর জার্মানির পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বার্লিনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইসরায়েল। স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার জার্মান সরকারের এক মুখপাত্র এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৭২ সালের মিউনিখ অলিম্পিকের সময় ফিলিস্তিনের ৮ স্বাধীনতাকামী ১১ জন ইসরায়েলি নাগরিককে জিম্মি করে হত্যা করে। সম্প্রতি জার্মান সরকারের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রস্তাবের সঙ্গে ঐকমত্য পোষণ করে।
এই বিষয়ে জার্মান সরকারের মুখপাত্র স্টেফান হেবেস্ট্রেট বলেছেন, ‘এই সম্মতির অর্থ হলোÑ ওই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবার যারা আগে বলেছিল যে, তাঁরা আগামী সোমবার মিউনিখে ১৯৭২ সালের অলিম্পিকে নিহত ইসরায়েলিদের স্মরণে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া অনুষ্ঠানটি বয়কট করবে, তারা এবার সেই অনুষ্ঠানে যোগ দেবে।’
এ বিষয়ে জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ওয়াল্টার স্টেইনমায়ার এবং ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হেরজগ এক যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তাঁরা উভয়ই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘আমরা আনন্দের সঙ্গে এই বিষয়টি জানাচ্ছি যে, আমরা ঐতিহাসিক একটি বিষয়ে নিজেদের মধ্যে স্পষ্ট করে নিয়েছি, এর স্বীকৃতি দিয়েছি এবং ক্ষতিপূরণের বিষয়ে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছি।’
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘চুক্তি সব ক্ষত নিরাময় করতে পারে না। তবে এটি একে অপরের জন্য একটি দরজা খুলে দেয়। এই চুক্তির মাধ্যমে জার্মান রাষ্ট্র ওই ঘটনায় নিহত ব্যক্তি ও তাদের স্বজনদের যে ভয়াবহ কষ্ট হয়েছে সেই বিষয়ে তার দায় স্বীকার করে নিচ্ছে।’
এই চুক্তির আওতায় জার্মানি ১৯৭২ সালের মিউনিখ অলিম্পিকের ঘটনায় নিহতদের জন্য ক্ষতিপূরণ হিসেবে ২৮ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করবে। একই সঙ্গে এই ঘটনার বিষয়ে যাবতীয় নথিপত্র উন্মুক্ত করবে জার্মানি।
এদিকে, জার্মানির এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হেরজগ। তিনি বলেছেন, ‘আমি জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎসের নেতৃত্বে জার্মান সরকারের এই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে চাই। বিশেষ করে এই ঘটনার দায় স্বীকার এবং মিউনিখ গণহত্যার শিকারদের পরিবারের প্রতি ঐতিহাসিক অবিচারের জন্য ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য আমি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই।’ সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জার্মানি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ