Inqilab Logo

রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

‘হেই সামালো’য় শেষ কোক স্টুডিও বাংলার প্রথম সিজন

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ২:৪৩ পিএম

চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছে কোক স্টুডিও বাংলা। প্রথম গান ‘নাসেক নাসেক’ প্রকাশ পায় ২৩ ফেব্রুয়ারি। আর বৃহস্পতিবার (০১ সেপ্টেম্বর) প্ল্যাটফর্মটির ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেজে প্রকাশ পেয়েছে এই সিজনের শেষ গান ‘হেই সামালো’। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন বাপ্পা মজুমদার, সামিনা চৌধুরী, অর্ণব, সুনিধি নায়েক, ঋতুরাজ ও কনা। এছাড়াও আছেন অনিমেস রায়, রুবাইয়াত, মাশাসহ আরও অনেকে।

গানটি শেয়ার করে কোক স্টুডিও বাংলা জানায়, ‘বাংলা ভাষার প্রতি ভালোবাসাই আমাদের প্রথম মৌসুমের শেষ পরিবেশনা। দেখা হবে শিগগিরই কোক স্টুডিও বাংলার দ্বিতীয় মৌসুমে। ’

‘হেই সামালো’ নিয়ে কোক স্টুডিও বাংলার পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়, ‘‘তারা শ্রদ্ধা জানাতে চায় বাংলাদেশিদের অদম্য চেতনা ও বিদ্রোহী চরিত্রের প্রতি। সলিল চৌধুরীর লেখা ‘হেই সামালো’ ও আবদুল লতিফের লেখা ‘ওরা আমার মুখের ভাষা’ গান দু’টির মধ্যে ফিউশনের মাধ্যমে এই গানটি তৈরি করা হয়েছে। ১৯৪৮ সালের কৃষকদের নিজেদের অধিকার আদায়ের প্রতিবাদ পরবর্তীতে বিদ্রোহে রূপ নেয়, সেই সময় ‘হেই সামালো’ গানটি রচিত হয়। আর ‘ওরা আমার মুখের ভাষা’ গানটির প্রেক্ষাপট হলো ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, যার পেছনে বিশ্বাস ছিল মত প্রকাশের স্বাধীনতা মানুষের একটি প্রধান অধিকার।’’

প্রসঙ্গত, কোক স্টুডিও বাংলার প্রথম সিজনে মোট প্রকাশিত গানের সংখ্যা ৯টি। নতুন সংগীতায়োজনে, একাধিক গান নিয়ে ফিউশন করেন সংগীত প্রযোজক শায়ান চৌধুরী অর্ণব। যাত্রা শুরু করার পর থেকে এই স্বল্প সময়ে কোক স্টুডিও বাংলা-র ইউটিউব সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ লক্ষ। আর এর ফেসবুক পেইজে ফলোয়ারের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩০ হাজার। গানগুলোর মোট ভিউ সংখ্যা ৭ কোটি। ১.৫ কোটি ভিউ নিয়ে যৌথভাবে শীর্ষস্থানে আছে ‘ভবের পাগল’ এবং ‘নাসেক নাসেক’।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোক স্টুডিও বাংলা
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ