Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

অনাহারি মানুষ বাড়ছে শ্রীলঙ্কায়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডবিøউএফপি) এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পরিচালক জন আইলিয়েফ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। বলেছেন, শ্রীলংকা পরিস্থিতি সামনের কয়েক সপ্তাহে আরও অবনতি হতে পারে। এমনিতেই বলা হচ্ছে, দেশটির লাখ লাখ অতি দরিদ্র্যের পর্যাপ্ত খাবার কেনার সামর্থ নেই। তার ওপর এই হুঁশিয়ারি সবাইকে ভাবিয়ে তুলেছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মিরর। জন আইলিয়েফ দু’দিনের সফরে এসেছিলেন শ্রীলংকায়। সফর শেষে তিনি বলেছেন, দেশটিতে উদ্ভ‚ত পরিস্থিতিতে ডবিøউএফপির সাড়া দেয়া চরম গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। তার ভাষায়- আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার হলো জীবন রক্ষাকারী খাবার ও পুষ্টি সহায়তা পরিবারগুলোর কাছে পৌঁছে দেয়া। আমাদের এই পদক্ষেপের কেন্দ্রে থাকবে শিশু এবং নারীরা। তিনি আরও বলেন, ডবিøউএফপির সর্বশেষ জরিপ বলে দেয় যে, শ্রীলংকায় অনাহারে থাকা মানুষের সংখ্যা দ্রæততার সঙ্গে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যেসব বাড়িতে জরিপ চালানো হয়েছে, তার প্রায় অধেকই খাদ্য সংকটে ভুগছে। কারণ, আয়ের পথ হারিয়েছেন তারা। খাদ্যে মূল্যস্ফীতি রেকর্ড পর্যায়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। খাদ্য সরবরাহ চেইনে বিঘ্ন ঘটছে। জ্বালানি সহ মৌলিক চাহিদাগুলোর ভয়াবহ সংকট দেখা দিয়েছে। ডবিøউএফপির সহায়তা গ্রহণকারী একটি গ্রæপের সঙ্গে তিনি আলোচনা করেন। সেখানে তিনি তাদের নানা সমস্যার কথা শোনেন। এর মধ্যে প্রতি ৫টি বাড়ির মধ্যে চারটি বাড়িতে খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দেয়া হয়েছে। অথবা তারা অনাহারে থাকছেন এই কঠিন বাস্তবতায় টিকে থাকার জন্য। এর মধ্যে শহর অঞ্চলেরও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাড়ি আছে। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী দীনেশ গুনাওয়ার্ধেনে এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি সাবরির সঙ্গে আলোচনা করেছেন জন আইলিয়েফ। তিনি শ্রীলংকায় অবিলম্বে খাদ্য অনিরাপত্তার সমাধান নিয়ে কথা বলেছেন। ডেইলি মিরর।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কা

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
১১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ