Inqilab Logo

বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

নোয়াখালী সদরে গৃহবধূকে ধর্ষণ ও অশ্লীল ভিডিও ধারন, গ্রেপ্তার-১

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৬:১১ পিএম

নোয়াখালী সদর উপজেলায় এক গৃহবধূর (২৫) অশ্লীল ভিডিও ধারণ ও ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে মেহেদী হাসান রাজু (৩৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ব্যবহৃত দুটি মোবাইল জব্দ করা হয়, যাতে গৃহবধূর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারনের সত্যতা পাওয়া যায়।

রোববার দুপুরে জেলা শহর মাইজদী পৌর পার্কে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মেহেদী হাসান রাজু সদর উপজেলার এওজবালিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম এওজবালিয়া গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেপ্তারকৃত মেহেদী হাসান রাজু ভুক্তভোগী নারীর ননদের স্বামী।

পুলিশ জানায়, অভিযোগকারী গৃহবধূর স্বামী প্রবাসী, নিজের এক সন্তানকে নিয়ে শশুর বাড়িতে থাকতেন ওই গৃহবধূ। ২০১৯ সালে তাদের বাড়িতে ননদসহ বেড়াতে আসেন ননদের স্বামী মেহেদী হাসান রাজু। রাতে পরিবারের অন্য সদস্যসহ ওই গৃহবধূকে কোমল পানিয়র সাথে নেশাদ্রব্য খাইয়ে অচেতন করেন রাজু। পরে নিজের মোবাইলে গৃহবধূর অশ্লীল ভিডিও এবং ছবি ধারণ করে ননদের স্বামী। তাদের বাড়ি থেকে যাওয়ার পর মোবাইলে গৃহবধূর অশ্লীল ভিডিও এবং ছবি ধারনের বিষয়টি জানিয়ে ব্লাকমেইল করা শুরু করে রাজু। পরবর্তীতে ছবি ভিডিও প্রকাশ করার হুমকি দিয়ে ২০১৯ সাল থেকে একাধিকবার চৌমুহনীসহ বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে নিয়ে ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে সে। সবশেষ চলতি বছরের ২১ জুলাই চৌমুহনীর একটি হোটেলে নিয়ে পুনঃরায় তাকে ধর্ষণ করে রাজু।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি নাজিম উদ্দিন আহমেদ জানান, ৮ সেপ্টেম্বর ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেন কলেজ ছাত্রী ওই গৃহবধূ। অভিযোগের সূত্র ধরে ভুক্তভোগীর সহযোগিতায় রোববার দুপুরে নোয়াখালী পৌর পার্কে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান রাজুকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার কাছ থেকে জব্দকৃত স্মার্ট ফোনে গৃহবধূর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ফুটেজ পাওয়ায় প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। গ্রেপ্তারকৃত রাজুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেপ্তার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ