Inqilab Logo

সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১০ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

রানির শেষকৃত্যে জাতীয় সঙ্গীত ‘গড সেভ দ্য কিং’ গাইলেন না যুবরাজ হ্যারি!

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১:০২ এএম

ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে তখন শায়িত রাখা হয়েছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কফিন। তার সামনে দাঁড়িয়ে রাজপরিবারের সদস্যরা গাইছেন জাতীয় সঙ্গীত ‘গড সেভ দ্য কিং’। কিন্তু সেই গানে গলা মেলাতে দেখা গেল না যুবরাজ হ্যারিকে! এমন অভিযোগ ঘিরেই নয়া বিতর্ক দানা বাঁধল ব্রিটেনের রাজপরিবারে।

সোমবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। রানিকে চিরবিদায় জানাতে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে জড়ো হয়েছিলেন একাধিক দেশের রাষ্ট্রনেতা, রাজা। দুই হাজারেরও বেশি অতিথি অভ্যাগতের ভিড় চোখে পড়েছে। তবে আলাদা করে নজর কেড়েছেন হ্যারি।

একটি ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, ‘গড সেভ দ্য কিং’ যখন গাওয়া হচ্ছে, তখন চুপচাপ দাঁড়িয়ে রয়েছেন হ্যারি। তা হলে কি তিনি সেই সময় জাতীয় সঙ্গীতে গলা মেলাননি? এ নিয়ে দ্বিমত তৈরি হয়েছে। কেউ কেউ বলেছেন, হ্যারি গলা মিলিয়েছেন। আবার কারো দাবি, হ্যারি সেই সময় জাতীয় সঙ্গীত গাননি। এ নিয়ে জোর তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়েছে নেটমাধ্যমে।

তবে বিতর্ক নিয়ে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এখনো হ্যারি বা ব্রিটেনের রাজ পরিবারের তরফে কেউ মুখ খোলেননি।

হ্যারির সাথে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের দূরত্বের কথা সর্বজনবিদিত। স্ত্রী মেগানকে নিয়ে রাজপরিবারের সংসর্গ ছেড়ে বর্তমানে আমেরিকায় থাকেন হ্যারি। এ নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল ব্রিটেনে। হ্যারির এই সিদ্ধান্ত রাজপরিবার ভালো চোখে নেয়নি বলেই ব্রিটেনের একাধিক সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছিল। রানির পরলোকগমনের পর সম্প্রতি একটি ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডে দাবি করা হয়েছে, ‘চার্লস হ্যারিকে বলেন, এই রকম দুঃখের সময়ে বালমোরাল প্রাসাদে মেগানকে আনা যথাযথ হবে না। কারণ হিসেবে চার্লস জানান, উইলিয়াম-পত্নী কেটও আসবেন না। একেবারে পরিবারের কাছের লোকজনকে ডাকা হয়েছে। বারবার করে বলে দেন, মেগান যেন না আসেন।’

অনেকের ধারণা, হ্যারির থেকে কয়েক বছরের বড় ও অশ্বেতাঙ্গ মেগানকে রাজপরিবারের বধূ হিসেবে মানতে পারেননি পরিবারের অনেকে। সেই থেকেই দূরত্ব রচনা হয়। এই ঘটনাপ্রবাহের আবহে দাদির শেষকৃত্যে জাতীয় সঙ্গীত গাননি বলে হ্যারির বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠল, তা নতুন করে বিতর্ক বাড়াল বলেই মনে করা হচ্ছে।সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ