Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

রূপগঞ্জে ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ-মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০৩ এএম

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে রাকিব হাসান নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার রাত ৯টায় উপজেলার গোলাকান্দাইল হাট সংলগ্ন কাঠপট্রি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাকিব গোলাকান্দাইল এলাকার হারুন মিয়ার ছেলে ও রাবি পাগলনীর নাতী হিসেবে পরিচিত। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা উত্তেজিত হয়ে আসামিদের বাড়িঘরে আগুন লাগিয়ে দিলে ঘরসহ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে কাঞ্চন ও আড়াইহাজার ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট এসে ২ ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। তবে আগুনে কোন প্রকার হতাহতের সংবাদ পাওয়া যায়নি।
অপর দিকে, গতকাল বিকেলে আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা-গোলাকান্দাইল এলাকায় নিহতের স্বজন, এলাকাবাসী ও ছাত্রলীগ কর্মীরা মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। এসময় হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়। অন্যথায় বড় ধররনের কর্মসূচী করবে বলে হুশিয়ারি দেন বিক্ষোভকারীরা।
এ ঘটনায় নিহতের বোন আখি আক্তার বাদি হয়ে ৬ জন ও অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলেন, গোলাকান্দাইল পুর্বপাড়া এলাকার আসমত আলীর ছেলে শ্রমিকলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন, জাকির হোসেনের ছেলে সজীব মিয়া, পাচাইখা টেলাপাড়া এলাকার সাফির ছেলে হামজালা, নায়েব আলীর ছেলে আফজাল, গোলাকান্দাইল এলাকার আসমত আলীর ছেলে জাকির হোসেন ও মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে মিল্লাত। মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, তারা গোলাকান্দাইল এলাকায় বিল্ডিং নির্মাণের কাজ শুরু করেন। ওই বিল্ডিং নির্মাণের জন্য আসামিরা চাঁদা দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিলো। চাঁদা না পেয়ে বুধবার রাতে তার ভাই রাকিব হাসানকে কুপিয়ে হত্যা করে।
ভুলতা থানার ওসি মাহাবুবুর রহমান জানান, রাত সাড়ে ৮টা থেকে ৯টার দিকে গোলাকান্দাইল হাট সংলগ্ন কাঠপট্রি এলাকায় একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে রাকিব হাসানের উপর হামলা চালায়। অস্ত্রের আঘাতে রাকিবের বাম হাতটি প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে পরিবার ও স্থানীয় লোকজন রাকিব হাসানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।
উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক মঈন বলেন, রাকিব হাসান আমার সাথে ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছে। নির্মম ভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয় তাকে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি। রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ