Inqilab Logo

রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

‘অভ্যুত্থান’ গুজব উড়িয়ে প্রকাশ্যে শি জিনপিং

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ২:২৪ পিএম

সামরিক অভ্যুত্থানের’ পর চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে গৃহবন্দী করা হয়েছে বলে সম্প্রতি একটি খবর ইন্টারনেটে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এই জল্পনার জেরে চীনে হাজারও ফ্লাইট বাতিলের আরেক অপ্রমাণিত খবর সামনে আসে। তবে সেসব খবরকে গুজব হিসেবে প্রমাণ করে প্রকাশ্যে এসেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে একটি প্রদর্শনী অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেছেন শি জিনপিং। মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং মঙ্গলবার বেইজিংয়ে একটি প্রদর্শনী অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেন। চলতি সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে মধ্য এশিয়ায় সরকারি সফর থেকে চীনে ফিরে আসার পর এই প্রথম জনসাধারণের সামনে উপস্থিত হলেন তিনি। আর এতেই জিনপিং যে গৃহবন্দি ছিলেন এমন গুজব কার্যত উড়ে গেছে।

সম্প্রতি ইন্টারনেটজুড়ে একটি গুজব ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। অপ্রমাণিত সেই গুজবে দাবি করা হয়, চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে নাকি গৃহবন্দী করা হয়েছে। চীনা অনেক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী দাবি করেছিলেন, চীনের কমিউনিস্ট পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতারা পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) প্রধানের পদ থেকে শি জিনপিংকে সরিয়ে দেওয়ার পর তাঁকে গৃহবন্দী করা হয়।

এমনকি দেশটির রাজধানী বেইজিংও নাকি সামরিক বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে অনেক চীনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী দাবি করেছিলেন। নিউজ হাইল্যান্ড ভিশন নামের একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে দাবি করা হয়, চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট হু জিনাতাও, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও চীনা কমিউনিস্ট পার্টির স্টান্ডিং কমিটির সাবেক সদস্য সং পিংকে প্ররোচনা দিয়েছেন এবং তিনি দেশটির সেন্ট্রাল গার্ড ব্যুরোর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন।

এ ছাড়া বেইজিংয়ে সামরিক অভ্যুত্থানের অপ্রমাণিত এই জল্পনায় হাওয়া লাগে যখন মধ্য এশিয়ার উজবেকিস্তানে একটি শীর্ষ সম্মেলন থেকে চীনে ফিরে আসার পর থেকে শি জিনপিং জনসাধারণের দৃষ্টি থেকে অনুপস্থিত ছিলেন। তবে মঙ্গলবার সেগুলো কার্যত গুজব বলে প্রমাণিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ