Inqilab Logo

মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

কোটালীপাড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ আহত ৭

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৮:১৭ পিএম

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ সাতজন আহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের সিতাইকুন্ড বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্হল পরিদর্শন করেছেন। এঘটনায় দু'পক্ষই পৃথক পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান জটিয়ারবাড়ী নামক স্হানে সরকারি বেরি বাঁধের পাশের জায়গা নিয়ে সিতাইকুন্ড গ্রামের মাসুদ শেখ ও রাধাগঞ্জ ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন হাওলাদারের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। এঘটনার জের ধরে একটি পক্ষের উসকানিতে সকালে সিতাইকুন্ড বাজারে দু'পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ বাঁধে এ সময় রাধাগঞ্জ ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন হাওলাদার (৬২) ও তার ছেলে মাকমুদ হাওলাদার (২৬) রুবেল তাজঁ (২৬) ও অপর পক্ষের মাসুদ শেখ (৪৮) সাইফুল শেখ (৩৫) সাদেকুল শেখ (১৮) ও লতিফ শেখ (৬৫) আহত হয়। স্হানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কোটালীপাড়া স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্হা আসংখ্যাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রুবেল তাজঁ সাইফুল শেখকে গোপালগঞ্জ ও কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন হাওলাদারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। স্বাস্হকমপ্লেক্সে আহত লতিফ শেখ বলেন গতকাল রাতে আওলাদ হোসেন হাওলাদারের লোকজন মাসুদ শেখের ঘর ভাংচুর করে, এঘটনা জানার পরে আজ সকালে সিতাইকুন্ড বাজারে এসে সাইফুল ঘর ভাঙ্গার প্রতিবাদ করলে আওলাদ হোসেন হাওলাদারের লোকজন তার উপরে হামলা করে এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পরলে মাসুদ শেখ এর লোকজন এসে সংঘর্যে লিপ্ত হয় এতে দুই পক্ষের সাতজন আহত হয়, এঘটনায় দুই পক্ষেই দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। লালমিয়া হাওলাদার বলেন গতকাল বৃহস্পতিবার মাসুদ শেখ তার জায়গার সামনে বাশেঁর প্রচির নির্মান করেছিল রাতে আওলাদ হাওলাদারের লোকজন সে প্রাচির তুলে ফেলে এখবর জানতে পেরে সকালে তার ভাই সাইফুল এসে প্রতিবাদ করলে আওলাদ হোসেন হাওলাদারের লোকজন তার উপরে হামলা চালিয়ে তাদেরকে আহত করে। নুরুল হক হাওলাদার বলেন ইউনুচ কাজীর দোকানে সকালের নাস্তা খেতে ছিলাম এসময় দেখি সাইফুল শেখ মাকমুদ হাওলাদারকে মারপিট করছে। কামাল হোসেন হাওলাদার আওলাদ হোসেন হাওলাদারের বরাত দিয়ে বলেন রফিকুল ইসলাম শেখ দা দিয়ে আওলাদ হোসেন হাওলাদারের মাথায় কোপ দিলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে, এসময় অন্যন্য লোকজন তাকে বাশেঁর লাঠি দিয়ে এলোপাতারি মারপিট করার পর হাবিব শেখ,মাসুদ শেখ,রফিকুল শেখ ও সাইফুল শেখ তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যেতে দিবেনা বলে আটক করে রাখে, পরে আমি তাকে প্রচন্ড অসুস্থ দেখে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। কোটালীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ জিল্লুর রহমান জানান দু'পক্ষই

পৃথক পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন তদন্ত চলছে, দুইপক্ষের লোক আহত হয়েছে মামলা প্রকৃীয়াধীন রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ