Inqilab Logo

মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আফগানিস্তানে আত্মঘাতী হামলায় নিহত বেড়ে ৩৫, অধিকাংশই তরুণী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০২২, ১২:০০ এএম

জাতিসংঘের মিশনের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, আফগানিস্তানের রাজধানীতে একটি শিক্ষা কেন্দ্রে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জনে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি নারীরা হাজারা জাতিগত সংখ্যালঘুদের লক্ষ্যবস্তু করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছিল বলে জানা গেছে। যার জেরে এ হামলা হয়ে থাকতে পারে। জাতিসংঘের মিশন অনুসারে, পশ্চিম কাবুলে অবস্থিত একটি বৃহৎ হাজারা সম্প্রদায়ের বাসস্থান দাশত-ই-বারচির কাজ শিক্ষা কেন্দ্রে শুক্রবারের হামলায় কমপক্ষে ৮২ জন আহত হয়েছে, যাদের মধ্যে তরুণীই বেশি। কাবুল কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত যে হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করেছে, এ সংখ্যা তার চেয়ে বেশি।
শনিবার মিশনটি টুইট করেছে, ‘হতাহতদের বেশিরভাগই মেয়ে এবং তরুণী’। ‘সমস্ত নাম ডকুমেন্টিং এবং মনে রাখা প্রয়োজন এবং ন্যায়বিচার করা আবশ্যক’। কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। হামলাটি কেন্দ্রের একটি মহিলা বিভাগে ঘটে যেখানে তরুণীরা একটি ইউনিভার্সিটি টেস্ট পরীক্ষা দিতে জড়ো হয়েছিল।
তবে, অতীতে এ ধরনের হামলাগুলোর দায় স্বীকার করেছিল স্থানীয় তালেবানের প্রতিদ্বন্দ্বী আইএসআইএল সহযোগীরা। একই প্রতিষ্ঠানের আশেপাশের একটি শিক্ষা কেন্দ্রে আত্মঘাতী হামলায় ২০২০ সালে ২৪ জন নিহত হয়েছিল। ২০২১ সালের মে মাসে দাশত-ই-বারচির একটি স্কুলের কাছে আরেকটি দাবিহীন হামলায় কমপক্ষে ৮৫ জন নিহত হয়।

২০২১ সালের আগস্টে বিদেশী সেনা প্রত্যাহারের মধ্যে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত তালেবান ২০ বছরের যুদ্ধের পরে দেশে স্থিতিশীলতা আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তবে সাম্প্রতিক সহিংসতার বিস্তৃতি সেই বর্ণনাটিকে দুর্বল করেছে।
শুক্রবার, এএফপি বার্তা সংস্থা জানিয়েছে যে, ৫০ জনেরও বেশি মহিলা হাজারা তালেবানের নিষেধাজ্ঞা অস্বীকার করে জনগণের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানাতে সমাবেশ করে। সূত্র : আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ