Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

‘ষড়যন্ত্র’ সফলে বাধা দিতে সক্ষমরা চুপ থাকলে জাতি ক্ষমা করবে না : ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ অক্টোবর, ২০২২, ১২:১০ এএম

সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং পাকিস্তান তাহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেছেন যে, যারা ‘ষড়যন্ত্র’ সফল হতে বাধা দিতে পারে, তারা যদি এ সময়ে নিজেকে ‘নিরপেক্ষ’ বলে, জাতি তাদের কখনই ক্ষমা করবে না। তিনি বলেন, পিএমএল-এন ভাইস-প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ চেয়েছেন সাইফারটি কোথাও হারিয়ে যেতে যাতে জনগণ তার চাচা শাহবাজ শরীফ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ষড়যন্ত্র সম্পর্কে জানতে না পারে, তবে এটি করে তিনি বিষয়টিকে পুনরুজ্জীবিত করেছেন।
‘তারা সাইফারের অন্তর্ধান নিয়ে একটি নতুন নাটক শুরু করেছে আর এর মাস্টার কপি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিসে রয়েছে... মরিয়ম নওয়াজ তার রাষ্ট্রদূতকে এটি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতে পারেন’। তিনি গতকাল তক্ষশীলায় একটি জনসমাবেশে ভাষণ দেওয়ার সময় বলেন।
ইমরান বলেন, বর্তমান শাসকরা আরেকটি এনআরও পেয়েছে এবং তারা প্রতিদিন আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে। ‘বিলাওয়াল [ইসলামাবাদে] মুদ্রাস্ফীতি মিছিলে এসেছিলেন, কিন্তু লোকেরা কেবল তার ‘কাপেঁ টাংরাহি হ্যায়’ বক্তব্যের জন্য তাকে স্মরণ করে। আজ, পাকিস্তানে মূল্যস্ফীতি ৫০ বছরের সর্বোচ্চ’ তিনি যোগ করেছেন।
ইমরান খান বলেন, এসব লোক ক্ষমতায় আসার পর জনগণের জন্য কিছুই করছে না বরং তাদের দুর্নীতির মামলা শেষ করার চেষ্টা করছে।
‘তাদের ১১০০ বিলিয়ন টাকা চুরির জন্য ক্ষমা করা হয়েছে। ২০০৮ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের ঋণ চারগুণ বেড়েছে’।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা ‘ষড়যন্ত্র’ সফল হতে বাধা দিতে পারে, তারা যদি এই সময়ে নিজেদেরকে নিরপেক্ষ বলে, জাতি কখনো তাদের ক্ষমা করবে না।
ইমরান বলেন, অর্থমন্ত্রী ইসহাক দার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের চেয়েও বেশি কাপুরুষ। ‘একটি চুক্তি না হলে, ইসহাক দার ফিরতে পারতেন না কিন্তু তিনি এসেছেন’ তিনি যোগ করেছেন।
প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে কটাক্ষ করে ইমরান বলেন, তাকে শুধুমাত্র একটি কাজ দেওয়া হয়েছে এবং তা হল বর্তমান শাসকদের কারচুপির মাধ্যমে পরবর্তী নির্বাচনে জয়ী করা। পিটিআই প্রধান তার অনুসারীদের একটি লং মার্চের জন্য তার চূড়ান্ত আহ্বানের জন্য অপেক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছেন, যোগ করেছেন যে আহ্বানটি খুব বেশি দূরে নয়।
আবারো জামিন পেলেন ইমরান খান : পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আবারো জামিন পেয়েছেন। গতকাল রোববার পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসলামাবাদ হাইকোর্ট (আইএইচসি) ৭ অক্টোবর ইমরান খানকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
এর আগে চলতি বছরের ২০ আগস্ট ইসলামাবাদের এক জনসভায় অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ জেবা চৌধুরী ও পুলিশকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় মামলা হয় ইমরান খানের বিরুদ্ধে। গত ৩০ সেপ্টেম্বর গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন দেওয়ানি আদালতের সিনিয়র বিচারক রানা মুজাহিদ রহিম। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির বিষয়টি জানার পর থেকেই ইমরান খানের সমর্থকেরা তার বাড়ির চারপাশ ঘিরে রাখে।
পরোয়ানার কপি হাতে পেয়ে ইসলামাবাদ পুলিশ টুইটারে জানায়, এটি একটি আইনি প্রক্রিয়া। পুলিশ জানিয়েছে, ইসলামাবাদ হাইকোর্ট ইমরান খানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার পাশাপাশি সন্ত্রাসবাদ আইনে আনীত অভিযোগটি বাতিল করায় মামলাটি স্বাভাবিকভাবেই সেখান থেকে দায়রা আদালতে স্থানান্তর হয়। কিন্তু ইমরান খান সেখান থেকে জামিন নেননি। তাই তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০ আগস্ট ইসলামাবাদে ইমরানের দল পাকিস্তান তাহরিকে ইনসাফের সমাবেশে অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ জেবা চৌধুরী ও পুলিশকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগে সন্ত্রাসবাদবিরোধী আইনে মামলা করা হয়। একই সঙ্গে আদালত অবমাননারও মামলা হয়। পরে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তার বিরুদ্ধে আনীত সন্ত্রাসবাদের অভিযোগটি বাদ দিতে নির্দেশ দেন। সূত্র : ডন, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইমরান খান


আরও
আরও পড়ুন