Inqilab Logo

মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

আত্মহত্যা কোনো সমাধান নয়

চিঠিপত্র

মো. মিলন হোসেন | প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০২২, ১২:২১ এএম

ডিপ্রেশন থেকে সহজ মুক্তির পথ হিসেবে আজকাল আত্মহত্যাকে বেঁছে নিচ্ছে দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের শিক্ষার্থীদের অনেকে। উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে আত্মহত্যার প্রবণতা। ক্যারিয়ার নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়াচ্ছে হতাশা, যা আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিচ্ছে অনেককেই। শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা নিয়ে কাজ করা সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আঁচল ফাউন্ডেশনের’ একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়সহ উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কেবল ২০২১ সালেই ১০১ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে! আত্মহত্যা করা ১০১ জনের মধ্যে ৬২ জন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এই ১০১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬৫ জন ছেলে ও ৩৬ জন মেয়ে। ২২ থেকে ২৫ বছর বয়সীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা তুলনামূলকভাবে বেশি। এই বয়স সীমার ৬০ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। অন্যদিকে ১৮ থেকে ২১ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মহত্যা করেছে ২৭ জন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বে প্রতি বছর আত্মহত্যা করে প্রায় ১০ লাখ মানুষ। মূলত বেকারত্ব, মানসিক চাপ, তীব্র বিষণœতা, পারিবারিক জটিলতা, সম্পর্কের অবনতি, পড়াশোনা নিয়ে হতাশা, আর্থিক সংকট এসবই আত্মহত্যার ঘটনার মূল কারণ বলে বিবেচিত। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে সেশনজটে পড়ে পিছিয়ে যাওয়া, চাকরি পাওয়ার অনিশ্চয়তা, পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতা এসব কারণে বিষণœতা তৈরি হচ্ছে শিক্ষার্থীদের মধ্যে, যা আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। অন্যদিকে মেয়েদের ওপর প্রধান চাপ হলো বিয়ে। কিন্তু এটাও মানতে হবে যে, আত্মহত্যা কোনো সমাধান নয়। তাছাড়া মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়ে আমরা উদাসীন। কেনো যেনো মানতেই পারি না ভালো-মন্দ যাই ঘটুক, সেটি জীবনেরই অংশ। জীবনটা অনেক মূল্যবান। আমাদের নিজেরকে সচেতন হতে হবে। পরিস্থিত যেমনই হোক মানিয়ে নেয়া শিখতে হবে। আত্মবিশ্বাস না হারিয়ে হতে হবে ধৈর্যশীল। প্রতিযোগিতা নয় বরং সহযোগিতাই পারে পৃথীবিটাকে বদলে দিতে। আমাদের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে ভাবতে হবে। ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে চলার চেষ্টা করতে হবে। আসুন, আত্মহত্যাকে না বলি। জীবনকে ভালোবাসতে শিখি।


শিক্ষার্থী, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন