Inqilab Logo

শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

‘বলিউডের হনুমান দেখতে মুসলিমের মতো’

সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘আদিপুরুষ বয়কট’-এর ডাক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০২২, ১২:১৫ এএম

‘লাল সিং চাড্ডা’ এবং ‘ব্রহ্মাস্ত্র’-এর পর বলিউডের আরেকটি ফিল্মে মন্দ বাতাসের ঢেউ লেগেছে। এর টিজার প্রকাশের কয়েকদিন পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘বয়কট আদিপুরুষ’ প্রবণতা শুরু হয়েছে। সাইফ আলি খান, প্রভাষ এবং কৃতি স্যানন অভিনীত ওম রাউতের ছবি ‘আদিপুরুষ’ এর জন্য উত্তেজনা ছিল ঘোষণার পর থেকেই। তবে, টিজার প্রকাশের কয়েক ঘণ্টা পর নেটিজেনরা সাইফের ‘ইসলামিক’ লুক, সম্পর্কহীন ভিএফএক্স এবং অন্যান্য অভিনেতাদের পোশাকের জন্য ছবিটির সমালোচনা শুরু করে।

রামানন্দ সাগরের সিরিয়াল ‘রামায়ণ’ থেকে ‘আদিপুরুষ’ হনুমান-এরও তুলনা করা হচ্ছে। ছবিতে হনুমানের ভ‚মিকায় অভিনয় করছেন অভিনেতা দেবদত্ত গজানন নাগে। নেটিজেনরা দাবি করেছেন যে, ছবিতে হনুমানের চেহারাও ইসলামিক পোশাকের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ।
একজন ব্যবহারকারী টুইট করেছেন, ‘বলিউডের হনুমান দেখতে একজন মুসলমানের মতো’ #বয়কট আদিপুরুষ। অন্য একজন লিখেছেন, ‘৩৫ বছর পর, নর্দমা বলিউড অহঙ্কারী রাবণ এবং হনুমান জির ‘সৌন্দর্য’কে মুঘলে রূপান্তরিত করেছে’।

‘রামায়ণে হনুমান। আদিপুরুষে #মুসলিম, দ্রষ্টব্য : গোঁফ ছাড়া কোনো হিন্দু দাড়ি রাখে না। ছবিটি নিষিদ্ধ করা উচিত... তারা আমাদের রামায়ণকে অপমান করছে। তারা দাড়িওয়ালা রাবণ এবং হনুমানকে মুঘল হিসাবে দেখাচ্ছে যাদের কপালে টিকা নেই’ যোগ করেছেন একজন।
এর আগে, মঙ্গলবার মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র ছবিতে দেবতার চিত্রায়ন নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বলে জানা গেছে। মিশ্র বলেছিলেন যে, হনুমানকে চামড়ার পোশাক পরা দেখানো হয়েছিল, যদিও হনুমান চাল্লিশায় তার রূপ স্পষ্টভাবে বর্ণিত হয়েছে।

‘টিজারে আপত্তিকর দৃশ্য রয়েছে। এ ধরনের দৃশ্য ধর্মীয় অনুভ‚তিতে আঘাত করে। এসব দৃশ্য সরাতে প্রযোজক ওম রাউতকে চিঠি লিখছি। তিনি রাজি না হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

‘আদিপুরুষ’ হল রামায়ণের পুনরুক্তি। প্রভাসের চরিত্রের নাম রাঘব, যা ভগবান রামের অন্য নাম। সাইফ রাবণের ভ‚মিকায় এবং জানকি (সীতা) চরিত্রে অভিনয় করেছেন কৃতি স্যানন।
আদিপুরুষের নির্মাতারা ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের জন্য একটি ভাগ্য ব্যয় করেছেন। ফিল্মটি ৪০০ কোটি টাকার বেশি বাজেটে তৈরি করা হয়েছে বলে জানা গেছে, যার বেশিরভাগই ভিএফএক্স-এ ব্যয় করা হয়েছে, কিন্তু এটি দর্শকদের প্রত্যাশা থেকে অনেক দূরে বলে মনে হচ্ছে। সূত্র : আইএএনএস।

 



 

Show all comments
  • রাজন ৭ অক্টোবর, ২০২২, ১১:০৮ পিএম says : 0
    এটি কখনো রামায়ন হতে পারেনা।এটি মুসলিম অভিব্যাক্তির কার্টুন। ধর্মের নামে এসব তামাশা বন্ধ করুন আপনারা। এটি সু স্পষ্ট ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ