Inqilab Logo

রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ০৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

৩০ বছরে ৭০ নারী হত্যা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২২, ১২:০০ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের লোয়া অঙ্গরাজ্যের এক নারী অভিযোগ করেছেন, তার বাবা ৩০ বছরের বেশি সময়ে একাই অন্তত ৭০ জন নারীকে হত্যা করেছেন। ওই নারীর দাবি, লাশগুলো পুঁতে রাখতে তিনি ও তার ভাইবোনরা বাধ্য হতেন। এনডিটিভি জানিয়েছে, লাশগুলো থেকে একটি করে চিহ্ন নিজের কাছে রেখে দিতেন অভিযোগকারী ওই নারীর বাবা। পুরো ঘটনা শুনে স্তম্ভিত যুক্তরাষ্ট্রের লোয়া অঞ্চলের স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা। তাদের মতে, যদি এই অভিযোগ সত্যি প্রমাণ হয়, তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি হত্যা করার রেকর্ড গড়বেন ওই নারীর বাবা। লুসি স্টাডি নামে ওই নারী জানিয়েছেন, প্রায় ৩০ বছর ধরে অন্তত ৭০ জন নারীকে হত্যা করেছেন তার বাবা ডোনাল্ড ডিন স্টাডি। শুধু হত্যাই নয়, নিজের ছেলেমেয়েদের দিয়ে সেই লাশ পুঁতেও রাখতে বাধ্য করতেন ডোনাল্ড। প্রাথমিকভাবে স্থানীয় পুলিশের অনুমান, মূলত যৌনকর্মীদের হত্যা করা হতো। নানাভাবে লোভ দেখিয়ে ওই নারীদের নিজের বাড়িতে ডেকে আনতেন ডোনাল্ড। তারপর হত্যা করতেন তাদের। লুসি বলেছেন, মূলত ভারী জিনিস দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হতো ওই নারীদের। তারপর ছেলেমেয়েদের ডেকে নিতেন ডোনাল্ড। ঠেলাগাড়িতে করে লাশ তুলে নিয়ে কাছেরই একটি কূপের মধ্যে ফেলে দেওয়া হতো। লাশগুলোর উপরে মাটি চাপা দেওয়ার কাজ ছিল লুসি ও তার ভাইবোনদের। ভয়াবহ সেই অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে লুসি জানিয়েছেন, বাবা শুধু বলতেন, কূপের কাছে চলে যাও। ব্যস, তারপর জানতাম আমাদের কী করতে হবে। ঠিক কোন জায়গায় লাশগুলো পোঁতা হয়েছিল, সেই জায়গাটিও দেখিয়ে দিয়েছেন লুসি। শুধু প্রাণের ভয়ে প্রকাশ্যে বাবার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারেননি তিনি। এদিকে ২০১৩ সালে ডোনাল্ড মারা গেছেন। ফলে এ ধরনের ভয়াবহ অভিযোগ প্রমাণ হলেও শাস্তি হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ৩০ বছরে ৭০ নারী হত্যা

২৮ অক্টোবর, ২০২২
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ