Inqilab Logo

বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ১৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ বাড়িয়ে ‘স্যাটেলাইট লঞ্চার’ রকেটের সফল পরীক্ষা ইরানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০২২, ১:৫৪ পিএম

রাশিয়ার সহায়তায় একটি স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের তিন মাস পর শনিবার ইরান মহাকাশে স্যাটেলাইট স্থাপনে সক্ষম এমন একটি রকেটের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের ঘোষণা দিয়েছে। রাশিয়াকে সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহ করা নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর সাথে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যেই এ পরীক্ষা করল ইরান।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে, শনিবার তেহরান স্যাটেলাইট লঞ্চার ‘কায়েম-১০০’ সফলভাবে পরীক্ষার দাবি করে। ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ডের অ্যারোস্পেস সংস্থার তৈরি রকেটটিতে সলিড ফুয়েল ব্যবহার করা হয়েছে। এ রকেটটিকে ইরানের প্রথম ৩ ধাপের সলিড ফুয়েল ব্যবহারকারী স্যাটেলাইট লঞ্চার হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিবেদন অনুসারে, এই রকেটটি ৮০ কিলোগ্রাম ওজনের স্যাটেলাইট ভূপৃষ্ঠ থেকে ৫০০ কিলোমিটার ওপরে স্থাপনে সক্ষম।

আইআরজিসি’র অ্যারোস্পেস ফোর্সের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির আলী হাজিজাদে বলেছেন, অদূর ভবিষ্যতেই এই ক্যারিয়ারের মাধ্যমে ‘নাহিদ’ স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠানো হবে। তিনি আরও বলেন, কঠোর নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই ইরানি তরুণরা এই সাফল্য অর্জন করেছে। তবে ইরান কোনো অবস্থাতেই নিজের উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথ থেকে সরবে না বলে জানান হাজিজাদে।

২০২০ সালের এপ্রিলে ইরান প্রথম সফলভাবে সামরিক স্যাটেলাইট কক্ষপথে স্থাপন করেছিল। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ইরানের কড়া সমালোচনা করে। গত আগস্টে রাশিয়ার সয়ুজ রকেটের মাধ্যমে ইরান ‘খৈয়াম’ স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠায়। ইরানের স্পেস এজেন্সি বলেছিল, তাদের তত্ত্বাবধানে রাশিয়া স্যাটেলাইটটি তৈরি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, ‘খৈয়াম’-এর মাধ্যমে ইরান বিস্তৃত পরিসরে গোয়েন্দা কার্যক্রম চালাতে পারবে। এর মাধ্যমে মস্কোর সঙ্গে তেহরানের সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হয়েছে যা বিশ্বের জন্য ‘চরম হুমকি’ বলে মনে করে ওয়াশিংটন। সূত্র: ফ্রান্স ২৪।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান-যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ