Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

যশোরে চীনা নাগরিককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ২

| প্রকাশের সময় : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা, যশোর : যশোর উপ-শহর এলাকায় বুধবার মধ্যরাতের দিকে একটি বাড়িতে চীনা নাগরিক চ্যাং হিং চংকে (৪৫) পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপশহর মহিলা কলেজের পাশে ২ নম্বর সেক্টরের ৩৪ নম্বর বাড়ি থেকে তার হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। চীনা নাগরিকের কর্মচারী নেত্রকোনা জেলার চকপাড়া এলাকার বাসিন্দা নাজমুল হাসান পারভেজ ও তার ভাইপো মুক্তাদির রহমান তার সঙ্গে থাকতেন। তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে বস্তায় ভরে লাশ টয়লেটে রেখে দেয়। তারা হত্যার পর বৃহস্পতিবার সকালে নিজেরাই থানায় গিয়ে চীনা নাগরিক চ্যাং হিং চংকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানায়। এ সময় তাদের কথাবার্তায় পুলিশের সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে হত্যা করে লাশ সরিয়ে রাখার কথা। নিহত চীনা নাগরিক চ্যাং হিং চং (৪৫) ইজিবাইকে ব্যাটারি আমদানি করে বিক্রি করতেন। যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, অর্থ আত্মসাতের বিরোধের জের ধরে চীনা নাগরিক হত্যাকা-ের শিকার হয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। ওই নাগরিকের সঙ্গে থাকা দোভাষী দু’জন হত্যাকা-ে জড়িত। জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকা-ে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে। একই সঙ্গে তারা হত্যাকা-ের বর্ণনা দিয়েছে। তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক লাশ ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।  
চীনা নাগরিক চ্যাং হিং চং ২০১৪ সাল থেকে বাংলাদেশে ব্যবসা করতেন। সর্বশেষ তিনি চলতি বছর ২৭ নভেম্বর বাংলাদেশে আসেন। গত সাত মাস ধরে উপ-শহরের এই বাড়িটির নিচতলা তিনি গুদামঘর হিসেবে ব্যবহার করতেন বলে জানান বাড়ির মালিক মাসুদুর রহমান।
যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ইলিয়াস হোসেন জানান, চীনা নাগরিক চ্যাং হিং চং ইজিবাইক’র ব্যাটারির ব্যবসায়ী। চ্যাং হিং চংয়ের স্ত্রী টেমু লাই এন ঢাকায় থাকেন। বুধবার রাতে টেমু লাই তার স্বামীকে ফোনে না পেয়ে নাজমুলকে ফোন দেন। এ সময় নাজমুল তাকে জানান, তার স্বামীকে (চ্যাং হিং চং) খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পুলিশ সুপার জানান, আটক নাজমুল ও মুক্তাদির বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে চংকে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। এরপর ব্লেড দিয়ে কেটে লাশ বস্তায় ভরে টয়লেটে রেখে দেয়।
পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল মতিন জানান, তদন্তে হত্যার কারণ পরিষ্কার জানা গেছে। সেটি হচ্ছে চীনা নাগরিকের অনেক টাকা বাজারে রয়েছে, আবার কালেকশনও হয়েছে কিছু, তাকে সরিয়ে দিলে ওই টাকা নিজেরা আত্মসাৎ করতে পারবে এমনটি ভেবেই তাকে হত্যা করে। এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে চংয়ের স্ত্রী টেমু লাই এন যশোরে আসেন।  এ সময় স্বামীর লাশ দেখে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। একপর্যায়ে অভিযুক্ত নাজমুল ও মুক্তাদিরকে সাংবাদিকদের সামনে আনা হলে তিনি উত্তেজিত হয়ে নাজমুলকে কিল, ঘুষি ও লাথি মারেন। নিহত চংয়ের গাড়ি চালক মামুনের দাবি, অতিরিক্ত ৫শ’ টাকা বিল নিয়ে বিরোধে চংকে খুন করা হয়েছে।
যশোরের জেলা প্রশাসক জানান, ইতোমধ্যে হত্যাকা-ে জড়িত দু’জন গ্রেফতার হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তারা হত্যাকা-ে জড়িতের বিষয়ে স্বীকারও করেছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট ও ময়নাতদন্ত হয়েছে। নিহতের স্ত্রী ঢাকা থেকে এসেছেন। পোস্টমর্টেম শেষে আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে লাশ হস্তান্তর করা হবে। জেলা প্রশাসক আরও বলেন, দৃঢ়ভাবে বলতে চাই, বাংলাদেশ শান্তির জায়গা। সবাই নিরাপদে থাকবে। এই হত্যাকা-কে আমরা বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবেই দেখব। আমরা সবার নিরাপত্তা দিতে বদ্ধপরিকর।
১০ সদস্যের নামের তালিকা বঙ্গভবনে
প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সংলাপে বিএনপির নেতৃত্ব দেবেন খালেদা জিয়া
স্টাফ রিপোর্টার : নির্বাচন নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন নিয়ে বঙ্গভবনে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সংলাপে বিএনপির প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন দলটির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বিএনপির ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নামের তালিকা বঙ্গভবনে পাঠানো হয়েছে। দলের সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম, মুনির হোসেন ও বেলাল আহমেদ ওই তালিকা সম্বলিত বিএনপি মহাসচিবের চিঠি বঙ্গভবনে পৌঁছে দেন। প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের সচিব বরাবর ওই চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানান বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।
১৮ ডিসেম্বর রোববার বিকাল সাড়ে ৪টায় বিএনপির সঙ্গে প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদের এ সংলাপের শুরু হবে। সংলাপের খসড়া চূড়ান্ত করতে আগামীকাল শনিবার রাতে সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন খালেদা জিয়া।
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, চেয়ারপার্সন ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন। মহাসচিবসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যরা এ প্রতিনিধি দলের সদস্য।
বিএনপির একটি সূত্র জানায়, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া প্রতিনিধিদলের সদস্য হিসাবে আছেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, ড. আব্দুল মঈন খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।  
১৮ নভেম্বর নির্বাচন কমিশন পুনগর্ঠনের একটি প্রস্তাব তুলে ধরেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। ওই প্রস্তাবের একটি কপি প্রেসিডেন্টের কাছে পাঠাতে তার সাক্ষাত চেয়ে প্রথমে ফোন ও পরে চিঠি দেয়া হয়। কিন্তু বঙ্গভবন থেকে কোনো সাড়া মেলেনি। পরে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল বঙ্গভবনে গিয়ে চেয়ারপার্সনের প্রস্তাবের একটি কপি প্রেসিডেন্ট বরাবর পৌঁছে দেন। গত ১২ ডিসেম্বর বঙ্গভবন থেকে চিঠি পাঠিয়ে সংলাপের জন্য বিএনপির কাছে ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নাম চাওয়া হয়। ওই চিঠিতে বলা হয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদে দেশের মহামান্য প্রেসিডেন্টকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অনধিক চারজন কমিশনার নিয়োগের বিষয়ে ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে। যেহেতু নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শীঘ্রই উত্তীর্ণ হচ্ছে, সেহেতু বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত গ্রহণ সাপেক্ষে নির্বাচন কমিশন গঠনে মহামান্য  প্রেসিডেন্ট আগ্রহ ব্যক্ত করেছেন। সেই লক্ষে আগামী ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ বিকেল সাড়ে ৪টায় বঙ্গভবনে মহামান্য প্রেসিডেন্ট আপনার দলের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মত-বিনিময়ের সানগ্রহ সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।
প্রেসিডেন্টের আমন্ত্রণ পাওয়ার পর সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে মঙ্গলবার রাতে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া। সেখানে সংলাপের খসড়া নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সার্চ কমিটি, সিইসি কিংবা অন্যান্য কমিশনারের নাম চাওয়া হলে বিএনপির পক্ষ থেকে নামও দেয়া হতে পারে। এ লক্ষ্যে যোগ্য, দক্ষ ও দল নিরপেক্ষ কয়েকজনের নামও চূড়ান্ত করা হয়েছে। সাবেক প্রধান বিচারপতি, সাবেক ভিসি ও সাবেক আমলাদের মধ্য থেকে একজনকে সার্চ কমিটির প্রধান করার প্রস্তাব দেবেন খালেদা জিয়া। এছাড়া সার্চ কমিটির পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনার হিসেবে একজন নারী সদস্য নিয়োগেরও আহ্বান জানানো হতে পারে। সংলাপে প্রেসিডেন্ট বিএনপির কাছে সার্চ কমিটি বা নির্বাচন কমিশনের নামের তালিকা চাইলে তা দেয়া হবে। সব প্রস্তুতি নিয়েই দলটি বঙ্গভবনে যাচ্ছে।



 

Show all comments
  • Millat ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ৪:০৩ এএম says : 0
    abar suru holo
    Total Reply(0) Reply
  • Murad khan ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ৯:৫২ এএম says : 0
    Ai rakom ghatonay desh o jatir janno osuvo. Ami ar bichar druto chai.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীনা

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন