Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

সার্জেন্টের আন্তরিক প্রচেষ্টায় যুবক ফিরে পেলেন টাকাভর্তি ব্যাগ

প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : পুলিশের অনেক নেতিবাচক খবরের মাঝে ইতিবাচক খবরও আছে। এবার এক পুলিশ সার্জেন্টের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এক যুবক ফিরে পেয়েছেন তার ব্যাগে থাকা নগদ পাঁচ লাখ টাকা এবং ল্যাপটপ।
রাজধানীর নিকুঞ্জের বাসিন্দা শরীফ আহমেদ সিএনজি অটোরিকশায় করে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় কেরানীগঞ্জ থেকে এসে নামেন বাবুবাজার ব্রিজের ঢাকা অংশে। কিন্তু নামার সময় সাথে থাকা ব্যাগ অটোরিকশায় রেখে নামেন। ভাড়া দিয়ে ব্যাগ হাতে নিবেন। তাই ভাড়া দেয়ার জন্য পকেট থেকে মানিব্যাগ বের করছেন। কিন্তু ভাড়া না নিয়েই অটোরিকশা দ্রুত ঘুরে বিপরীতে চলতে থাকে। শরীফের মাথা ঘুরে যায়। কারণ ব্যাগে রয়েছে তার বাড়ি নির্মাণের জন্য নগদ ৫ লাখ টাকা ও ল্যাপটপ। কার কাছে অভিযোগ করবে বুঝতে পারছিলেন না শরীফ। অগত্যা সামনে একজন পুলিশ সার্জেন্টসহ কয়েক পুলিশকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে দৌড়ে তাদের শরণাপন্ন হন।
পুলিশ দল তাকে সান্ত¦না দিয়ে বসতে বলেন। আর সাথে সাথেই পুলিশের সেই সার্জেন্ট তার মোটরসাইকেলে রওনা দেন শরীফকে বহনকারী স্কুটারটির পেছনে। অন্য পুলিশ সদস্যরা এ সময় তাকে সান্ত¦না দিচ্ছিলেন। এ সময় প্রতি মিনিট যেন তার কাছে কয়েক যুগ বলে মনে হচ্ছিল। শরীফের অপেক্ষার পালা আর শেষ হচ্ছে না। আর কি করা যায় বুঝতেও পারছে না শরীফ। প্রায় ১৫ মিনিট পর পুলিশ সার্জেন্ট শরীফের হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ও অটোরিকশা ও তার চালককে নিয়ে হাজির। তবুও যেন বিশ্বাস করতে পারছিল না শরীফ। তার সামনে সেই ব্যাগ। তখনো তার মনে সন্দেহ ব্যাগে কি টাকা ফিরে পাবে। ব্যাগ খুলে দেখেন যে সব কিছু ঠিকঠাক আছে। পুলিশ এ সময় আইনগত ব্যবস্থা নিতে চালক কালামকে থানায় নিয়ে যেতে চাইলে শরীফ তার অর্থ ও মালামালসহ ব্যাগ ফিরে পাওয়ায় এবং চালক ক্ষমা চাওয়ায় তাকে ছেড়ে দিতে পুলিশকে অনুরোধ করেন।
শরীফ এবার ভালো করে সার্জেন্টের দিকে তাকান। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। খুশি হয়ে বলেন, ভাই আমার টাকা উদ্ধার করেছেন। এখান থেকে আপনার যা খুশি টাকা নেন। পুলিশ সার্জেন্ট সেই টাকা নামিয়ে বরং ব্যাগ বন্ধ করে বলেন, আপনার হারিয়ে যাওয়া টাকা ও ব্যাগ উদ্ধার করা পুলিশের নৈতিক দায়িত্ব। আমি তা পালন করেছি মাত্র। এর জন্য আমি কোন অতিরিক্ত সুযোগ নিতে পারি না। উল্টো পুলিশ সার্জেন্ট তাকে চা পান করান এবং পরে অন্য একটি গাড়িতে তাকে নিরাপদে যাত্রার ব্যবস্থা করেন। গতকাল বিকেলে ইনকিলাবের কার্যালয়ে এসে এ তথ্য জানান শরীফ।
ইনকিলাবের পক্ষ থেকে খবর নিয়ে জানা যায়, যে সার্জেন্টের প্রত্যুৎপন্নিমতায় শরীফ তার নগদ টাকাসহ ব্যাগ ফিরে পেয়েছে তার নাম মো. আহসান হাবিব প্রামাণিক। তিনি ডিএমপি’র কোতোয়ালি জেনে কর্মরত। এ ব্যাপারে সার্জেন্ট আহসান হাবিবের সাথে যোগাযোগ করে জানা যায়, তিনি ২০১১ সালে পুলিশে যোগ দেন। তিনি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ থানার উত্তর দলগ্রাম পাটেয়ারীটারী গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবা স্কুল শিক্ষক। এর আগেও তিনি সংবাদ পেয়ে জীবন বাজি রেখে রাজধানীর কাকরাইল এলাকা থেকে তাৎক্ষণিক অটোরিকশা ছিনতাইকারীদের আটক করেন।
আহসান হাবিব বলেন, ছোটবেলা থেকেই তার ইচ্ছা ছিল মানুষের উপকার করার। একজন পুলিশ সদস্য হিসেবে তিনি বাকি জীবনেও মানুষের উপকার করে যেতে চান। মানুষের উপকার করার এ দীক্ষা তিনি তার পিতার কাছ থেকে পেয়েছেন বলে জানান। তিনি সবার কাছে দোয়া চান।



 

Show all comments
  • raiyan habib ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ২:২৮ এএম says : 0
    hajar salam shargent bhike deshe asle ey bhier shathe dekha korbo bhalo ekti manosh,,tar janne amar dowa rilo..
    Total Reply(0) Reply
  • Shajidul HAQUE ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ৬:২৮ এএম says : 0
    Thank you mr. Habib
    Total Reply(0) Reply
  • Sumon Ansari ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৫ এএম says : 1
    সালাম সাজেন্ট আপনাকে। সাধুবাদ জানাই আপনার বাবা মা সৎ ও যোগ্য করে ছেলেকে মানুষ করেছেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Foysal Ahmed Rana ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৬ এএম says : 0
    আল্লাহ এই ভাই কে যেন অনেক বড় এক জন পুলিশ অফিসার হউয়ার তফিক দান করেন
    Total Reply(0) Reply
  • Suman Ahmed Khan ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৭ এএম says : 0
    বর্তমান সময়ে সৎ লোকের কদর নাই। দোয়া করি আল্লাহ আপনাকে নেক হায়াত দান করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Zarjish ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৮ এএম says : 0
    প্রত্যেক পুলিশ কে এমন হওয়া উচিত
    Total Reply(0) Reply
  • Mahfuz Ahmmed ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৮ এএম says : 0
    এই পুলিশ অফিসার ভাইকে আমার শত ছালাম
    Total Reply(0) Reply
  • Kamruzzaman ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৪৯ এএম says : 0
    ধন্যবাদ ইনকিলাবকে এমন একটা নিউজের জন্য
    Total Reply(0) Reply
  • Pallob Sharma Baloram ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৫০ এএম says : 0
    ata amader kaligonj basir satota
    Total Reply(0) Reply
  • Imam Hasan ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১০:৫১ এএম says : 0
    এটাইত তার কর্তব্য
    Total Reply(0) Reply
  • arif ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১১:২৩ এএম says : 0
    hazar salam ei police vai k, onek din por police department er ekta valo news pailam. Tak poruskrito kora uchit. . .
    Total Reply(0) Reply
  • m.Hossain ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১১:৪৪ এএম says : 0
    there were lot of incident that make the people very upset but this activities rescued the
    Total Reply(0) Reply
  • Tuhin ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০৮ পিএম says : 0
    বন্ধু তোমার সততায় আমিও গর্বিত। ভাল থাক। শুভ কামনা রইল।
    Total Reply(0) Reply
  • Nasir ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:৫১ পিএম says : 0
    salute from me.
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Abdul Hadi Masud ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ৩:০২ পিএম says : 0
    Honesty comes from honest family background. He should be Awarded!!
    Total Reply(0) Reply
  • md mizanur ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ৫:০২ পিএম says : 0
    এটাই সর্বচ্চ দেশ প্রেম। এটাই ঈমান দারিত্ব। একেই বলে পুলিশ জনগনের বন্ধু। এধরনের প্রতিটি কাজের জন্য একটি করে বেতন ইঙ্ক্রিমেন্ট দেয়া উচিত ।এবং যারা অগ্রাহ্য করেছে তাদের প্রত্যেককে সাস্পেন্ড করা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Abdul Hadi Chowdhury ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ৫:৩২ পিএম says : 0
    thank You Mr. Pramanik. May Allah bless you and all us.
    Total Reply(0) Reply
  • abdullah al mamun ২৭ মার্চ, ২০১৬, ১২:১৮ পিএম says : 0
    ঐ সার্জেন্ট হাজার হাজার সালাম, আশা করি প্রসাশনিক সকল দায়িত্যশীলরাই এখান থেকে শিক্ষা নিবেন,,,,কিন্তু ঐ ড্রাইভারের সাথে এমন উদারতা বোধহয় ঠিক হয়নি,,,,প্রয়োজন ছিলো তার যথাযথ শাস্তি পাওয়া,,,,,।ব্যগ না পেলে কি মনে চাইতো না তাকে খুন করি!!!পেলেনতো পুলিশের হস্তক্ষেপে এখানে ড্রাইভারেরতো কোন ভালো মানষিকতা ছিলো না,,,,তবে কি অতি আবেগে আপনীও আরেকটি অন্যায় করেন নি?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ