Inqilab Logo

শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

হাদীসের আলোকে অভিশপ্ত যারা

কে. এম. ছালেহ আহমদ জাহেরী | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০১ এএম

সকল পাপই ঘৃণিত ও নিন্দনীয়। পাপ নিজেকে যেমন ঠেলে দেয় ধ্বংসের কুপে তেমনি ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্রকেও। নিম্নে এমন কিছু পাপ সম্পর্কে অবগত হবো, যেসব পাপীকে আল্লাহ ও তার রাসুল অভিসম্পাত করেছেন।
মদের সাথে জড়িত ব্যক্তিগণ : আনাস ইবনে মালিক (রা.) বলেন, মদের সঙ্গে সম্পৃক্ত ১০ শ্রেণির লোককে রাসুলুল্লাহ (সা.) অভিসম্পাত করেছেন। মদ তৈরিকারক, মদের ফরমায়েশকারী, মদ পানকারী, মদ বহনকারী, যার জন্য মদ বহন করা হয়, মদ পরিবেশনকারী, মদ বিক্রেতা, মদের মূল্য ভোগকারী, মদ ক্রেতা এবং যার জন্য মদ ক্রয় করা হয়। (তিরমিজি, হাদিস : ১২৯৫)।
সুদের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিগণ : সুদের সাথে সম্পৃক্ত চার ব্যক্তিকে রাসুলুল্লাহ সাঃ অভিশাপ দিয়েছেন। জাবির (রা.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) লানত করেছেন সুদখোরের ওপর, সুদদাতার ওপর, লেখকের ওপর ও তার সাক্ষী দুজনের ওপর। (মুসলিম, হাদিস : ৩৯৮৫)। চোরকে রাসুলুল্লাহ সা. অভিশাপ দিয়েছেন। (বুখারি, হাদিস : ৬৭৮৩)। যে স্ত্রী বিছানায় স্বামীর ডাকে সাড়া দেয় না : আবু হুরায়রা (রা.) বলেন, রাসুলূল্লাহ (সা.) বলেছেন, কোনো লোক যদি নিজ স্ত্রীকে বিছানায় আসতে ডাকে, আর সে কোনো ওজর ছাড়া তা অস্বীকার করে এবং সে ব্যক্তি স্ত্রীর ওপর দুঃখ নিয়ে রাত্রি যাপন করে, এমন স্ত্রীর ওপর ফেরেশতারা সকাল পর্যন্ত অভিশাপ দিতে থাকে। (বুখারি, হাদিস : ৩২৩৭)। মাতা-পিতাকে লানতকারী। আল্লাহ নাম ব্যতিত পশু যবাইকারী। বিদাতী লোককে আশ্রয় দানকারী। জমিনের সিমানা অন্যায়ভাবে পরিবর্তন কারী। হযরত আবু তুফায়েল আমির ইবনে ওয়াসিলাহ (রহ.) বলেন, আমি আলী ইবনে আবি তালিব (রা.)-এর কাছে উপস্থিত ছিলাম। এক ব্যক্তি তাঁর কাছে এসে বলল, নবী (সা.) আপনাকে আড়ালে কী বলেছিলেন? বর্ণনাকারী বলেন, তিনি রেগে গেলেন এবং বলেন, নবী (সা.) লোকদের কাছ থেকে গোপন রেখে আমার নিকট একান্তে কিছু বলেননি। তবে তিনি আমাকে চারটি (বিশেষ শিক্ষণীয়) কথা বলেছেন। বর্ণনাকারী বলেন, এরপর লোকটি বলল, হে আমিরুল মুমিনিন! সে চারটি কথা কি? তিনি বলেন ১. যে ব্যক্তি তার পিতা-মাতাকে অভিসম্পাত করে, আল্লাহ তাকে অভিসম্পাত করেন। ২. যে ব্যক্তি আল্লাহ ছাড়া ভিন্ন কারো নামে পশু জবাই করে আল্লাহ তার ওপরও অভিসম্পাত করেন। ৩. ওই ব্যক্তির ওপরও আল্লাহ অভিসম্পাত করেন, যে কোনো বিদাতি লোককে আশ্রয় দেয় এবং ৪. যে ব্যক্তি জমিনের (সীমানার) চিহ্নসমূহ অন্যায়ভাবে পরিবর্তন করে, তার ওপরও আল্লাহ অভিসম্পাত করেন। (মুসলিম, হাদিস : ৫০১৮)।
ভিন্ন লিঙ্গের পোশাক পরিধানকারী নারী ও পুরুষ : ইসলামি শরিয়তে রয়েছে নারী-পুরুষের স্বতন্ত্র পোশাক। যারা এই বিধান লঙ্ঘন করবে, তাদেরকে অভিসম্পাত করেছেন রাসুলুল্লাহ সা.। বিখ্যাত সাহাবি আবু হুরায়রা (রা.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) অভিসম্পাত করেছেন ওই সকল পুরুষকে, যারা নারীর অনুরূপ পোশাক পরে এবং ওই সব নারীকে, যারা পুরুষের অনুরূপ পোশাক পরিধান করে। (আবু দাউদ, হাদিস : ৪০৯৮)।
তালাক দেওয়ার উদ্দেশ্যে বিবাহকারী ব্যক্তিদ্বয় : আমিরুল মুমিনিন আলী (রা.) বর্ণিত, তিনি বলেন, নবী (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি তালাক দেওয়ার উদ্দেশ্যে বিবাহ করে। এবং যে স্বামী, তালাক দেওয়ার পর পুনরায় গ্রহণের ইচ্ছায়, তাকে অন্যের নিকট বিবাহ দিয়ে তার জন্য হালাল করে নেয়, তারা উভয়ে অভিশপ্ত। (আবু দাউদ, হাদিস : ২০৭৬)।
অন্যকে অস্ত্র তাক করে ভয় দেখানো : প্রসিদ্ধ তাবেয়ি ইবনে সিরিন (রহ.) বলেন, আমি আবু হুরায়রা (রা.)-কে বলতে শুনেছি, নবীজি (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি তার ভাইয়ের প্রতি (লৌহ নির্মিত) মারণাস্ত্র তাক করে করে, সে তা পরিত্যাগ না করা পর্যন্ত, ফেরেশতারা তাকে অভিসম্পাত করতে থাকে। যদিও হয় সে তার আপন ভাই । (মুসলিম, হাদিস : ৬৫৬০)। মহান আল্লাহ আমাদের অভিশপ্ত এসব পাপ থেকে রক্ষা করুন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন