Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

‘এটা আপনাদেরও সমস্যা’, ইউক্রেন যুদ্ধে এশীয় দেশগুলির সাহায্য চাইলেন ম্যাখোঁ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২২, ২:০৯ পিএম

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ থামাতে মধ্যস্ততা করুক এশীয় দেশগুলো, এমনটা চেয়েছিলেন পশ্চিমি রাষ্ট্রনেতাদের অধিকাংশ। কিন্তু যুদ্ধ থামাতে ভারত-সহ এশীয় দেশগুলি সরাসরি কোনও পদক্ষেপ করেনি। এই পরিস্থিতিতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ এশীয় দেশগুলির উদ্দেশে বলতে শোনা গেল, ‘এটা আপনাদেরও সমস্যা।’

প্রশান্ত মহাসাগরীয় সম্মেলনের ফাঁকে ম্যাখোঁ বৈঠক করেন বাণিজ্য নেতাদের সঙ্গে। সেখানেই তিনি বলেন, ফ্রান্স চেষ্টা করছে যাতে এই যুদ্ধের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান ঐক্যমত্য গড়ে ওঠে। আর সেই প্রসঙ্গেই এশিয়ার দেশগুলির উদ্দেশে তাঁর মন্তব্য, ‘এই যুদ্ধ আপনাদেরও সমস্যা। কেননা এর ফলে অস্থিরতা তৈরি হবে।’

গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে রুশ সেনা। তারপর থেকে গত কয়েক মাস ধরেই চলছে যুদ্ধ। যুদ্ধ চলাকালীন একাধিকবার রাশিয়া ও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টদের সঙ্গে কথা বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু ভারত কি এই যুদ্ধ থামাতে সক্রিয় ভূমিকা নেবে? উঠেছে প্রশ্ন।

প্রসঙ্গত, রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘর্ষে বরাবর যুদ্ধবিরোধী অবস্থান নিয়েছে ভারত। কিন্তু কূটনৈতিক ক্ষেত্রে দুই দেশের বিবাদ মেটানোর ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা নিতে এখনও তৈরি নয় ভারত। এই পরিস্থিতিতে ভারত-সহ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলিকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানালেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

Show all comments
  • মো. তোফায়েল আহমেদ ১৯ নভেম্বর, ২০২২, ৯:১০ পিএম says : 0
    যুদ্ধের ইন্ধন যোগায় তারা,, তারাই থামাক রাশিয়াকে
    Total Reply(0) Reply
  • মো. তোফায়েল আহমেদ ১৯ নভেম্বর, ২০২২, ৯:১০ পিএম says : 0
    যুদ্ধের ইন্ধন যোগায় তারা,, তারাই থামাক রাশিয়াকে
    Total Reply(0) Reply
  • Ranjan Kumar Barua ২০ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম says : 0
    ফ্রান্স, আমেরিকা সহ পশ্চিমারা ইউক্রেনকে যুদ্ধের ইন্ধন যুগিয়েছে। রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনকে অস্ত্র সরবরাহ করেছে, জোট করে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, আর এখন তারা এশিয়ার দেশসমূহে বলছে যুদ্ধ বন্ধ করার জন্যে। কি ধরনের কপটতা?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ