Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আ’লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধাদের ভোট চাইলেন সাখাওয়াত

প্রকাশের সময় : ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১২:২১ এএম, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার : নারায়ণগঞ্জের বন্দর সমরক্ষেত্রে বিজয় দিবসের একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে সেখানে থাকা মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতাদের কাছে ভোট চেয়েছেন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খান। শুক্রবার সকাল থেকে বন্দরে ২১ ও ২২নং ওয়ার্ডে গণসংযোগের সময়ে দুপুরে পৌঁছান সমরক্ষেত্রে। তখন সমরক্ষেত্রে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান চলছিল। ওই সময়ে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বন্দর  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আতাউর রহমান মুকুল, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ রশিদ প্রমুখ। তখন সাখাওয়াত তাদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন। পরে তিনি মঞ্চের সামনে থাকা মুক্তিযোদ্ধাসহ অন্যদের কাছ থেকে ভোট প্রার্থনাসহ দোয়া চান। এ ছাড়া স্থানীয় নারী ও সাধারণ ভোটারদের কাছে বন্দরের বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোট চেয়েছেন সাখাওয়াত। তিনি বলেন, সুষ্ঠুভাবে ভোট হলে এবং ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে যেতে পারলে ধানের শীষের বিশাল বিজয় হবে। সাখাওয়াতের সঙ্গে জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক জাহিদ হাসান রোজেল, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক শাহেদ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সেনা মোতায়েন জরুরী -রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন নেই। বিগত দিনে মানুষ ভোট দিতে পারেনি। মানুষের সকল অধিকার খর্ব করা হয়েছে। ঢাকার দুটি ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কেন্দ্রে সাধারণ মানুষ ভোট দিতে পারেনি। সেখানে পুলিশ ভোট দিয়েছে। আমরা দেখেছি গাইবান্ধায় সাওতাঁল পল্লীতেও পুলিশ আগুন দিয়ে নিরীহ মানুষের ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে। তিনি বলেন, দেশ এখন পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। এ অবস্থায় আগামী ২২ ডিসেম্বর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট মানুষ দিতে পারবে কী না সেটা নিয়েও সন্দিহান। তাই সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সেনা মোতায়েন জরুরী। গত নির্বাচনে বর্তমান আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেনা মোতায়েন চেয়েছিল। তখন নির্বাচন কমিশনও সেনা চেয়ে সরকারকে চিঠি দিয়েছিল। কিন্তু সেনা মোতায়েন হয়নি। এবার আবার ওই প্রার্থী সেনা মোতায়েন চাচ্ছেন না। তবে আমরা আশা করি বিজয়ের মাসে জনতার বিজয় ঘটবে। গতকাল শুক্রবার বিকালে নাসিকের সিদ্ধিরগঞ্জের ১নং ওয়ার্ডের ডাচ বাংলা ব্যাংকের সামনে পথ সভায় তিনি এ বক্তব্য রাখেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবেদিন ফারুক, কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা এড. সানাউল্লাহ্ মিয়া, কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা ও সাবকে এমপি সাম্মি আক্তার, কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা অ্যাড. আব্দুস সামাদ আজাদ, কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনসহ বিএনপির নেতৃবৃন্দ। এছাড়া  কেন্দ্রীয় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বিএনপির কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দদের নিয়ে বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন। আজ শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান বন্দর থানার ২১,২২, ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে ব্যাপক প্রচারণা চালান। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ সদর ও বন্দর উপ জেলার সিটি কর্পোরেশনের ২৭ ওয়ার্ডে বিএনপির কেন্দ্রীয় ও দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা নেতৃবৃন্দ ধানের শীষের প্রার্থী শাখাওয়াতের পক্ষে নির্বাচনী গণসংযোগে অংশ নেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নাসিক নির্বাচন

২৩ ডিসেম্বর, ২০১৬
২২ ডিসেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন