Inqilab Logo

শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

সুযোগের সদ্ব্যবহার, টুইটারের ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের চাকরি দেবে কু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২২, ১০:০৫ পিএম

টুইটার ঘিরে অশান্তির আঁচ কমার নামই নেই। শীর্ষস্থানীয় মাইক্রোব্লগিং সাইটটি কেনার পরই মাত্র দু’সপ্তাহের মধ্যে প্রায় অর্ধেক কর্মী ছাঁটাই করে ফেলেছেন ধনকুবের ইলন মাস্ক। সেই সঙ্গে বাকিদেরও ‘কঠোর পরিশ্রম’ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এরপরই শয়ে শয়ে কর্মীরা ইস্তফা দিতে শুরু করেছেন। ট্রেন্ডিং হয়ে গিয়েছে #রিপ টুইটার। এমন পরিস্থিতিতে ভারতীয় মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্ম ‘কু’ পরিকল্পনা করছে টুইটার ছেড়ে আসা কর্মীদের তাদের সংস্থায় নিয়ে আসার।

‘কু’-এর যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা মায়াঙ্ক বিড়ওয়াৎকা নিজেই টুইটারে এই ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘খুবই দুঃখ লাগছে এই #রিপ টুইটার এবং অন্যান্য হ্যাশট্যাগগুলি দেখে। আমরা টুইটারের কিছু প্রাক্তন কর্মীকে নিয়োগ করতে চাই, কেননা সংস্থার সম্প্রসারণ করে আরও বড় হওয়ার পরের ধাপে পৌঁছতে চাইছি। তাদের প্রতিভা মূল্যবান, তাই তাদের কাজ করার অধিকার রয়েছে। মাইক্রো ব্লগিং ব্যক্তির শক্তির কথা বলে। অবদমনের নয়।’

জনপ্রিয়তা ক্রমেই বাড়ছে কু’র। ২০২০ সালের মার্চে আত্মপ্রকাশের পর থেকে ইতিমধ্যেই ৫ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে ডাউনলোডের সংখ্যা। গেটর, ট্রুথ সোশ্যাল, ম্যাস্টোডন ও পার্লারের মতো মাইক্রো ব্লগিং সাইটকে পিছনে ফেলে দিয়ে এই মুহূর্তে বিশ্বে টুইটারের পরই কু। টুইটারের পতন শুরু হওয়ায় ভারতীয় এই সোশ্যাল মঞ্চ যে আরও বড় স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে তা পরিষ্কার হয়ে গেল মায়াঙ্কের এদিনের পোস্টে।

এদিকে টুইটার ঘিরে উদ্বেগের শেষ নেই। লাগাতার কর্মী ছাঁটাই ও তারপর শুরু হওয়া গণ ইস্তফার ধাক্কায় প্রভূত সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে মাস্ককে। তিনি দায়িত্ব নিয়েই জানিয়েছিলেন, ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট পাওয়ার পদ্ধতি বদলাতে চলেছে। টাকা দিলেই মিলবে ব্লু টিক। টাকার বিনিময়ে ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট নিলে মিলবে অনেক সুবিধাও। সিদ্ধান্তের পর থেকেই বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। তাদের দাবি ছিল, ব্লু টিক কেবলমাত্র অর্থের বিনিময়ে পাওয়ার এই নিয়ম থেকে বিপত্তি হতে পারে। নানা ধরনের ভুয়া তথ্য ছড়ানো হতে পারে এর সাহায্যে। তাদের উদ্বেগ যে অমূলক নয়, তা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে এই ক’দিনেই। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

Show all comments
  • Md Hatem Ali ২০ নভেম্বর, ২০২২, ৯:০৯ এএম says : 0
    আমার মনে হয় ইলন মাস্ক সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল ট্রাম্পের হয়ে কাজ করছেন। কারণ টুইটার থেকে তাকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হতে পারে মাস্ক যে টাকায় টুইটার কিনেছেন তার পুরোটাই ট্রাম্পের।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন