Inqilab Logo

শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

মালয়েশিয়ায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করবেন রাজা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

মালয়েশিয়ার রাজা আল-সুলতান আব্দুল্লাহ জানিয়েছেন, খুব শিগগিরই নিজের পছন্দ ও যোগ্য ব্যক্তিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেবেন তিনি। সরকার গঠনে রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের মধ্যে সমঝোতা করতে ব্যর্থ হওয়ার পর এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে যাচ্ছেন দেশটির রাজা। খবর রয়টার্সের। মালয়েশিয়ার বার্তাসংস্থা বেরনামা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের ব্যাপারে ন্যাশনাল প্যালেসের বাইরে উপস্থিত সাংবাদিকদের রাজা আব্দুল্লাহ বলেছেন, ‘আমাকে দ্রæত এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে দিন। আমার সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার জন্য সাধারণ মানুষের প্রতি আহŸান জানাচ্ছি।’ গত শনিবার মালয়েশিয়ার সংসদের নিম্নকক্ষ রাকিয়াতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি কোনো জোট ও দল। সংবিধান অনুযায়ী, সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনকারী জোটের নেতা প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। যেহেতু কোন জোট একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। ফলে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন ও সরকার গঠনের বিষয়টি ঝুলে যায়। এ বিষয়টি সমাধান করতে দেশটির সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া তিন প্রধান জোট আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান কোয়ালিশন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল বøক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকোবের বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে। কিন্তু বর্তমান ক্ষমতাসীন বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন সরকার গঠনে অপর দুই জোটের একটিকেও সমর্থন দেবে না বলে জানায়। এরপরই ন্যাশনাল প্যালেসের পক্ষ থেকে খবর আসে, রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের মধ্যে সমঝোতা করতে ব্যর্থ হওয়ায় রাজা নিজের পছন্দের ব্যক্তিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেবেন। সংবিধানেই রয়েছে, যদি রাজনৈতিক দলগুলো সরকার গঠনে ব্যর্থ হয় তখন রাজা এতে হস্তক্ষেপ করবেন। তবে রাজা আব্দুল্লাহ শেষ সুযোগ হিসেবে দলগুলোকে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টা পর্যন্ত সময় বেধে দেন। এই সময়ের মধ্যে দলগুলোকে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর আহŸান জানিয়েছেন তিনি। এদিকে মালয়েশিয়ার সংসদের মোট আসন সংখ্যা ২২২টি। সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে সরকার গঠন করতে হলে বিজয়ী দল বা জোটকে অন্তত ১১২টি আসনে জয়ী হতে হবে। শনিবার ভোটের ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান কোয়ালিশন ৮২টি, মুহিদ্দিন ইয়াসিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল বøক ৭৩টি এবং ইসমাইল ইয়াকোবের বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন ৩০টি আসনে জয়ী হয়েছে। নির্বাচনে আনোয়ারের দল বেশি ভোট পেলেও অন্য কোনো জোট তার সঙ্গে যোগ দিতে না চাওয়ায় এখন আনোয়ার প্রধানমন্ত্রী হতে পারছেন না। আনোয়ার এবং মুহিদ্দিন দুইজনই দাবি করেছেন সরকার গঠন করার মতো পর্যাপ্ত সমর্থন তাদের আছে। তবে কে কে তাদের সমর্থন দিচ্ছেন এটি খোলাসা করেননি তারা। মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল প্যালেসের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আনোয়ার এবং মুহিদ্দিন দুইজনকেই কথা বলার জন্য ডেকেছেন রাজা। রয়টার্স।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ