Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে পুতিন হ্যাকিংয়ের নির্দেশ দিয়েছেন

যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে হেয় করার জন্যই রাশিয়া এ কাজ করেছে : প্রথমবারের মতো মুখ খুললেন হিলারি

| প্রকাশের সময় : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে পরাজয়ের জন্য প্রথমবারের মতো রাশিয়ান হ্যাকারদের হ্যাকিংকে দায়ী করলেন নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সঙ্গে তার ব্যক্তিগত রেষারেষি এ ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারে বলে ইঙ্গিত করেন তিনি। রাশিয়ার এই আক্রমণকে তিনি মার্কিন গণতন্ত্রের জন্যও হুমকিস্বরূপ বলে অভিহিত করেছেন। পাশাপাশি নির্বাচনের কয়েকদিন আগে এফবিআই প্রধানের একটি চিঠি প্রকাশকেও তার নির্বাচনী ফলাফলের পেছনের কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন হিলারি। বৃহস্পতিবার ম্যানহাটনে দাতাদের সামনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে নির্বাচনে রাশিয়ান হ্যাকারদের জড়িত থাকার কথা বলেছেন হিলারি ক্লিনটন। মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ান হ্যাকারদের জড়িত থাকার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে দীর্ঘদিন ধরেই। নির্বাচনের আগে ডেমোক্রেটিক পার্টি ও হিলারির একজন ঘনিষ্ঠ কর্মীর ইমেইল ফাঁসের জন্য রাশিয়ার হ্যাকারদেরই দায়ী করছেন যুক্তরাষ্ট্রের অনেকেই। ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ অস্বীকার করা হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা নিজেও ওইসব হ্যাকিংয়ে রাশিয়ার জড়িত থাকার অভিযোগের কথা বলেছেন। ফাঁস হয়ে যাওয়া ওই সব ইমেইল হিলারির নির্বাচনী প্রচারণায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।
এ বিষয়ে এতদিন পর্যন্ত মুখ খোলেননি হিলারি ক্লিনটন। গত বৃহস্পতিবার এসে প্রথমবারের মতো বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন তিনি। ম্যানহাটনের ওই অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘পুতিন তার নিজের লোকজনদের সন্ত্রাসের জন্য আমাকে দায়ী করে ক্ষোভ ঝেড়েছিলেন। তখন তিনি যা বলেছিলেন এবং এই নির্বাচনে তিনি যা করে দেখিয়েছেন, তার মধ্যে যোগসূত্র ওই কথাগুলো। মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব রাখা হ্যাকিং কেবল তার নিজের ও নির্বাচনী প্রচারণার ওপরই আক্রমণ নয়, বরং এটা গোটা যুক্তরাষ্ট্রের ওপরই আক্রমণ বলে মন্তব্য করেন হিলারি। তিনি বলেন, এটা আমাদের দেশের ওপর আক্রমণ। এখানে আমরা স্বাভাবিক রাজনৈতিক উদ্বেগের ঊর্ধ্বে। এটি আমাদের গণতন্ত্রের শুদ্ধতার প্রশ্ন, এটি আমাদের জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্ন। এর মধ্যে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা নিজেও হ্যাকিংয়ের পিছনে রাশিয়ার জড়িত থাকার কথা বলেছেন। বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজের একজন মুখপাত্রও জানিয়েছেন, এসব সাইবার হামলায় রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন জড়িত ছিলেন। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ বলছে, প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সুবিধা করে দেয়ার উদ্দেশ্যেই রাশিয়া হ্যাকিং করেছে। তবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগের কোন তথ্য-প্রমাণ তারা জনসম্মুখে হাজির করেনি। ট্রাম্প নিজেও এমন অভিযোগকে হাস্যকর ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছেন। রাশিয়ার পক্ষ থেকেও বরাবরেই অস্বীকার করা হয়েছে এমন অভিযোগ। ম্যানহাটনের ওই অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার হিলারি তার পরাজয়ের জন্য এফবিআইয়ের একটি ঘোষণাকেও দায়ী করেছেন। নির্বাচনের ১১ দিন আগে এফবিআই পরিচালক জেমস কমি জানিয়েছিলেন, নতুন কিছু ফাঁস হওয়া ইমেইল নিয়ে তদন্ত করবেন তারা। হিলারির ইমেইল কেলেঙ্কারির সঙ্গে এসব ইমেইলের যোগসূত্র থাকতে পারে। নির্বাচনের দ্ইু দিন আগে জেমস কমি এসব ইমেইলের সঙ্গে হিলারির কোন ধরনের অপরাধের জড়িত থাকার নজির নেই বলে ঘোষণা দেন। তবে ততদিনে হিলারির নির্বাচনী প্রচারণায় এটা যথেষ্ট পরিমাণ প্রভাব ফেলে বলে মনে করা হয়। হিলারি নিজেও গত বৃহস্পতিবার এই বিষয়টিকে পরাজয়ের একটি কারণ বলে উল্লেখ করেন। সিএনএন, এনবিসি, বিবিসি, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • Al Amin ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১:৪৬ এএম says : 0
    Plz present the evidence
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হিলারি

২৮ জানুয়ারি, ২০২০
১৭ মার্চ, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন