Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০৯ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

জীবন বাঁচাতে সউদীর সেই ফুটবলারকে পাঠানো হলো জার্মানিতে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ৫:৫০ পিএম | আপডেট : ৬:০৭ পিএম, ২৩ নভেম্বর, ২০২২

ভয়াবহ এক ইনজুরি! নিজ দেশের গোলকিপারের সঙ্গে সংঘর্ষে সর্বনাশ সউদী আরবের ফুটবলার ইয়াসির আল শাহরানির। মঙ্গলবার আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচে ভয়াবহ এক ইনজুরিতে পড়েছেন তিনি। এই ফুটবলারের চোয়াল ও মুখের বাঁ দিকের হাড় ভেঙে গেছে।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ২-১ গোলের সেই স্বপ্নের জয়টা উদযাপন করতে পারলেন না সউদী আরবের ডিফেন্ডার। অতিরিক্ত সময়ে তখন খেলা। এমন সময় ঘটল ভয়ানক সেই ঘটনা।

আর্জেন্টিনার একটি আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে সামনে চলে আসেন সউদী আরবের গোলকিপার মোহাম্মদ আল-ওয়াইস। ঠিক তখনই ইয়াসির লাফিয়ে উঠে বল ধরতে গিয়ে পড়েন বিপাকে। গোলকিপারের হাঁটু বেশ জোরে আঘাত করে তার মুখে।

তখন অনেকটা সময় মাঠেই পড়ে ছিলেন ইয়াসির। রক্তে ভেসে যায় তার মুখ। তারপরই স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। এক্স-রের পর জানা যায় চোয়াল এবং মুখের বাঁ দিকের হাড় ভেঙে গেছে। ভেতরে রক্তক্ষরণ হওয়ায় তার অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন। জীবনটাও শঙ্কায়।

ঠিক এমন সময় সউদী আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান এগিয়ে আসেন। ইয়াসিরের জীবন বাঁচাতে নির্দেশ দেন চিকিৎসার জন্য প্রাইভেট বিমানে করে যেন তাকে পাঠানো হয় জার্মানিতে। তার উন্নত চিকিৎসার পুরো দায়িত্ব নিয়েছে সউদী আরবের সরকার। ক্রাউন প্রিন্স নিজে নির্দেশ দিয়েছেন শাহরানির চিকিৎসায় যেন কোন কমতি না হয়। নিজেই খোঁজ রাখছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, এই চোটে কাতার বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে যেতে পারেন ইয়াসির আল শাহরানি। এই ধাক্কা সামলে উঠা সহজ নয়!



 

Show all comments
  • রিপন চন্দ্র দে ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ৬:১৩ পিএম says : 0
    সৃষ্টি কর্তা যেন ওনাকে দ্রুত সুস্থতা দান করেন।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ ফিরোজ উদ্দিন ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ৬:২২ পিএম says : 0
    সউদী আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানকে ধন্যবাদ । ইনজুরীর সাথে সাথে আহত ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করে প্রাইভেট বিমানে জার্মানীতে পাঠিয়ে আরেক বার উদারতার দৃস্টান্ত স্থাপন করলেন ।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ কামাল ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ৬:৩৯ পিএম says : 0
    সৌদির প্রিন্স কে ধন্যবাদ। সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন