Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০৯ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

‘মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস-২০২২’- এর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০২২, ৭:৪৬ পিএম

মাস্টারকার্ড আজ শনিবার ‘মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস-২০২২’-এর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেছে; এই আয়োজনে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে শীর্ষ পার্টনার ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ফিনটেক এবং মার্চেন্টদের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্বীকৃতি দিয়েছে। এবারের অ্যাওয়ার্ডস-এর চতুর্থ আসরের বিষয়বস্তু ছিল, ‘টুয়োর্ডস এ স্মার্ট ট্রান্সফর্মেশন’ ও এটির লক্ষ্য আর্থিক খাতের শীর্ষ ব্যক্তিত্বদের একই প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসার মাধ্যমে সরকারের ‘স্মার্ট বাংলাদেশ ভিশন ২০৪১’ বাস্তবায়নে সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি পুর্নব্যক্ত করা। দেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির বিস্তৃতিতে প্রচেষ্টার স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৯ সালে এই অ্যাওয়ার্ডস যাত্রা শুরু করে।

রাজধানীতে অনুষ্ঠিত অ্যাওয়ার্ডস প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সরকার-এর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী টিপু মুনশি; ‘গেস্ট অব অনার’ হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংক এর নির্বাহী পরিচালক মো. খুরশীদ আলম; অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিকাশ ভার্মা, চিফ অপারেটিং অফিসার, সাউথ এশিয়া, মাস্টারকার্ড, মাস্টারকার্ড বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল সহ পার্টনার ব্যাংক, ফিনটেক ও মার্চেন্ট পার্টনার সমূহের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আমন্ত্রিত সম্মানিত অতিথিরা।

আর্থিক খাতে পেমেন্ট গেটওয়ে, কন্টাক্টলেস, ইন্টারঅপারেবল ও কিউআর-ভিত্তিক পেমেন্ট সলুশ্যন চালুর পাশাপাশি নিরাপদ ও কার্যকর পেমেন্ট অপশন প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্য অর্জনে সহযোগিতা করে মাস্টারকার্ড পেমেন্ট ইন্ডাস্ট্রির বৈপ্লবিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। কয়েক দশক ধরে, কার্যকর ও টেকসই ডিজিটাল পেমেন্ট ইকোসিস্টেম এর বিস্তৃতি এবং এসএমই’র জন্য আর্থিক অন্তর্ভুক্তিমূলক পরিকল্পনা প্রস্তুত করতে মাস্টারকার্ড সরকার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও গ্রাহকদের হাতে হাত রেখে কাজ করে চলেছে। আগামী ২০৪১ সাল নাগাদ স্মার্ট বাংলাদেশের ভিশন অর্জনের পথ সুগম করার স্বীকৃতি হিসেবে সেরা পারফর্মারদের ১৫টি ক্যাটাগরিতে এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস প্রদান করেছে মাস্টারকার্ড।

পুরস্কার প্রদান করা ক্যাটাগরিগুলো হলো- এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ডেবিট বিজনেস (ডোমেস্টিক) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ডেবিট বিজনেস (ইন্টারন্যাশনাল) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ক্রেডিট বিজনেস (ডোমেস্টিক) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ক্রেডিট বিজনেস (ইন্টারন্যাশনাল) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড প্রিপেইড বিজনেস ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড কন্টাক্টলেস (ইসুয়িং) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড কন্টাক্টলেস (অ্যাকুয়ারিং) ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড পিওএস অ্যাকুয়ারিং বিজনেস ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড অনলাইন অ্যাকুয়ারিং বিজনেস ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন নিউ ক্যাটাগরি ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড বিজনেস গ্রোথ ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড রেমিট্যান্স বিজনেস ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন ডিজিটাল ইনোভেশন ২০২১-২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড বিজনেস (মার্চেন্ট)- পিওএস ২০২১-২০২২, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড বিজনেস (মার্চেন্ট)- অনলাইন ২০২১-২২।

মাস্টারকার্ড সাউথ এশিয়ার চিফ অপারেটিং অফিসার বিকাশ ভার্মা বলেন, “সহজ ও নিরাপদ ফিনান্সিয়াল ইকোসিস্টেম তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ আর্থিক সেবাখাতের বিস্তৃতির এই প্রচেষ্টায় পাশে থাকতে পেরে মাস্টারকার্ড গর্বিত। যেহেতু বাংলাদেশ জ্ঞান-ভিত্তিক সমাজে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে যাচ্ছে, মাস্টারকার্ড পার্টনারদের সঙ্গে নিয়ে ও প্রযুক্তির সক্ষমতা কাজে লাগিয়ে গ্রাহকদের আরো বেশি পেমেন্ট ও কমার্স অপশন প্রদান করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রবৃদ্ধিতে অবদান রাখছে এমন সব প্রয়োজনীয় ও অভিনব ডিজিটাল পেমেন্ট সল্যুশন উদ্ভাবনের স্বীকৃতি হিসেবে আজ স্থানীয় প্রতিষ্ঠান সমূহকে পুরস্কৃত করতে পেরে মাস্টারকার্ড আনন্দিত।”

মাস্টারকার্ড ১৯৯১ সালে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে এবং ১৯৯৭ সালে প্রথম ব্র্যান্ডেড প্লাস্টিক কার্ড চালুর পর খুব সহজেই গ্রাহকপ্রিয়তা পায় কোম্পানিটি। ২০১৩ সালে প্রথম গ্লোবাল পেমেন্ট টেকনোলজি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশে নিজেদের অফিসের কার্যক্রম শুরু করে মাস্টারকার্ড।

বিগত ৩১ বছরের কার্যক্রমে মাস্টারকার্ড যেসব শীর্ষ আর্থিক ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের সাথে পার্টনারশিপ তৈরি করেছে, সেগুলো হচ্ছে- এবি ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, ব্র্যাক ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ বাংলা ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড, প্রিমিয়ার ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক এবং আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড ইত্যাদি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ