Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

ভোটের মুখে গুজরাটে বিরাট ধাক্কা বিজেপির, কংগ্রেসে যোগ সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০২২, ৬:০০ পিএম

ভারতের গুজরাট রাজ্যে ভোটের মুখে বড়সড় ধাক্কা খেল কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি। অন্যদিকে সুবিধা পেল কংগ্রেস। বিজেপিত্যাগী প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা চারবারের বিধায়ক জয় নারায়ণ ভ্যাস আনুষ্ঠানিক ভাবে যোগ দিলেন কংগ্রেসে। সোমবার আহমেদাবাদে কংগ্রেস দপ্তরে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের হাত ধরে হাত শিবিরে শামিল হন ভ্যাস। কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন তার ছেলেও। ভ্যাসের যোগদান মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেসের গুজরাটের পর্যবেক্ষক তথা রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটও।

আসলে বিভিন্ন সমীক্ষক সংস্থা গুজরাটে বিজেপির ষষ্ঠবার ক্ষমতায় ফেরা নিয়ে যতই ভবিষ্যদ্বাণী করুক না কেন, গেরুয়া শিবিরে কিন্তু অশান্তি লেগেই আছে। দিনকয়েক আগেই বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শঙ্করসিন বাঘেলার ছেলে। ভ্যাসও সেই পথেই হাঁটলেন। তাকে দলে যোগদান করিয়ে কংগ্রেস সভাপতি খাড়গে দাবি করেছেন, গুজরাটে এবার পরিবর্তন আসছে। সেটা বিজেপিও বুঝতে পেরেছে। সেকারণেই গত পাঁচবছরে তিনবার মুখ্যমন্ত্রী বদল করেছে তারা।

জয় নারায়ণ ভ্যাস চারবারের বিধায়ক। বিজেপির টিকিটে মোট সাতবার ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ২০১৭ সালে কংগ্রেস প্রার্থীর কাছে হারেন তিনি। বিজেপি এবার পছন্দের সিদ্ধাপুর আসন থেকে ভ্যাসকে দাঁড় করাতে রাজি নয়। সেটাই মূলত তার দলত্যাগের কারণ। এ মাসের গোড়ার দিকেই বিজেপি ছাড়েন তিনি। বিজেপি ছাড়ার পর কংগ্রেস এবং আম আদমি পার্টি দুদলেরই প্রস্তাব তার কাছে ছিল। কিন্তু তিনি শেষমেশ কংগ্রেসকেই বেছে নিলেন ভ্যাস।

টানা ২৭ বছর ক্ষমতায় থাকায় গুজরাটে বিজেপি বিরোধী হাওয়া প্রবল। তারপর মোরবির দুর্ঘটনা ‘গোদের ওপর বিষফোড়ার মতো হয়েছে গেরুয়া শিবিরের জন্য। গতবারই পাঁচবারের মধ্যে সবচেয়ে কম আসনে জয় পায় মোদি-অমিত শাহদের দল। ১৮২ আসনের মধ্যে ঝুলিতে আসে ৯৯টি। কংগ্রেস পায় ৭৭ আসন। অন্যান্যরা ৬টি। এর মাঝে পাঁচ বছর অতিক্রান্ত। পাঁচবছরে মুখ্যমন্ত্রী বদল করতে হয়েছে পদ্ম শিবিরকে। শাসক বিজেপি ও প্রধান বিরোধী কংগ্রেসের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। সূত্র: টাইমস নাউ।

 


 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ