Inqilab Logo

সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ১৪ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

রোহিঙ্গা নাগরিকের নামে জন্মনিবন্ধন প্রদানের অভিযোগ

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০১ এএম

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে আব্দুল বাছেদ আলী নামে এক রোহিঙ্গা নাগরিকের জন্মনিবন্ধন সনদ প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার শিবনগর ইউপি থেকে এ জন্মনিবন্ধন দেয়া হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশসহ তদন্তে মাঠে নেমেছে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা।
এদিকে জন্মনিবন্ধন সনদ প্রদানকারী সাবেক শিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রহমান চৌধুরী বিপ্লব বলছেন ভুলবশত ২০২১ সালের ১৬ মার্চ এ সনদ প্রদান করা হয়েছে। যার জন্মনিবন্ধন নম্বর ১৯৯১২৭১৩৮৮৪১১৪০৮৩। জন্মনিবন্ধনে দেখা যায়, আব্দুল বাছেদ আলীর পিতা আবেদ আলী মাতা আলেয়া খাতুন গ্রাম পাঠকপাড়া ওয়ার্ড নং৩, ৭নং শিবনগর ইউনিয়ন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর।
সরেজমিনে দেখা যায়, আব্দুল বাছেদ আলী নামে কোন ব্যক্তি পাঠকপাড়া গ্রামে নেই, গ্রামবাসীরাও এই নামে কোন ব্যক্তিকে তারা চেনেন না।
গ্রামবাসী জানায়, পাঠকপাড়া গ্রামের বাসীন্দা মৃত বৈমুদ্দিনের ছেলে আবেদ আলীর তিন ছেলে ও এক মেয়ে তারা হলেন বেলাল হোসাইন, আনোয়ার হোসেন, আলাল হোসেন এবং মেয়ে আরিফা খাতুন। এই ৪ সন্তানের বাইরে আব্দুল বাছেদ আলীর কোন সন্তান নেই। পাঠকপাড়া গ্রামের রমজান আলী, মজিবর রহমান, রুহুল আমিনসহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, আবেদ আলী তাদের প্রতিবেশি কিন্তু আব্দুল বাছেদ নামে তার কোন ছেলে নেই। একইভাবে আবেদ আলীর স্ত্রী আলেয়া খাতুন বলেন, আব্দুল বাছেদ আলী নামে তার কোন সন্তান নেই।
এ বিষয়ে নিবন্ধনে স্বাক্ষরকারী শিবনগর ইউপি’র তৎকালিন সচিব দিপক চন্দ্র দাস বলেন, সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যান জন্মসনদ দেয়ার সুপারিশ করায় তিনি এ নিবন্ধনে স্বাক্ষর করেছেন। তবে কোন মন্তব্য করেননি জন্মনিবন্ধন সনদটি প্রস্তুতকারী শিবনগর ইউনিয়নের হিসাব সহকারী মেহেদী হাছান। আর জন্মসনদ দেয়ার ঘটনা জানেন না বলেই জানান তৎকালিন ওয়ার্ড সদস্য ফিরাদুল ইসলাম গাটু। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিন বলেন, ঘটনাটি নিয়ে উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা তদন্ত করছে। তদন্ত শেষ হলেই দোষিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন