Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সম্মেলনে পদপ্রত্যাশীদের দৌঁড়ঝাপ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২২, ৭:০৫ পিএম

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সক্রিয় হয়ে উঠেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা। একই সঙ্গে সম্মেলনে সভাপতি এবং সাধারণ সম্মাদক পদ ঘিরে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। সম্মেলনকে সামনে রেখে এরই মধ্যে মাঠেও নেমেছে পদ প্রত্যাশীরা। বিগত দিনে দলের প্রতি ত্যাগী এবং আগামী জাতীয় নির্বাচনে দলের জন্য ভ’মিকা রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পদ পেতে নিরলস প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

৬ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সম্মেলনের আগে শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকার দুই মহানগরের সম্মেলনের দিনক্ষণও ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। বিভিন্নসূত্রে প্রায় ডজন খানেক পদপ্রত্যাশীর নাম শোনা যাচ্ছে। এবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের শীর্ষ পদের দৌঁড়ে যাদের নাম আলোচনায় শোনা যাচ্ছে, তারা হলেন - আহসান হাবীব, সাধারণ সম্পাদক, রমনা থানা ছাত্রলীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, মাহামুদুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক, মতিঝিল থানা ছাত্রলীগ, মো. আশিক মাহমুদ, সহ-সভাপতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও সহ-সভাপতি খিলগাঁও থানা ছাত্রলীগ, ফজলুল করিম মিরাজ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আমিনুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, রিয়াজ মোল্লা, প্রচার সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ মাজেদুল মজিদ মাহমুদ, উপ-পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আরিফুল ইসলাম সজীব, কার্যনির্বাহী সদস্য, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ।

বিভিন্ন সূত্রে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলনের দিনক্ষণ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। সম্মেলনে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদকে ঘিরে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। কমিটিতে পদ পেতে অনেকে বিভিন্ন মহলে যোগাযোগ শুরু করে দিয়েছে।

সূত্রমতে জানা গেছে, পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে যাদের ক্লিন ইমেজ, সাংগঠনিক সক্ষমতা আছে, স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে যাদের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই, অসাম্প্রদায়িক চেতনার অধিকারী তারাই আগামীর নেতৃত্বে আসবে। তাছাড়া যাদের জনপ্রিয়তা আছে এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক এবং দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামী দিনের সুন্দর বাংলাদেশ বিনির্মানে অগ্রণী ভুমিকা পালন করতে পারবে বলে অনুমেয় সেইসব ছাত্রনেতারা এগিয়ে থাকবেন।

এছাড়াও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ইউনিটের বাহিরে শীর্ষ পদে প্রার্থী হয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সরকারি কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক মাইনুল হাওলাদার।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী মো. আশিক মাহমুদ বলেন, ছাত্রলীগ হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া বিপ্লবী বাংলার বিপ্লবী সংগঠন। এর কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে এবং মনে লালন করে। শৈশব কাল থেকে বাবা এর হাত ধরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে পথ চলা শুরু। আওয়ামী পরিবারের সন্তান আমি। দলের জন্য ছাত্রলীগের জন্য সব সময় কাজ করেছি, ভবিষ্যতেও করব। আজীবন দলকে সঠিক পথে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে রুখে দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করাই তার লক্ষ্য। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি তাকে সুযোগ করে দেন তাহলে সে দলের জন্য তথা ছাত্রলীগের জন্য কাজ করে যাবেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ