Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

এবার ডেডলক ভাঙবে মেসির!

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম


শুরুর ব্যর্থতা ঘুচিয়ে টানা দুই জয়ে মিলেছে নকআউট পর্বের টিকেট। যেখানে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপে যাদের বিপক্ষে প্রথমবার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা। শেষ আটে ওঠার লক্ষ্যে আজ রাতে মাঠের লড়াইয়ে নামবে আর্জেন্টিনা ও অস্ট্রেলিয়া। আহমেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে মুখোমুখি লড়াইয়ে অনেক এগিয়ে আছে আর্জেন্টিনা। তবে একটি হারের অভিজ্ঞতাও আছে তাদের। যদিও সেটা ৩৪ বছর আগে, দুই দলের প্রথম দেখায়। মাঠের লড়াইয়ের আগে চলুন জেনে নিই দুই দলের আরও কিছু জানা অজানা তথ্য-

১৯৮৬ বিশ্বকাপ থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ১৬ দলের নকআউট পর্ব শুরু হয়। এই নিয়ম হওয়ার পর থেকে শেষ ষোলোয় ৮ বার খেলছে আর্জেন্টিনা।
এর মধ্যে দুইবার আর্জেন্টিনা বাদ পড়ে শেষ ষোলো থেকে। ১৯৯৪ সালে রোমানিয়ার বিপক্ষে হারে ৩-২ গোলে। আর গত আসরে ফ্রান্স তাদের হারায় ৪-৩ গোলে।

কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দুটি গোল করেছেন লিওনেল মেসি। ২০০৬ আসর থেকে বিশ্ব মঞ্চে আর্জেন্টাইন তারকার গোল এখন মোট ৮টি। নকআউট পর্বে এখনও গোলের খাতা খুলতে পারেননি তিনি।

এ নিয়ে ষষ্ঠবার বিশ্বকাপে খেলছে অস্ট্রেলিয়া। এর মধ্যে কেবল একবারই শেষ ষোলোয় উঠেছে দলটি। ২০০৬ আসরে ইতালির বিপক্ষে বিতর্কিত পেনাল্টিতে ১-০ গোলে হেরে নকআউট পর্ব থেকে বাদ পড়ে তারা।

কাতার বিশ্বকাপে সবশেষ দুই ম্যাচে কোনো গোল হজম করেনি অস্ট্রেলিয়া। বিশ্ব মঞ্চে ১৯৭৪ সালে নিজেদের অভিষেক আসরের পর এই প্রথম জাল অক্ষত রাখতে পারল তারা।

১৯৮৮ সালে প্রথমবার মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা ও অস্ট্রেলিয়া। ওই ম্যাচে লাতিন আমেরিকানদের ৪-১ গোলে হারিয়ে দেয় তাসমান সাগর পাড়ের দলটি।

এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে দুই দলের সাক্ষাৎ হয়েছে সাত বার। যেখানে আর্জেন্টিনার জয় পাঁচ ম্যাচে। হার ওই এক ম্যাচেই, আরেকটি ড্র।

বিশ্বকাপে কখনও মুখোমুখি হয়নি আর্জেন্টিনা ও অস্ট্রেলিয়া। ১৯৯৪ আসরে জায়গা পেতে আন্তঃমহাদেশীয় প্লে-অফে দুই লেগের লড়াইয়ে জিতেছিল আর্জেন্টিনাই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন