Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ১৭ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

ঢাবিতে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু চালককে গণপিটুনি

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এলাকায় প্রাইভেটকারের নিচে চাপা পড়ে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক পথচারী নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় গাড়ির চালক গণপিটুনি খেয়ে হাসপাতালে মৃত্যুশয্যায়। গতকাল শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পথচারী ওই মহিলার নাম রুবিনা আক্তার। পেশায় গৃহিণী, বয়স ৪৫, থাকতেন রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায়। অপরদিকে প্রাইভেটকারের চালকের নাম জাফর শাহ। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শাহবাগ এলাকায় এক পথচারী নারীকে ধাক্কা দেয় একটি প্রাইভেটকার। গাড়িতে ওই মহিলার শাড়ী আঁটকে গেলে গাড়ির নিচে ঝুলতে দেখা যায় তাকে। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, প্রাইভেটকারের চালক গাড়ি না থামিয়ে চলতে থাকলে মোটরসাইকেলে করে জনতা পিছু ধাওয়া করে। চলতে চলতে ঢাবির টিএসসি হয়ে নীলক্ষেত মোড় পর্যন্ত যায় ওই প্রাইভেটকার। সেখানে জনতা গাড়ি আঁটকিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় ওই নারীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। বিক্ষুব্ধ জনতা ওই গাড়ি চালককে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। কর্তব্যরত পুলিশ এসে জনতাকে নিয়ন্ত্রণে এনে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী ঢাবি শিক্ষার্থী আনওয়ার জানায়, ভিসি চত্বরে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেয়ার সময় হঠাৎ দেখি একটি প্রাইভেটকার চোরের মতো পালিয়ে যাচ্ছে। গাড়ির নিচে কিছু একজন মহিলাকে ঝুলতে দেখা যায়। পিছু ধাওয়া করে আমরা সবাই গেলাম নীলক্ষেত মোড়ে। সেখানে জনতা গাড়ি আটকালে আমরা সবাই মিলে ওই মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এবং জনতা ড্রাইভারকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে পুলিশের সাহায্যে হাসপাতালে পাঠায়।
ঢামেক পাড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া বলেন, দু’জনই মারাত্মক আহত হয়েছেন। মহিলাটিকে ডাক্তার মৃত ঘোষণা দিয়েছে। এবং ড্রাইভার মুমূর্ষু প্রায়। ###



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গণপিটুনি


আরও
আরও পড়ুন