Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০৯ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

কে এই আবু বাকার জিদানের পাশে নাম লেখালেন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ২:৪০ পিএম

কাতার বিশ্বকাপে গতকাল দলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গিয়ে ফ্রান্সের ভাগ্যই বরণ করে ব্রাজিল। ক্যামেরুনের কাছে হেরে যায় ১-০ গোলে। ম্যাচের ৯২ মিনিটে গোলটা করেন আবুবাকার। বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো ব্রাজিলকে হারাল ক্যামেরুন।

ইতিহাস গড়া গোল করে আনন্দের বাঁধ ভেঙে যায় আবুবাকারের। জার্সি খুলে সবার সাথে উদযাপন করেন তিনি। নিয়ম অনুযায়ী, জার্সি খোলার শাস্তি হিসেবে হলুদ কার্ড দেখানো হয়। আবুবাকার সেটি তো দেখলেনই, সাথে তাকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দিলেন রেফারি!

তবে জার্সি খোলার শাস্তি হিসেবে লাল কার্ড দেখেননি আবুবাকার, এই হলুদ কার্ড দেখার আগেই যে ব্রাজিলের মার্টিনেল্লিকে ফাউল করে প্রথম হলুদ কার্ড দেখেছিলেন তিনি। জার্সি খোলার পর দেখা হলুদ কার্ডটি ছিল ম্যাচে তার দ্বিতীয়। আর দুই হলুদ কার্ডে যে লাল হয় সেটি সবারই জানা।
সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসরের এই স্ট্রাইকারও জানতেন, জার্সি খুললেই দেখতে হবে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড। অর্থাৎ, লাল কার্ড দেখে ছাড়তে হবে মাঠ। তবে নিয়মের তোয়াক্কা করেননি আবুবকর। মনের ইচ্ছাকে প্রশ্রয় দিয়েই জার্সি খুলে লাল কার্ড দেখেন। সেখানেই জিদানের পাশে লেখা হয়ে গেল আবুবকরের নাম। বিশ্বকাপে জিদানের পর আবুবাকারই প্রথম খেলোয়াড়, যিনি একই ম্যাচে গোল করার সঙ্গে লাল কার্ডও দেখলেন। পার্থক্যটা হলো, জিদানের দল সেদিন হারলেও আবুবকরের দল জিতেছে। যদিও শেষ পর্যন্ত জিদানের মতো দুঃখই সঙ্গী হয়েছে আবুবাকারের। শেষ ষোলোয় উঠতে পারেনি ক্যামেরুন।

লাল কার্ড দেখার মুহূর্তটিও আবুবাকার সম্ভবত কখনো ভুলতে পারবেন না। মরক্কোন বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের রেফারি ইসমাইল এলফাতাহ এগিয়ে এসে সবার আগে আবুবাকারের সঙ্গে হাত মেলান। এরপর তার পিঠ চাপড়ে দিয়ে পকেট থেকে প্রথমে হলুদ কার্ড তারপর লাল কার্ড বের করেন। লাল কার্ড দেখলেও হাসতে হাসতে মাঠ ছাড়েন আবুবাকার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাতার


আরও
আরও পড়ুন