Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

কুড়িগ্রামে সার্জারি অপারশনের নামে হত্যার অভিযোগে চিকিৎসকের বিরুদ্ধে, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ৭:০৩ পিএম

কুড়িগ্রামের কন্যা শিশু মাইশাকে সার্জারি অপারেশনের নামে হত্যার অভিযোগে ঢাকাস্থ আলম মেমোরিয়াল হসপিটালের চিকিৎসক আহসান হাবীব ও তার সহকর্মীদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে কুড়িগ্রাম শহরতলির ভেলাকোপা গ্রাম থেকে প্রায় ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ বিক্ষোভ মিছিল বের করে। পরে মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পৃথক পৃথকভাবে এসপি অফিস, ডিসি অফিস এবং সদর থানার সম্মুখে চিকিৎসক আহসান হাবীবের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ করে।

বিক্ষোভ মিছিলে “ডাক্তার নামের কসাই আহসান হাবীবের ফাঁসি চাই, খুনি ডাক্তারের ফাঁসি চাই, নিষ্পাপ শিশু মাইশা মরলো কেন প্রশাসন জবাব চাই” নানা শ্লোগানে শহর প্রকম্পিত করে এলাকাবাসী।

মিছিল শেষে কুড়িগ্রাম অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন নিহত শিশু মাইশার স্বজনদের কাছ থেকে ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা শুনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের ব্যাপারে আশ্বস্ত করেন।

জানা গেছে, মাত্র ৯ মাস বয়সে মাইশার (৫) নামের এক কন্যা শিশুর ডান হাতের আঙ্গুল চুলার আগুনে পুড়ে যায়। সে সময় রংপুরে চিকিৎসা করে হাতের ক্ষত ভালো হলেও তিনটি আঙ্গুল কুকড়ে ছিল মাইশার। মেয়ের হাত ভালো হবে এমন আশা নিয়ে সম্প্রতি ঢাকার মিরপুরে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ডা. মো. আহসান হাবীব নামে এক চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হন মাইশার বাবা মোজাফফর।

শিশুটির হাত দেখে চিকিৎসক বলেন, অপারেশন করলে মাইশার হাত স্বাভাবিক হবে। সে অনুযায়ী গত বুধবার (৩০ নভেম্বর) সকালে ঢাকার রূপনগরে আলম মেমোরিয়াল হাসপাতালে হাতের অপারেশন হয় মাইশার। কিন্তু ঘন্টা দেড়েক পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় শিশুটির অবস্থা খারাপ। তাকে আইসিইউ সাপোর্ট দেওয়ার জন্য গ্লোবাল স্পেশালাইজড হাসপাতালে নিতে হবে। হতবিহ্বল বাবা-মা মেয়েকে নিয়ে ছোটেন মিরপুর-১, মাজার রোডের সেই হাসপাতালে। সেখানে নেওয়ার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় শিশুটি মারা গেছে, তাকে নিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ