Inqilab Logo

রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ০৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

যৌতুকের কুফল

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

আমরা তথ্য প্রযুক্তির যুগে বসবাস করেছি। আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে সবখানে। কিন্তু আমাদের সামাজিক কাঠামো, মূলনীতি ও বন্ধনের উন্নয়ন ও প্রগতশীল পরিবর্তন খুব একটা হয়নি। তাই যৌতুকের কুপ্রথা এখনো আমাদের মধ্যে বিদ্যমান। যৌতুকপ্রথা নিষিদ্ধ করে দেশে ১৯৮০ সালে আইন তৈরি হলেও সমাজে নেই এর সঠিক প্রয়োগ। শুধু সরকার নয়, জনগণকেও ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। এই ব্যাধি ভাইরাসের চেয়ে ভয়ংকর। কেননা, এটি সমাজের শিক্ষিত, অশিক্ষিত, উচ্চ শ্রেণি ও নিম্ন শ্রেণি সকল স্তরেই বিদ্যমান। সম্প্রতি যৌতুককে কেন্দ্র করে ঘটে যাওয়া কুড়িগ্রামের নির্মম ঘটনা তারই প্রমাণ। সেখানে যৌতুকের গহনা নিয়ে তর্ক-বিতর্ক এক সময় সংঘর্ষে রূপ নেয়। এর ফলে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। তাই, এই অভিশাপ হতে প্রতিকারের উপায় আমাদের অবশ্যই খুঁজতে হবে। যৌতুকের কুফল থেকে নিজেদের রক্ষার জন্য আমাদের সামাজিক শিক্ষা, সচেতনতা এবং আইনের সঠিক নজরদারির বিকল্প নেই। তাই আসুন, আমরা ছাত্রসমাজ হাতে হাত রেখে এই সামাজিক সঙ্কটের বিরুদ্ধে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করি।

মোহাম্মদ আল-আমিন
শিক্ষার্থী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন