Inqilab Logo

সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ১৪ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

রোগীর বিছানায় নিশ্চিন্তে ঘুমোচ্ছে পথকুকুর! ভাইরাল মধ্যপ্রদেশের স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিডিও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ৫:৩৩ পিএম

সপ্তাহ খানেক আগে ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের একটি জেলা হাসপাতালের দৃশ্য দেখে চমকে গিয়েছিল গোটা দেশ। দেখা গিয়েছিল চিকিৎসাধীন রোগীর পাশে বিছানায় শুয়ে পথকুকুর। এই ঘটনায় তুমুল বিতর্ক হয়। এবার একই ধরনের ঘটনার সাক্ষী হল আরেক বিজেপি শাসিত রাজ্য মধ্যপ্রদেশ। ভাইরাল হয়েছে রাজ্যের শাহপুরা সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিডিও। সেখানে দেখা গিয়েছে, একাধিক বিছানায় পথকুকুর শুয়ে রয়েছে। অভিযোগ, এর আগেও একই ধরনের ঘটনা দেখা গিয়েছে। যদিও ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

শাহপুরার বাসিন্দা সিদ্ধার্থ জৈন অভিযোগ করেন, তিনি রোববার রাত ২টা নাগাদ অসুস্থ স্ত্রীকে নিয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এসেছিলেন। যদিও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে তখন কোনও চিকিৎসক বা অন্য কর্মী ছিলেন না। কিন্তু একাধিক বিছানায় কুকুর শুয়ে আছে দেখেন তিনি। এছাড়াও ওয়ার্ডে ময়লার স্তূপ পড়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। আরও জানান, দিনের বেলাতেও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসকের দেখা মেলে না। ফলে এলাকায় একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্র থাকলেও স্বাস্থ্যসেবার নামে প্রতারিত হচ্ছেন স্থানীয়রা।

বাস্তবিক ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, নোংরা ওয়ার্ডে রোগীদের দু’টি বিছানায় নিশ্চিন্তে ঘুমোচ্ছে দু’টি পথকুকুর। হাসপাতাল কর্মী বা চিকিৎসকের দেখা মেলেনি। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিডিও ভাইরাল হতেই হুলস্থূল পড়ে যায়। জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান স্বাস্থ্যকর্তা ডাঃ সঞ্জয় মিশ্রা ব্লক মেডিক্যাল অফিসারের কাছে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাবদিহি করতে বলেছেন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে উপযুক্ত শাস্তি দেয়া হবে, জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ক’দিন আগেই একই ধরনের ঘটনাটি ঘটে উত্তরপ্রদেশের আজমগড়ের মান্দালিয়া জেলা হাসপাতালে। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, হাসপাতালের ঘরে শুয়ে আছেন চিকিৎসাধীন রোগীরা। সেই ঘরেই ফাঁকা বিছানায় শুয়ে একটি পথকুকুর। আর কুকুরের পাশের বিছানাতে দিব্যি চলছে অন্য রোগীর চিকিৎসা। ভিডিও ভাইরাল হতে রোগীর পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ আনেন। এর আগেও এই হাসপাতালে কুকুরকে মৃত রোগীর দেহাংশ মুখে নিয়ে ঘুরতে দেখা গিয়েছিল। সূত্র: টাইমস নাউ।

 



 

Show all comments
  • Harun ৭ ডিসেম্বর, ২০২২, ৭:৫২ এএম says : 0
    এটা সম্ভবত হিন্দু আব্বাজান। তাদের গরু মা আছে
    Total Reply(0) Reply
  • Harun ৭ ডিসেম্বর, ২০২২, ৭:৫২ এএম says : 0
    এটা সম্ভবত হিন্দু আব্বাজান। তাদের গরু মা আছে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন