Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ

চাহিদা মতো টাকা না দেয়ার জের

| প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : চাহিদা মতো টাকা না পেয়ে মোস্তফা নামে এক ব্যক্তিকে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে মাদক মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে কুমিল্লা জেলার তিতাস থানার একজন সাব ইনস্পেক্টরের (এসআই) বিরুদ্ধে। উক্ত এসআইয়ের নাম মো: আল আমিন ভূইয়া। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগীর বাবা বৃদ্ধ সিরাজ মিয়া গত ১৫ ডিসেম্বর পুলিশ সদর দফতরের সিকিউরিটি সেলে আবেদন করেছেন।
সিরাজ মিয়া আবেদনে উল্লেখ করেন, গত ৬ ডিসেম্বর দিবাগত মধ্য রাতে ১ম সাতানি গ্রামের বাড়ি থেকে তার ছেলে মোস্তফাকে তুলে নিয়ে যায় তিতাস থানার এসআই আল আমিন। ছেলেকে  মুক্ত করতে পরদিন সকালে থানায় যান তিনি। এ সময় উক্ত এসআই আটক মোস্তফাকে মাদক বিক্রেতা উল্লেখ করে ২ লাখ টাকা দাবি করে। টাকা না পেলে মাদক মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়। বাধ্য হয়ে তিনি ৮ হাজার টাকা দেন ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে। এর পর মোস্তফাকে ছেড়ে দেয়ার কথা বলে সাদা কাগজে সিরাজ মিয়ার স্বাক্ষর নেন। কিছু সময় পরে মোস্তফাকে ছেড়ে দেয়ার কথা বলায় বৃদ্ধ সিরাজ মিয়া নামাজ পড়তে যান। নামাজ শেষে ছেলেকে নিতে তিনি ফের থানায় যান। এ সময় এসআই আল আমিন জানান, এত অল্প টাকায় মোস্তফার মুক্তি মিলবে না। তিনি ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসেন। এরপর জব্দ তালিকায় গাবতলি নামক স্থান থেকে মোস্তফাকে ৯৭ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে মাদক মামলায় জেলে পাঠায়।
সিরাজ মিয়া উক্ত ঘটনা এবং অভিযুক্ত এসআই আল আমিনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায় বিচার দাবি করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিরুদ্ধে


আরও
আরও পড়ুন