Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।
শিরোনাম

সাখাওয়াতকে মিষ্টি খাওয়ালেন আইভী

| প্রকাশের সময় : ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার : পূর্ব প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বিএনপির পরাজিত মেয়র প্রার্থী সাখাওয়াতের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে গেলেন পুনরায় নির্বাচিত মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। এসময় তিনি নিজ হাতেই সাখাওয়াতকে মিষ্টিমুখ করিয়ে দেন। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার সময় নগরীর খানপুর এলাকায় সাখাওয়াতের বাসভবনে যান আইভী। সেখানে প্রায় ঘণ্টাখানেক অবস্থান করেন বিজয়ী এই মেয়র। তারা নানা সমস্যা নিয়ে বেশ হাসি-খুশিভাবেই খোলামেলা আলোচনা করেন।
সাখাওয়াতের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে আইভী, সন্ত্রাস নির্মূলে চাইলেন সহযোগিতা নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের আগে আইভী বলেছিলেন, ‘আমি জয়ী অথবা পরাজিত যা-ই হই সর্বপ্রথম সাখাওয়াত সাহেবের বাসায় মিষ্টি নিয়ে যাবো। একসাথে আমরা মিষ্টিমুখ করবো।’ নির্বাচিত মেয়রের সাথে পরাজিত মেয়র প্রার্থী সাখাওয়াত নারায়ণগঞ্জের নানা সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। সমস্যা সমাধানে তারা একে অপরকে সহযোগিতা করারও আশ্বাস প্রদান করেন।বিএনপির পরাজিত প্রার্থী আইভীকে পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের নাম শুনলে মানুষ প্রথমেই মাদক-সন্ত্রাসের অঞ্চল বলে চিহ্নিত করতো আশা করি আপনি এই সমস্যা সমাধান করবেন।’
অপরদিকে আইভীও সাখাওয়াতকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, ‘আপনি পাশে থাকলে নারায়ণগঞ্জ থেকে সন্ত্রাস-মাদক নির্মূল করতে আরও বেশী সহজ হবে। আশা করি আপনি আমার পাশে থেকে সহযোগিতা করবেন।’
সাখাওয়াতের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে আইভী, সন্ত্রাস নির্মূলে চাইলেন সহযোগিতা। প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়ে ‘নৌকা’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। আর বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান।
দীর্ঘ ১৭ দিন টানা প্রচার-প্রচারণার পর বৃহস্পতিবার বহুল আলোচিত এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হয় সকাল ৮ টা থেকে একটানা বিকেল ৪ টা পর্যন্ত। এতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আইভীর কাছে ৭৯ হাজার ৫শ’ ৬৭ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত।
সহযোগিতার আশ্বাস সাখাওয়াতের
আইভীকে সকল প্রকার সহযোগিতার আশ্বাস দিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির পরাজিত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান। সেই সাথে তিনি আগামী ৫ বছর আইভীর সফলতা কামনা করে দিয়েছেন কিছু পরামর্শও।
গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার সময় নগরীর খানপুর এলাকায় সাখাওয়াতের বাসভবনে মিষ্টি নিয়ে গেলে সহযোগিতার ওই আশ্বাস দেন সাখাওয়াত।
এ সময় আইভীর সফলতা কামনা করে সহযোগিতার আশ্বাস দিলেন সাখাওয়াত। এদিকে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর সাংবাদিকদের কাছে সাখাওয়াত সূক্ষ্ম কারচুপির অভিযোগ তুলেছেন। তবে, এদিন তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেছেন, ‘ভোট গণনায় সূক্ষ্ম কারচুপি হলেও এখন ফলাফল ঘোষণায় আমি পরাজিত। পরাজয় আমাকে স্বীকার করতেই হবে।’
এছাড়া তিনি বলেন, ‘আমার উদ্দেশ্য ছিলো নারায়ণগঞ্জ নগরীর উন্নয়ন। আশা করি বর্তমান মেয়র তার ৫ বছর মেয়াদে নগরীর উন্নয়ন করবেন। আমি তার সফলতা কামনা করি। তবে, তিনি (আইভী) চাইলে আমি তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করবো।’
এছাড়াও আইভীকে পরামর্শ দিয়ে সাখাওয়াত বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের নাম শুনলে মানুষ প্রথমেই মাদক-সন্ত্রাসের অঞ্চল বলে চিহ্নিত করতো আশা করি আপনি এই সমস্যা সমাধান করবেন।
প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়ে ‘নৌকা’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। আর বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান।
দীর্ঘ ১৭ দিন টানা প্রচার-প্রচারণার পর বৃহস্পতিবার বহুল আলোচিত এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হয় সকাল ৮ টা থেকে একটানা বিকেল ৪ টা পর্যন্ত। এতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আইভীর কাছে পরাজিত হন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নাসিক নির্বাচন

২৩ ডিসেম্বর, ২০১৬
২২ ডিসেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ