Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

পুলিশের হঠাৎ সংকেতে দ্রুতগামী মোটরসাইকেল থামাতে গিয়ে দুই আরোহী নিহত

প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

পটিয়া উপজেলা সংবাদদাতা : চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে পটিয়া উপজেলার গিরি চৌধুরী বাজার এলাকায় পুলিশের হঠাৎ সিগন্যাল পেয়ে থামতে গিয়ে বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আজাদ (২২) বান্দরবান জেলার বাড়ৈখারা গ্রামের অলি আহমদের ছেলে ও শাওন (২৪) একই গ্রামের আবুল কালাম ম্যানেজারের ছেলে। আজাদ ঘটনাস্থলে নিহত হন। মুমূর্ষু অবস্থায় শাওনকে প্রথমে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তাকে কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে চমেক হাসপাতালে শাওন মারা যায়। আজাদ চুনতী হাকিমিয়া কামিল মাদ্রাসার আলিম ১ম বর্ষের ছাত্র ও শাওন বান্দরবান সরকারী কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সকাল দশটা থেকে মহাসড়কের পটিয়া গিরি চৌধুরী বাজার এলাকায় যানবাহন তল্লাশির নামে পটিয়া থানার এসআই আরিফুর রহমান সরকারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে চাঁদাবাজি চালিয়ে আসছিল। বিকেল ৪টায় বান্দরবান থেকে চট্টগ্রামগামী মোটরসাইকেল আরোহী দু’জন ঘটনাস্থলে এলে ওই এসআই দ্রুতগামী চলন্ত মোটরসাইকেল থামানোর জন্য হুইসেল দেয়। এসময় মোটরসাইকেল চালক আজাদ তাৎক্ষণিক চলন্ত গাড়ি থামাতে গেলে বিপরীত থেকে আসা কক্সবাজারগামী সৌদিয়া চেয়ারকোচ (চট্টমেট্রো-ব-১১-০১৪৭) মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়।
উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে পটিয়া থানার উক্ত এসআই আরিফুর রহমান সরকার গাড়ী তল্লাশীর নামে মহাসড়কে দাড়িয়ে চাদাঁবাজি চালিয়ে আসছে বলে লোকজনের অভিযোগ। বিগত ২০১৫ সালে জুন মাসে উপজেলার খরনা রাস্তার মাথায় চাদাঁবাজি করতে গিয়ে ক্ষিপ্ত লোকজন উক্ত আরিফসহ তার এক সোর্সকে পিটুনি দেয়। পরে পটিয়া এএসপি সার্কেল শামীম হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে এবং সোর্সকে জেল হাজতে পাঠায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ