Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মনোনয়ন পাওয়া না পাওয়ার হিসাব ও গণসংযোগে ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা কমলনগরের ৯ ইউনিয়ন

প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কাজী মুহাম্মদ ইউনুছ, কমলনগর (লক্ষ্মীপুর)  থেকে : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন ২০১৬ উপলক্ষে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে বিভিন্ন ইউনিয়নে সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি মেম্বার ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে প্রার্থীদের ব্যাপক গণসংযোগ শুরু হয়েছে। দিন রাত প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছে। উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রথম ধাপে চারটি ইউনিয়নে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই এগিয়ে আসছে ততই প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ, কুশল বিনিময়, মতবিনিময় আর মসজিদ-মন্দিরে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানে অনুদানসহ উপস্থিতি নিশ্চিত করছে প্রার্থীরা। চিরাচরিত নিয়মে নির্বাচনী আমেজ দেখা গেলেও এবারের স্থানীয় পর্যায়ের এ প্রতিনিধি নির্বাচনকে ঘিরে যোগ হয়েছে বাড়তি দলীয় মনোনয়ন পাওয়া না পাওয়ার হিসাব। এবারে নির্বাচনে তৃণমূল পর্যায়ে রাজনৈতিক দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের আয়োজন হওয়ায় দেশের দুটি বৃহৎ রাজনৈতিক দল তাদের তৃণমূলে প্রার্থী বাছাই ও সাংগঠনিক শক্তি প্রদর্শনের পরীক্ষায় যখন অবতীর্ণ তখন দেশের ক্ষুদ্র রাজনৈতিক দলের রাজনৈতিক অস্তিত্ব সঙ্কট ঘুচাতে এসব দলগুলোও প্রার্থী দানের জন্য প্রার্থীসহ কর্মী সমর্থক অনুসন্ধানে নেমে পড়েছে। আগামী মার্চ নাগাদ অনুষ্ঠেয় ইউপি নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে চারটি ইউনিয়ন যথাক্রমে তোরাবগঞ্জ ইউনিয়ন, চর জাঙ্গালিয়া, চর ফলকন, ও পাটারীর হাট ইউনিয়ন এছাড়া বাকি আরো পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া চারটি ইউনিয়নসহ সবকটি ইউনিয়নে ইতোমধ্যে দলীয় মনোনয়ন লাভে সম্ভাব্য প্রার্থীরা বৃহৎ রাজনৈতিক দল আওয়ামী-লীগ ও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেতে স্থানীয় নেতারা উপজেলা-জেলা নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের দ্বারস্থ হওয়াসহ ক্ষেত্র বিশেষে কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের নিকট ধরনা দিচ্ছেন। বিশেষ করে আওয়ামী-লীগের সমর্থন ও মনোনয়ন লাভে যে কোন শর্ত মেনে নিয়ে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কোন কোন ক্ষেত্রে আ’লীগের মনোনয়ন লাভে স্থানীয় সাংসদকে খুশি করার উপায় খুঁজচ্ছে নেতাকর্মীরা। “কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউপি মনোনয়ন কমিটি” নামক কমিটি বানিয়ে দলীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও মহিলা মেম্বার পদে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নির্ধারিত হারে চাঁদা প্রদান পূর্বক মনোনয়ন ফরম কিনতে হচ্ছে। কেউ কেউ এ ব্যাপারে ব্যাপক মনোনয়ন বাণিজ্য হওয়ার অভিযোগ তুলেছে। অবশ্যই এ মনোনয়ন কমিটি গঠন বিষয়ে প্রদান কমিটি রামগতি-কমলনগরের সংসদ সদস্য আবদুল্লা আল মামুন সরাসরি তদারকি করছেন বলে জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা। ইউপি চেয়ারম্যান পদে আগ্রহীগণ মনোনয়ন ফরম প্রতি পঁচিশ হাজার টাকা ও সদস্য দশ হাজার টাকা প্রদান করে মনোনয়ন ফরম ক্রয় করতে হচ্ছে। এ যাবত নয়টি ইউনিয়নে প্রায় চারশতাধিক ফরম বিক্রি হওয়ার খবর পাওয়া যায়। অবশ্যই এসব মনোনয়ন বিষয়ে স্থানীয় উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রাজু জানান- দলীয় তহবিল সংগঠন, দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী ঠেকাতে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের প্রাণচাঞ্চল্য রাখতে নেতাকর্মীদের মাঝে ভাঙ্গণ ঠেকাতে ঐক্যবদ্ধ রাখা ও সংগঠনের মধ্যে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এমন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। অপরদিকে বিএনপির ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা সাবেক সংসদ সদস্য এবিএম আশরাফ উদ্দিন নিজান, স্থানীয় উপজেলা বিএনপি ও জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দের নিকট ধরনা দিচ্ছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক জামাল উদ্দিন তালুকদার জানান- ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় নিদের্শনা পেলে দলের মধ্যে ত্যাগী নির্যাতিত নিপীড়িত রাজপথে সোচ্চার আন্দোলন সংগ্রামে পরীক্ষিত ও তৃণমূল পর্যায়ে সমর্থনপুষ্ট নেতাদের মনোয়ন দেয়া হবে যাতে করে আগামীর অগ্নিপরীক্ষায় বিজয় ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হবে। উল্লেখ্য কমলনগর উপজেলার নয়টি ইউনিয়নে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন ১নং চর কালকিনি ইউনিয়নে জেলা বিএনপির সদস্য বর্তমান চেয়ারম্যান মাস্টার ছাইফুল্লাহ, ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি মেহেদি হাসান লিটন মেম্বার, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মুনছুর আহমদ, ২নং সাহেবের হাট ইউনিয়নে সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদানকারী ও সাবেক বিএনপি নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান প্রভাষক আবুল খায়ের, আ’লীগ নেতা দিদার হোসেন, ছিদ্দিক মাতাব্বর, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু তাহের, ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আবুল কাশেম মেম্বার, বিএনপি নেতা লোকমান, উপজেলা জামায়াতের আমীর ডা. নূর উদ্দিন ৩নং চর লরেঞ্চ ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির সাবেক ১নং যুগ্ম আহ্বায়ক বর্তমান চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খোকন, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি মাস্টার নুরুল আমিন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্যাহ হিরণ, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, আ’লীগ উপজেলা অর্থ সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. বাবুল মিয়া, বিকল্প ধারা নেতা মাস্টার আবুল কাশেম, বিএনপি নেতা ডা. মামুনুর রশিদ, মীর শিব্বির আহমদ, ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ইছমাইল মেম্বার, জামায়াত নেতা শিহাব উদ্দিন প্রমুখ। ৪নং চর মার্টিন ইউনিয়নে ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান ডা. আলী আহমদ, ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ইউছুফ আলী মিয়া, সদ্য আ’লীগে যোগদানকারী ওমর ফারুক প্রমুখ। ৫নং চর ফলকন ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সদ্য আ’লীগে যোগদানকারী এএনএম আশরাফ, উপজেলা বিএনপি সহ-সভাপতি আব্দুল অদুদ হাওলাদার, ছাত্রদল উপজেলা সিনিয়র সহ সভাপতি বেলায়েত হোসেন, উপজেলা আ’লীগ নেতা মোশারেফ হোসেন বাঘা, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ফজলুল হক সবুজ প্রমুখ। ৬নং পাটারীর হাট ইউনিয়নে উপজেলা আ’লীগ নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাস্টার রাশেদ বিল্লাহ আলমগীর, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক প্রফেসর জামাল উদ্দিন তালুকদার প্রমুখ। ৭নং চর জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নে ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি ফরহাদ হোসেন সাবেক উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক আবদুর রহমান পাটওয়ারী, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নিজাম উদ্দিন আ’লীগ নেতা মো. আকতার হোসেন মিলন ও বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল বাছেত হেলাল ৮নং চর কাদিরা ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হারুন হাওলাদার, সাবেক চেয়ারম্যান হোসেন হাওলাদার, আ’লীগ নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন রাজন, আ’লীগ ইউনিয়ন সভাপতি নুরুল ইসলাম, আ’লীগ নেতা ফজলুল হক মানিক হাওলাদার, ওমর ফারুক ও জাসদ নেতা ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ভিপি নুর নবী চৌধুরী। ৯নং তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নে আ’লীগ নেতা ও বর্তমান তরুণ চেয়ারম্যান ফয়সল আহমেদ রতন, বিএনপি নেতা ছাব্বির আহম্মদ, মোসলেহ উদ্দিন, গোলাম কাদের ও সদ্য আ’লীগে যোগদানকারী সুলতান আহম্মদ টিপু প্রমুখ। প্রকাশ থাকে যে, উপরোক্ত সম্ভাব্য প্রার্থীগণ স্ব স্ব রাজনৈতিক দল থেকে চূড়ান্ত মনোয়ন লাভে তৃণমূল থেকে হাই কমান্ড পর্যন্ত তদবির লবিং করে চলেছেন। শেষ পর্যন্ত দলীয় প্রতীক যিনি বরাদ্দ পাবেন তিনি আসন্ন নির্বাচনে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হবেন। অপরদিকে সাধারণ ভোটারদের অভিমত নির্বাচন সুষ্ঠ আদৌ অনুষ্ঠিত হবে কিনা? দীর্ঘদিন থেকে ভোটাধিকার প্রয়োগ থেকে বঞ্চিত ভোটাররা স্থানীয় এ নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য অধীর আগ্রহে উন্মুখ হয়ে আছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মনোনয়ন পাওয়া না পাওয়ার হিসাব ও গণসংযোগে ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা কমলনগরের ৯ ইউনিয়ন
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ