Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

তাবলীগ জামাতকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচান

দেশের ৪০ জন শীর্ষ আলেমের বিবৃতি

| প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : দু-একজন ব্যক্তির হঠকারিতা ও ভ্রান্ত মতাদর্শের ফলে বিশ্ব তাবলীগ এখন হুমকির মুখে। দিল্লির সাআদ সাহেবের বাড়াবাড়ি ও ভুল মতবাদ বিশ্বব্যাপী তাবলীগকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। আগামী ইজতেমায় তার উপস্থিতি ও বয়ান দেশের তাবলীগ ও আলেমসমাজকে মুখোমুখি দাঁড় করানোর এক ক্ষতিকর চ্যালেঞ্জ ছাড়া আর কিছু নয়। বিশ্ব তাবলীগের মুরুব্বিদের সাথে সমঝোতা না করে এবং দেওবন্দের মুরুব্বিদের অমান্য করে সাআদ সাহেব যে ভুল করছেন তার ফলে তাবলীগের কাজ নষ্ট হলে তিনি ও বাংলাদেশে তার অন্ধ সমর্থক কাকরাইলের দুই মুরুব্বি ওয়াসিফুল ইসলাম ও নাসিম সাহেবই দায়ী থাকবেন। তাবলীগ জামাতকে তার সঠিক পথের ওপর টিকিয়ে রাখার জন্য উলামায়ে দেওবন্দ যে কোনো পদক্ষেপ নেবেন বলে জানান। গতকাল আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে দেশের শীর্ষ ৪০ জন আলেম স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়।
শীর্ষ আলেমগণ আরো বলেন, আলেম সমাজ ও তাবলীগ জামাতের মধ্যে দূরত্ব ও বিরোধ সৃষ্টির ষড়যন্ত্র সফল হবে না। সারা বিশ্বের তাবলীগ সংশ্লিষ্ট মুরুব্বি, আরব আফ্রিকাসহ ইউরোপ আমেরিকার সকল মারকাজ শূরা ভিত্তিতে তাবলীগ পরিচালনার পক্ষে থাকলেও ব্যক্তিগতভাবে দিল্লির সাআদ সাহেব একক সিদ্ধান্তে তাবলীগ জামাত চালাচ্ছেন। তার নিজস্ব চিন্তাধারা ও ঐতিহ্যবিরোধী নতুন নীতিমালার ফলে ভারতের তাবলিগী কাজও দ্বিধা-বিভক্ত হয়ে পড়েছে। সাআদ সাহেবের ভ্রান্ত মতাদর্শ এখন সারাবিশ্বে প্রচারিত হওয়ায় দিল্লি নিজামুদ্দিনের মুরুব্বিরা তাকে ত্যাগ করে মারকাজ থেকে চলে গেছেন। মাওলানা আহমদ লাট, মাওলানা ইব্রাহীম দেওলা প্রমুখ দিল্লি ছেড়ে নিজ নিজ এলাকায় চলে গিয়ে প্রকৃত উসুল মোতাবেক দাওয়াতের কাজ করছেন। সাআদ সাহেবকে বিশ্বের সকল দায়িত্বশীলরা সংশোধন ও নীতির ওপর ফিরে আসার আল্টিমেটাম দিলেও তিনি কারো কথাই মানছেন না। তিনি দারুল উলুম দেওবন্দসহ ভারত, পাকিস্তান, আরব, আফ্রিকা ও বাংলাদেশের সকল আলেমের সম্মিলিত প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করেছেন। ইতোমধ্যে দেওবন্দ থেকে তার ভ্রান্ত মতাদর্শ ও ভুল কর্মপদ্ধতির ওপর বিশদ আলোচনাসহ ফতোয়া দেয়া হয়েছে। দেওবন্দের মুহতামিম আল্লামা নোমানী, মাওলানা আরশাদ মাদানী, মাওলানা সাঈদ আহমদ পালনপুরী প্রমুখ আলেমদের প্রতি সাআদ সাহেবের অবজ্ঞা বিশ্ব মুসলিমের মনে চরম আঘাত হেনেছে। গত হজে বিশ্ব তাবলীগের মুরুব্বিরা সাআদ সাহেবের হঠকারিতার জন্যই তাকে সাথে রাখেননি। বাংলাদেশের সকল আলেম আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে সাআদ সাহেবকে সংশোধনের পূর্ণ চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন। দেশের ৪০-৪৫ জন বড় আলেম কাকরাইল ও টঙ্গীর জোড়ে গিয়েও তার সংশোধন কামনা করে বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন। সর্বশেষ দেশের উলামায়ে কেরাম আগামী ইজতেমায় সাআদ সাহেবকে না আসার অনুরোধ জানিয়ে পত্র দিলেও বাংলাদেশে তাবলীগের দু-একজন লোক তাকে আনার চেষ্টা করছেন এবং আলেম উলামা ও তাবলীগের সকল মুরুব্বির এ দাবিকে অগ্রাহ্য করে সাআদ সাহেবের হঠকারিতাকে এস্টাবলিস্ট করার চ্যালেঞ্জ দিয়ে মাঠে নেমেছেন। বিশেষ করে কাকরাইলের আসিফুল ইসলাম ও নাসিম সাহেব বাংলাদেশের আলেম সমাজের সাথে তাবলীগ জামাতের  দূরত্ব সৃষ্টি ও মসজিদে মসজিদে পাড়ায়-মহল্লায় বিরোধ ও আলেম বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন। কাকরাইলের শূরা ও আলেমদের সাথেও তারা রীতিমতো দুর্ব্যবহার করছেন। এ পর্যায়ে যদি তারা নিজেদের জেদ বহাল রাখার জন্য সাআদ সাহেবকে টঙ্গীতে উপস্থিত করেন তাহলে দেশের আলেম সমাজ তা মেনে নেবে না। এর ফলে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়া অসম্ভব নয়। শুধু তাই নয়, পরবর্তীতে বাংলাদেশে তাবলীগ জামাতের সাথে আলেম সমাজের সুসম্পর্কেরও মারাত্মক ফাটল ধরবে। তখন গোটা আলেম সমাজ ও বিশ্ব তাবলীগ নিজেরা অতীতের মতোই ঐক্যবন্ধ থাকবে, কেবল হঠকারী শক্তিটিই প্রত্যাখ্যাত হবে। বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন মাওলানা আবদুল হালীম, পীর সাহেব মধুপুর, আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা আবদুল কুদ্দুস, আল্লামা মাহমুদুল হাসান, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, মুফতি মোহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল মালেক, মাওলানা  উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা মাহফুজুল হক, মুফতি মিজানুর রহমান, মাওলানা মুফতি রুহুল আমীনসহ দেশের শীর্ষ ৪০ আলেম।



 

Show all comments
  • সা'দ ৪ জানুয়ারি, ২০১৭, ১:১৪ পিএম says : 3
    আল্লাহ তায়াল সমস্ত ফেৎনা থেকে এই মোবারক জামাতকে হেফাযত করেন। ওলামা ইকরামের সম্মিলিত পদক্ষেপ এর মাধ্যমে এই সংকটের পরিত্রাণ কামনা করছি। আর তাছাড়া আমাদের কারোর খুশি হওয়া কাম্য নয়। সবাই বেশী বেশী দুয়া করি আল্লাহর কাছে।
    Total Reply(0) Reply
  • ইনাম আহমাদ ৫ জানুয়ারি, ২০১৭, ৩:০১ এএম says : 1
    উলামা হযরতগণ তাবলীগের এই কাজের অভিভাবক। সংকট সমাধানে উনাদের মোবারক হস্তক্ষেপ অতীব জরুরী।
    Total Reply(1) Reply
    • ইউসুফ ৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ১০:১৭ এএম says : 3
      ঠিক
  • tanvir hosain ৮ জানুয়ারি, ২০১৭, ১১:৪০ এএম says : 1
    right
    Total Reply(0) Reply
  • MD. ANISUR RAHMAN ৫ জানুয়ারি, ২০১৭, ১১:৫০ এএম says : 2
    আল্লাহ এই মোবারক উদ্যোগ কে কবুল করুন
    Total Reply(0) Reply
  • শরফ ৪ জানুয়ারি, ২০১৭, ১০:১০ এএম says : 4
    আলেম অলামাদের দ্বীন কে ,দ্বীনের মেহেনত কে বাচানোর মোবারক পদক্ষেপ কে শুকরিয়া জানাই ।
    Total Reply(0) Reply
  • হাফিজ ৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ৮:৩৭ এএম says : 2
    আল্লাহ হেফাজত করুন
    Total Reply(0) Reply
  • nazul islam ৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ৯:০৯ এএম says : 0
    সমস্ত ওলামায়েকেরামদের এই বিষয়ে এক হওয়া দরকার এবং সাথে সাথে বেশি বেশি তওবা এস্তেকফার হওয়া দরকার সবার। আল্লাহ পাক এই মুবারাক মেহনতকে সমস্ত খারাবী থেকে হেফাজত করুক ও সবাইকে জোর মিল মহব্বতের সাথে মওত পয্ন্ত এই কাজ করার তৌফিক দান করুক। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Alam ৪ জানুয়ারি, ২০১৭, ৬:৪১ পিএম says : 0
    ...........যদি এইরকম হয় তা আল্লাহ হেফাজত করবেন
    Total Reply(0) Reply
  • ৮ জানুয়ারি, ২০১৭, ৯:৩৩ পিএম says : 0
    আয় আল্লাহ আপনি সমস্ত উম্মতে মুহাম্মদীকে এক আর নেক করে দিন।
    Total Reply(0) Reply
  • মিজানুর রহমান ৮ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:৩২ এএম says : 0
    এই মেহনত কোন দিন নস্ট হবেনা ইনশাআল্লাহ, আমরা সবাই জানি আমরা সাদ সাহেব কে খুশির জন্য তাগলিগ করিনা, কোন আলেমদের তাবলিগ করিনা, আমরা শুধু আল্লাহর হুকুম নবিজীর(সঃ) তরিকায় জীবনপথ চলার জন্যে এই মেহনত করি, চিন্তার কারন মনে করিনা এই মেহনত আল্লাহ পাক দুনিয়াময় কভুল করছেন তিনিই হেফাজত করবেন, يا مقلب القلوب ثبّت قلبي علا دينك
    Total Reply(0) Reply
  • নছির ৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ৭:২২ এএম says : 0
    মিথথা চিরদিন. ই মিথথা মিথথা বিলুপ্ত হবেই
    Total Reply(0) Reply
  • যুবায়ের ৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ১০:৪৫ এএম says : 3
    তাবলীগ হক জামাত এতে সন্দেহ নেই ৷ তবে দেওবন্দের মতামত ওপরামর্শ মেনে না নিলে হকের উপর টিকে থাকতে পারবেনা ৷ আল্লাহ মকবুল এ জামাতটিকে হেফাজত করুন ৷ আমীন ৷
    Total Reply(0) Reply
  • mizanurrahman ৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ১:৩৪ পিএম says : 1
    আল্লাহ তায়াল সমস্ত ফেৎনা থেকে এই মোবারক জামাতকে হেফাযত করেন। ওলামা ইকরামের সম্মিলিত পদক্ষেপ এর মাধ্যমে এই সংকটের পরিত্রাণ কামনা করছি। আর তাছাড়া আমাদের কারোর খুশি হওয়া কাম্য নয়। সবাই বেশী বেশী দুয়া করি আল্লাহর কাছে। - তাবলীগ হক জামাত এতে সন্দেহ নেই ৷ তবে দেওবন্দের মতামত ওপরামর্শ মেনে না নিলে হকের উপর টিকে থাকতে পারবেনা ৷ আল্লাহ মকবুল এ জামাতটিকে হেফাজত করুন ৷ আমীন ৷ -
    Total Reply(0) Reply
  • আবু বকর ১০ জানুয়ারি, ২০১৭, ৪:০৪ পিএম says : 0
    আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • ১১ নভেম্বর, ২০১৭, ১:২৩ পিএম says : 0
    আজ তাবলীগ জামাত হকের উপর প্রতিষ্ঠিত্ | সৃষ্টির প্রথম থেকে যুগে যুগে যারাই এ কাজের বিরোধিতা করেছে মহান আল্লাহ তাদেরকে হালাক করে দিয়েছেন | ইনশাআল্লা আজ ও একাজকে আল্লাপাকই হেফাজত করবেন এবং চক্রান্তকারিদেরকে হালাক করবেন |
    Total Reply(0) Reply
  • ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ১০:১৪ পিএম says : 0
    সা,য়াদ সাহেবের মুল বক্তব্য কি ?
    Total Reply(0) Reply
  • আরিফ ২৮ জানুয়ারি, ২০১৮, ৭:২৫ এএম says : 0
    আল্লাহ সবাইকে দ্বিনী বুজ দান করেন
    Total Reply(0) Reply
  • zainul abedin ৬ জুন, ২০১৮, ৮:১০ পিএম says : 0
    hok kota bolla sovar karap lagva.ai kaj sompor k sai bojtha parva,jara tavlig a somoy lageyacha?
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ আশরাফুল ইসলাম ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ২:৫৩ পিএম says : 0
    সমস্ত মানুষ কে আললাহ তায়ালা হকের উপর চলার তাওফিক দান করুন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ