Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

দীর্ঘসূত্রতায় নির্মাণ ব্যয় বেড়েছে ১০৪ কোটি টাকা খুলনার আধুনিক কারাগার নির্মাণ কাজে মন্থরগতি

প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

এ.টি.এম. রফিক, খুলনা থেকে : ১৪৪ কোটি টাকা ব্যয়ে খুলনায় একটি আধুনিক কারাগার নির্মাণে প্রকল্প গ্রহণ করা হয় ২০০৮ সালে। দুই বছরের মধ্যে এই কারাগার নির্মাণ সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত কাজ হয়েছে মাত্র ১০ শতাংশ। আর মূল ভবন নির্মাণের প্রস্তাবিত পুনর্নির্ধারণ (আরডিপিপি) প্রকল্প ফাইল দীর্ঘ প্রায় এক বছরেও অনুমোদন পায়নি। ফলে কবে নাগাদ কারাগারের মূল স্থাপনা নির্মাণ কাজ শুরু করা যাবে, তার সঠিক উত্তর নেই সরকারের গণপূর্ত বিভাগে। এদিকে দীর্ঘসূত্রতার কারণে খুলনার আধুনিক কারাগার নির্মাণে ব্যয় বেড়ে গেছে প্রায় দ্বিগুণ। এ পর্যায়ে ১৪৪ কোটি থেকে ব্যয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪৮ কোটি টাকায়। এ অবস্থায় অতিরিক্ত অর্থের যোগান মেটাতে নতুন করে ব্যয় পুনর্নির্ধারণ (আরডিপিপি) প্রকল্প প্রণয়ন করা হয়েছে। যা’ এখনও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের অপেক্ষার প্রহর গুণছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিভাগীয় শহর খুলনার একমাত্র কারাগারটি শতাব্দী প্রাচীন। এই কারাগারে ধারণ ক্ষমতার ২/৩ গুণেরও বেশি বন্দি অবস্থান করছেন। আধুনিক কোন সুযোগ-সুবিধা না থাকায় এখানকার বন্দিদের কষ্টের যেন শেষ নেই। শুধু কারাবন্দিই নয়, এখানকার কারারক্ষিরাও কষ্টের মধ্যে রয়েছেন। পরিত্যক্ত ভবনে জীবনহানির আশংকার মধ্যে কাজ করতে হচ্ছে তাদের।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শতাব্দী প্রাচীন কারাগারের জায়গার স্বল্পতা ও অতিরিক্ত বন্দির কথা ভেবে ২০০৭ সালে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার খুলনায় একটি আধুনিক কারাগার নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। আমলাতান্ত্রিক জটের কারণে সেই প্রকল্প আর বেশি দূর এগোতে পারেনি। ২০০৮ সালের ২০ জুলাই খুলনায় ফের কারাগার নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। নগরীর উপকণ্ঠ ডুমুরিয়া উপজেলার চক মথুরাবাদের আসানখালি মৌজার ৩০ একর জমিতে নতুন এ কারাগার নির্মাণ প্রকল্পের প্রাথমিক ব্যয় নির্ধারণ করা হয় প্রায় ১৪৪ কোটি টাকা।
এদিকে, গণপূর্ত বিভাগ সূত্র জানায়, সময় মতো অর্থ ছাড় না পাওয়ায় প্রকল্প গ্রহণের দীর্ঘ ৭ বছর অতিবাহিত হলেও মূল কারাগার নির্মাণের কাজ এখনও শুরু হয়নি। এই দীর্ঘ সময়ের মধ্যে প্রকল্পের জন্য জমি অধিগ্রহণ ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণ এবং মাটি ভরাট কাজ শুরু হয়েছে। স¤প্রতি প্রায় ২৪ কোটি টাকা ব্যয়ে দু’টি সেমি ব্যারাক নির্মাণ কাজের দরপত্র দেয়া হয়েছে। কারাগারের মূল ভবন নির্মাণের কাজ এখনো শুরুই হয়নি।
গণপূর্ত বিভাগ খুলনা-২ এর উপ-নির্বাহী প্রকৌশলী অমিত কুমার বিশ্বাস বলেন, বিগত ২০০৮ অর্থ বছরে প্রাক্কলিত (স্টিমেট) অনুসারে প্রকল্প ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছিল। এরপর সরকারীভাবে দু’দফায় নতুন প্রাক্কলিত ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে। দীর্ঘ এই ৭ বছরে নির্মাণ সামগ্রীর মূল্য বেড়েছে প্রায় শতকরা ৪৫ ভাগ। কিন্তু কারাগার নির্মাণ প্রকল্প ব্যয় পুনরায় নির্ধারণ করা যায়নি। ফলে ৭বছর পূর্বের স্টিমেটে অনুসারে কারাগার নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কারণে ২০১৪ সালের স্টিমেট অনুসারে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রায় ২৪৮ কোটি টাকার প্রয়োজন হবে। এ অবস্থায় প্রকৌশল বিভাগ থেকে খুলনা কারাগার নির্মাণে ২৪৮ কোটি টাকা পুনর্ব্যয় নির্ধারণ করে (আরডিপিপি) প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেয়া হয়। উক্ত প্রকল্পে ভবনের আকার বৃদ্ধিসহ আকৃতির কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে।
উপ-নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, স¤প্রতি আরডিপিপি প্রকল্পটি প্রি-একনেকে অনুমোদন হয়েছে। এখন একনেক হলেই মূল ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করা যাবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আধুনিক এই কারাগারটি নির্মাণ হবে দুই হাজার বন্দির ধারণক্ষমতা বিশিষ্ট সিলেটের কেন্দ্রীয় কারাগারের আদলে। নতুন কারাগারে বন্দিদের জন্য ১০০ বেডের একটি হাসপাতাল থাকবে। এছাড়া মহিলাদের জন্য ২০ বেডের একটি ও বন্দি টিবি রোগীদের জন্য ২৫ বেডের আলাদা আরেকটি টিবি হাসপাতাল থাকবে। কারাগারটিতে বন্দিদের লেখা-পড়ার জন্য স্কুল, উন্নতমানের লাইব্রেরি, খাবারের জন্য ডাইনিং রুম, আধুনিক সেলুন ও লন্ড্রি থাকবে। কারাগারে শিশুদের জন্য থাকবে পৃথক ওয়ার্ড ও ডে-কেয়ার সেন্টার। সেখানে শিশুদের জন্য লেখাপড়া, খেলাধূলা, বিনোদন ও সংস্কৃতি চর্চার সুব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া শিশুসহ মা বন্দিদের জন্যও থাকবে আলাদা আরেকটি ওয়ার্ড। এ ওয়ার্ডটিতে সাধারণ মহিলা বন্দি থাকতে পারবে না। কারাগারে পুরুষ ও মহিলা বন্দিদের হস্তশিল্পের কাজের জন্য আলাদা আলাদা ওয়ার্কশেড, বিনোদন কেন্দ্র ও নামাজের ঘর থাকবে। পুরুষ ও মহিলা বন্দিদের সঙ্গে দেখা করতে আসা দর্শণার্থীদের জন্যও থাকবে আলাদা সাক্ষাৎকার কক্ষ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দীর্ঘসূত্রতায় নির্মাণ ব্যয় বেড়েছে ১০৪ কোটি টাকা খুলনার আধুনিক কারাগার নির্মাণ কাজে মন্থরগতি
আরও পড়ুন