Inqilab Logo

সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩ মাঘ ১৪২৮, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

২৬ মাসে সর্বোচ্চ সূচক ডিএসইতে

| প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : দেশের দুই পুঁজিবাজারেই শেয়ারের মূল্যসূচক ও লেনদেন বেড়েছে গতকাল। এর মধ্যে প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়ে ২৬ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থায় রয়েছে। আগের দিনের চেয়ে ডিএসইএক্স প্রায় ২৬ পয়েন্ট বেড়ে দিনের লেনদেন শেষে ৫ হাজার ১৮২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এর আগে ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর ডিএসইক্স ছিল ৫ হাজার ২৩৩ পয়েন্ট।
এদিকে শেয়ারবাজারের লেনদেনে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করছে প্রকৌশল খাতের কোম্পানিগুলো। গত কয়েকদিনের মতো বৃহস্পতিবারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে প্রকৌশল খাতের শেয়ার। এদিন ডিএসইতে ১ হাজার ২৪৫ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে প্রকৌশল খাতের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৭৪ কোটি ১১ লাখ টাকার বেশি, যা মোট লেনদেনের ২২ দশমিক ৩৩ শতাংশ।
তবে মোট লেনদেনে বড় ভূমিকা রাখলেও এদিন এই খাতের লেনদেন হওয়া ৩২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬টি প্রতিষ্ঠানেরই শেয়ারের দাম আগের কার্যদিবসের তুলনায় কমেছে। বৃহস্পতিবার ডিএসইতে আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৩৬ কোটি ৩৮ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। লেনদেন বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে মূল্য সূচকও। ফলে শেয়ারবাজারে টানা ১০ কার্যদিবস মূল্য সূচক বাড়লো।
দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৫ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ১৮২ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। লেনদেন হওয়া কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে ১৪৭টির দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে ১৩৮টির দাম কমেছে এবং ৪১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।
টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৫৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইফাদ অটোসের ৪১ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ সাইফ পাওয়ার। লেনদেনে এরপর রয়েছে ডেস্কো, বিবিএস, লংকাবাংলা, আর্গন ডেনিম, বেক্সিমকো ফার্মা এবং অলিম্পিক এক্সেসরিজ।
গ্রæপভিত্তিক কোম্পানির লেনদেন চিত্রে দেখা যাচ্ছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ‘এ’ গ্রæপের ২৬০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৮টির, কমেছে ১১০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টি। আর ‘জেড’ গ্রæপের লেনদেন হওয়া ৪৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২৩টিরই দাম আগের কার্যদিবসের তুলনায় বেড়েছে। কমেছে ১৮টি এবং অপরিবর্তিত আছে ৫টির দাম। এছাড়া ‘বি’ গ্রæপের লেনদেন হওয়া ১৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫টির দাম বেড়েছে, ৮টির দাম কমেছে এবং ৩টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। ‘এন’ গ্রæপের লেনদেন হওয়া ৪টির মধ্যে ১টির দাম বেড়েছে, ২টির দাম কমেছে এবং ১টির দাম অপরিবর্তিত আছে।
সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৩ কোটি ৪১ লাখ ৬৮ হাজার ৮৬৪ টাকার। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৭৩ কোটি ১৩ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৪ টাকা। তার আগের দিন লেনদেন হয় ৮৩ কোটি ৯০ লাখ ২১ হাজার ৩৫৪ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৬১টি সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৯টির, কমেছে ১১৮টির এবং ২৪টি কোম্পানির শেয়ারের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সূচক

২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
২২ ডিসেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ