Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

মেয়র আইভীর দায়িত্ব গ্রহণ

নিজ বাড়ি থেকে হেটে নগরভবনে

| প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার : জনতার স্রোত ভেঙে দেওভোগ থেকে নগরভবনে গেলেন দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত নগরমাতা মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। বাড়ি থেকে রাস্তায় পা রাখতেই জনতার স্রোত ও ফুলবৃষ্টির মধ্য দিয়ে নগরভবনে গিয়ে তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে নগরমাতা দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন। হাজার হাজার নগরবাসীর ভালবাসা নিয়ে নগরমাতা আইভীর এই দ্বিতীয় দফায় দায়িত্বভার গ্রহণ শহরবাসীর মধ্যে স্বস্তি নিয়ে এসেছে। বহু ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্য দিয়ে তার এ যাত্রা নাসিকের উন্নয়ন আরো বেশি গতিশীল হবে বলেই নগরবাসী ধারণা করছেন। নগরবাসী বলছেন, গতবারের চেয়ে এবার আইভী অনেক বেশি রাজনৈতিকভাবে শক্তিশালী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্নেহধন্য হয়েই এবার তিনি নগর ভবনে পা রাখলেন। ফলে এবারের যাত্রায় তার উন্নয়ন ধারা দেখতে অপেক্ষায় থাকবে নগরবাসী। নগরবাসী দৃষ্টি এখন আইভীর দিকে। সুতরাং আগের চাইতে অনেকবেশি পরিমাণ উন্নয়নে মনযোগী হতে হবে নগরমাতা আইভীকে।
সকাল সাড়ে ১০ টায় মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী তার দেওভোগস্থ বাসভবন থেকে বের হয়ে ১১টা ১০ মিনিটে নগর ভবনে পৌঁছেন। এ সময় নগর ভবনের গেটে অপেক্ষারত ৩৬ জন কাউন্সিলরসহ নগরভবনের কর্মকর্তা কর্মচারিরা তাকে স্বাগত জানান।
মেয়র আইভী বলেন, ‘আমি নারায়ণগঞ্জবাসীর কাছে কৃতজ্ঞ। সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ। কারণ তিনি জনতার কথা বুঝেই আমাকে নৌকা প্রতীক তুলে দিয়েছিলেন। নারায়ণগঞ্জবাসী সেই নৌকায় ভোট দিয়ে আমাকে এবার নির্বাচিত করেছেন। আমি এবার তৃতীয়বারের জনপ্রতিনিধি।’
তিনি আরও বলেন, ‘এই নগরভবন হবে সার্বজনীন। দল, মতের ঊর্ধ্বে গিয়ে আমি সবার সেবা করব। কারণ আমাকে দল, মতের ঊর্ধ্বে উঠেই সবাই ভোট দিয়েছেন। আমি, আমার বাবা আলী আহমদ চুনকা নারায়ণগঞ্জবাসীর সেবা করেছি। কখনো বেঈমানি করিনি। আগামীতেও বেঈমানি করব না।’
এর আগে ২৩ নভেম্বও মেয়র পদ থেকে পদত্যাগের পর নগর ভবন থেকে হেঁটে নগরীর ২ নং গেটস্থ আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। সে সময়ও তার সঙ্গে ছিল সাধারণ মানুষ ও নেতাকর্মীদের ঢল। ২২ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেনকে প্রায় ৭৭ হাজার ভোট ব্যবধানে পরাজিত করেন তিনি। ৫ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মেয়র হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন তিনি। তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিকে একই দিন ২৭ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ৯ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর তাদের দায়িত্ব বুঝে নিয়ে নগরভবনে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে অফিস শুরু করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মেয়র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ