Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মিয়ানমারকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী : সীমান্তের ইয়াবা কারখানা সরিয়ে নাও

প্রকাশের সময় : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম ব্যুরো : বাংলাদেশের কাছাকাছি সীমান্ত এলাকাগুলো থেকে সর্বনাশা মাদকদ্রব্য ইয়াবা কারখানা সরিয়ে নেয়ার জন্য মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো: আসাদুজ্জামান খান। তিনি বলেন, আমরা মিয়ানমারকে বলব, তোমরা সীমান্ত এলাকা থেকে ইয়াবা কারখানা সরিয়ে নাও।
আমরা তোমাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে চাই। ইতোমধ্যে সীমান্ত এলাকা থেকে ভারত ফেনসিডিল কারখানা সরিয়ে নিয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এতে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
গতকাল (শনিবার) নগরীর পতেঙ্গায় র‌্যাব-৭ এর সদর দপ্তরে মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ মাদক তৈরি না করলেও কুফল ও ছোবলের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। তিনি বলেন, মিয়ানমার তৈরি করে ইয়াবা আর ভারত তৈরি করে ফেনসিডিল। সীমান্ত এলাকায় এসব মাদকের কারখানা বন্ধের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সবসময় কাজ করে যাচ্ছে।
বাংলাদেশ মিয়ানমারের মাদক অধিদপ্তরের ডিজি পর্যায়ে ও দুই দেশের বর্ডার গার্ডের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা স্বীকার করছে এবং বর্ডার এলাকা থেকে এ ইয়াবা তৈরির কারখানা সরিয়ে নিয়ে নিয়ন্ত্রণ করবে। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে মিয়ানমার সরকারও সীমান্ত এলাকা থেকে ইয়াবা তৈরির এসব কারখানা সরিয়ে নেবে বলে আশা প্রকাশ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সাক্ষীর অভাবে মাদক ব্যবসায়ীরা গ্রেফতার হওয়ার পরও দ্রুত জামিন পেয়ে যায় মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ অপরাধীদের গ্রেফতারের পর মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে দ্রুত বিচার করায় আমরা সফলতা পেয়েছি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন পাঠ্যপুস্তকে মাদকের খারাপ দিকগুলো অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান। তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষে মাদক নির্মূল সম্ভব নয়। মাদক নির্মূলে আমরা যারা জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিবিদ আছি তাদের এগিয়ে আসতে হবে।
স্বাগত বক্তব্যে র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, সমুদ্রপথে ইয়াবা পাচারের নজরদারি বাড়ায় পাচারকারীরা রুট পরিবর্তন করেছে। কক্সবাজারের পরিবর্তে বরিশাল, পটুয়াখালী দিয়ে ইয়াবা পাচারের চেষ্টা চলছে জানিয়ে র‌্যাবপ্রধান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে নতুন বোট ও সরঞ্জাম দেয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম-১১ (পতেঙ্গা-বন্দর) আসনের সংসদ সদস্য এম এ লতিফ, সাবেক সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমিন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো: আবদুল জলিল ম-ল, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক ফজলুর রহমান, র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মিফতা উদ্দিন। এছাড়া স্কুল শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক এবং দুই মাদকাসক্ত যুবক তাদের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রেল মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, চন্দনাইশের এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুস ছালাম, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোহা: শফিকুল ইসলাম, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিনসহ বিভিন্ন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমারকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী : সীমান্তের ইয়াবা কারখানা সরিয়ে নাও
আরও পড়ুন