Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৮ আশ্বিন ১৪২৪, ০২ মুহাররম ১৪৩৮ হিজরী

সূচক বাড়ার নতুন রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে শেয়ারবাজার

| প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : বুধবার লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্সএ সূচকটি আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৫৬ পয়েন্ট বেড়ে ৫৩৩৩ দশমিক ৮৭ পয়েন্টে উঠে এসেছে।  মূল্য সূচকের ভুল গণনা বন্ধ করতে ২০১৩ সালের ২৭ জানুয়ারি নতুন সূচক ডিএসইএক্স চালু করে ডিএসই। শুরুতে সূচক গণনা শুরু হয় ৪০৫৫ দশমিক ৯০ পয়েন্ট দিয়ে। এরপর কয়েক দফা উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে ২০১৪ সালের ১২ অক্টোবর ৫৩৩৪ দশমিক ০৩ পয়েন্টে উঠে আসে ডিএসইএক্স। এখন পর্যন্ত ডিএসইএক্সের এটিই সর্বোচ্চ অবস্থান। ডিএসইএক্সের নতুন  রেকর্ড গড়ে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে আসতে আর মাত্রা শূন্য দশমিক ১৭ পয়েন্ট বাকি। বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, বর্তমানে সূচক ও লেনদেনের যে গতি দেখা যাচ্ছে তাতে খুব দ্রুতই সূচক ও লেনদেনে নতুন নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হতে পারে। এ মুহূর্তে বিনিয়োগকারীদের বুদ্ধির পরিচয় দিতে হবে। হুজগে বা গুজবে বিনিয়োগ না করে তথ্য যাচাই বাছাই করে সচেতনভাবে বিনিয়োগ করতে হবে।
বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান এবং বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, যে কোনো বাজারের তিনটি বিষয় পর্যবেক্ষণ করা হয়। এগুলো হলোÑ সূচক কোন দিকে যাচ্ছে। সূচক খুব বড় আকারের উঠা-নামা করছে, নাকি মোটামুটি স্থিতিশীলতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে এবং বাজারের তারল্য কি রকম। লেনদেন চিত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায়, গত দেড় মাস ধরেই লেনদেনের গতি বেশ ভালো। ডিসেম্বর মাসজুড়ে প্রতিদিন গড়ে সাড়ে ৯০০ কোটি টাকার উপরে লেনদেন হয়েছে। আর চলতি মাসের ৯ কার্যদিবসের মধ্যে ৮ কার্যদিবসেই হাজার কোটি টাকার ওপরে লেনদেন হয়েছে। এই ৯ কার্যদিবসে গড়ে প্রতিদিন লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা। এর আগে ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে প্রতিদিন গড়ে ৫৪০ কোটি, ফেব্রুয়ারিতে ৪৩২ কোটি, মার্চে ৩৬৩ কোটি, এপ্রিলে ৩৯৪ কোটি, মে’তে ৩৮৭ কোটি, জুনে ৩৬৯ কোটি, জুলাইতে ৩৮৬ কোটি, আগস্টে ৪৫৮ কোটি, সেপ্টেম্বরে ৫১১ কোটি, অক্টোবরে ৫২৮ কোটি ও নভেম্বরে ৬৪৩ কোটি টাকা প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়। অর্থাৎ গত বছরের জুলাই থেকেই বেশ ধারাবাহিকভাবে লেনদেন বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত কার্যদিবসের চেয়ে সূচক বেড়ে শেষ হয়েছে এ দিনের লেনদেন কার্যক্রম। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫৬ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট এবং সিএসইতে প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৯২ দশমিক ৬০ পয়েন্ট বেড়েছে। উভয় পুঁজিবাজারে মোট লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৮০১ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গত কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৮০৫ কোটি ৯৩ লাখ। ডিএসইতে টাকার অঙ্কে মোট লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৭০৪ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। গত মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৬৯৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। সুতরাং এক কার্যদিবসের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩৪ কোটি ৬১ লাখ টাকা। ডিএসইতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫৬ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৩৩৩ পয়েন্টে, ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ২৪৫ পয়েন্টে এবং ১৩ দশমিক ৭০ পয়েন্ট বেড়ে ডিএসই-৩০ সূচক দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯০৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে।
ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২৬টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৯৪টির, কমেছে ১১৭টির এবং কোনো পরিবর্তন হয়নি ১৫টি কোম্পানির শেয়ার দর। টাকার অঙ্কে এদিন ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলোÑ  বেক্সিমকো লিমিটেড, ইফাদ অটোমোবাইল, আমান ফিড, ডেসকো, আরএসআরএম স্টিল, ন্যাশনাল ব্যাংক, অ্যাপোলো ইস্পাত, লংকা-বাংলা ফাইন্যান্স, ডোরিন পাওয়ার এবং প্রিমিয়ার ব্যাংক।
অন্য দিকে সিএসইতে মোট শেয়ার লেনদেনের পরিমাণ ৯৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। গত মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছিল ১০৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার। সুতরাং সিএসইতে গত কার্যদিবসের চেয়ে শেয়ার লেনেদেন কমেছে ১১ কোটি ৯৯ লাখ টাকার বেশি। সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৯২ দশমিক ৬০ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৯২৬ পয়েন্টে, সিএএসপিআই সূচক ১৫৫ দশমিক ৪৬ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৪০৩ পয়েন্টে, সিএসই-৫০ সূচক ১৩ দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ১৮৭ পয়েন্টে এবং সিএসই-৩০ সূচক ১২০ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ২৯১ পয়েন্টে অবস্থান করছে।
সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৭১টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৬৪টির, কমেছে ৯৭টির এবং কোনো পরিবর্তন হয়নি ১০টি কোম্পানির শেয়ার দর। টাকার অঙ্কে এদিন সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলোÑ বেক্সিমকো লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, আরএসআরএম স্টিল, অ্যাপোলো ইস্পাত, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, কেয়া কসমেটিকস, ট্রাস্ট ব্যাংক এবং এবি ব্যাংক।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর