Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

রাশিয়ার আগ্রাসী আচরণ- পোল্যান্ডে মার্কিন ট্যাংক, সেনা মোতায়েন

| প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : রাশিয়ার আগ্রাসী আচরণের কারণে প্রশান্ত মহাসাগরীয় সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ায় তাদের আশ্বস্ত করার জন্য পোল্যান্ডে মার্কিন ট্যাংক এবং সাঁজোয়া যানসহ তিন হাজারেরও বেশি সেনা মোতায়েন শুরু হয়েছে।
গতকাল মার্কিন সেনারা পোল্যান্ডে পৌঁছতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি অনলাইন। বিবিসি বলছে, রাশিয়ার আগ্রাসী আচরণের কারণে পোল্যান্ডে এসব সেনা পাঠানো হয়েছে।
নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারের ইঙ্গিত দিয়েছেন। তার ক্ষমতা গ্রহণের মাত্র কয়েক দিন আগে মার্কিন সেনারা পোল্যান্ড পৌঁছল। গত কয়েক দশকের মধ্যে ইউরোপে মোতায়েন করা সবচেয়ে বড় মার্কিন সেনাবহর এটি। এরমধ্যে ৮০টি মূল যুদ্ধ ট্যাংক, কয়েক হাজার সাঁজোয়া যান জার্মানি পৌঁছেছে। এখন তারা সড়ক ও রেলপথে পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে ছড়িয়ে পড়ছে।
ইউক্রেনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ঘটনার জবাবে এবং ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়া ন্যাটো সদস্যদের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আশ্বস্ত করার অংশ হিসেবে মার্কিন আর্মাড ব্রিগেড বলকান দেশগুলোতে সামরিক অনুশীলন করবে। প্রতি নয় মাস পর দেশগুলোর মধ্যে পালাক্রমে এ অনুশীলন চলবে।
তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচিত হওয়ায় মার্কিন সেনাবাহিনীর এই অনুশীলন কতদিন অব্যাহত থাকে তা নিয়ে ইতোমধ্যেই প্রশ্ন উঠেছে বলে পোল্যান্ড থেকে জানিয়েছেন বিবিসির প্রতিরক্ষা প্রতিনিধি জোনাথন বিল।
মার্কিন সময় বৃহস্পতিবার রাতে দেশটির সিনেটে ট্রাম্প মনোনীত প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল জেমস মাতিসের নিয়োগ অনুমোদনের জন্য শুনানি হবে। এতে রাশিয়ার প্রতি ট্রাম্প প্রশাসনের মনোভাবের বিষয়টি জানতে চাওয়া হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সূত্র : বিবিসি



 

Show all comments
  • মকবুল হোসাইন ১৯ মে, ২০১৭, ১২:২০ পিএম says : 0
    কেন আপনারা দেশকে ধ্বংশের দিকে ঠেলে দিচ্ছন? আপনাদের কোনো ক্ষমতা আছে রাশিয়ার একটি পশম সরানোর? পোল্যান্ড হচ্ছে চামচা। রাশিয়া ইচ্ছে করলে এক তুরিতে সব কিছু সহ তোমাদের দেশের অস্তিত্ব খেয়ে দিতে পারবে। এগুলো ঠিক না।আসুন শান্তির জন্য এক হয়ে বাস করি। রাশিয়া ও আমেরিকা চাইলে সত্যিই বিশ্বে শান্তি আসবে।।।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর