Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

বাউফলে বগা পুলিশ ফাঁড়ি দাবিকৃত ঘুষ না দেওয়ায় হ্যান্ডকাপ পড়িয়ে নির্যাতনের অভিযোগ

| প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বাউফল উপজেলা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা : পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বগা ইউনিয়ন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জসিম উদ্দিন ও মামুন নামের এক কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ছালাম হাওলাদার নামের এক ব্যাক্তিকে থানায় আটকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়াগেছে। নির্যাতিত ছালাম হাওলাদারের স্বজনদের অভিযোগ, পুলিশের দাবিকৃত ঘুষ না দেওয়ায় তাদের সামনে চেয়ারের সাথে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে ছালাম অমানবিক নির্যাতন করা হয়। গতকাল সোমবার সকালে ওই পুলিশ ফাঁড়ির ভিতরে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, উপজেলার মাধবপুর বাজারে সরকারি জমিতে দোকান ঘর নির্মাণে বাঁধা দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেল্লাল হোসেন ওরফে উজ্জল চৌকিদার নামের এক ব্যাক্তির দায়েরকৃত একটি মামলায় গত রোববার দুপুর দুইটার দিকে আবদুস ছালামকে মাধবপুর বাজার থেকে গ্রেফতার করে জসিম উদ্দিন। নির্যাতিত আবদুস ছালামের স্বজনরা অভিযোগ করেন, গ্রেফতারের পর ইনজার্জ জসিম উদ্দিন তাদের কাছে ২৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। সোমবার সকালে সালামের স্বজনরা দুই হাজার টাকা নিয়ে বগা পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে ইনচার্জ জসিম উদ্দিনকে দেন। কম টাকা দেখে তিনি ক্ষুদ্ধ হয়ে ওই টাকা ছুঁড়ে মারেন। এর পর তিনি ছালামের হাতে লাগানো হ্যান্ডকাপের অপর অংশটি একটি চেয়ারের সাথে লাগিয়ে তাকে লাঠি দিয়ে কোমড়ের নিচের অংশে এলোপাতাড়ি ভাবে পেটান। পরে তিনি কনস্টেবল মামুনকে ডেকে তার হাতে লাঠি দিয়ে ছালামকে পেটাতে নির্দেশ দেন। এ খবর পেয়ে দুপুর একটার দিকে বাউফল থেকে কয়েকজন সাংবাদিক বগা ফাঁড়িতে যান। এসময় ছালাম তাদেরকে শরীরের নির্যাতনের চিহ্ন দেখান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাউফল

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ