Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ট্রাম্পের কাছে সিরিয়ান শিশুর খোলা চিঠি

| প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : আমি জানি আপনি আমেরিকার  প্রেসিডেন্ট। আপনি কি তাই দয়া করে সিরিয়ার শিশু ও জনগণের জীবন রক্ষা করবেন? আপনার অবশ্যই সিরিয়ার শিশুদের জন্য কিছু করা উচিত। কারণ এই শিশুরা আপনার সন্তানের মতোই। তারাও আপনাদের মতোই শান্তিতে থাকার অধিকার রাখে। সদ্য মার্কিন  প্রেসিডেন্টের দায়িত্বভার গ্রহণ করা ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে লেখা এক খোলা চিঠিতে এই কথাগুলো লিখেছে সাত বছর বয়সী সিরিয়ান শিশু বানা আলাবেদ। গতকাল বুধবার (২৫ জানুয়ারি) এ খবর দিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। সিরিয়ার যুদ্ধবিধ্বস্ত আলেপ্পোর পূর্বাঞ্চলে বসবাস করত বানা আলাবেদ ও তার পরিবার। অবরুদ্ধ আলেপ্পোর পরিস্থিতি তুলে ধরে নানা ধরনের টুইট করে পরিচিত হয়ে ওঠে আলাবেদ। আলেপ্পো দখলের লড়াই চলাকালে ডিসেম্বর মাসে পরিবারের সঙ্গে আলেপ্পো ছেড়ে তুরস্ক চলে যায় আলাবেদ। সেখান থেকেই সে খোলা চিঠি লিখেছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের উদ্দেশে। বিবিসির কাছে আলাবেদের এই চিঠির একটি কপি পাঠিয়েছেন তার মা ফাতেমা। তিনি জানান, ট্রাম্পের অভিষেকের আগের দিন এই চিঠি লিখেছে আলাবেদ। চিঠিতে আলাবেদ লিখেছে, ‘প্রিয় ডোনাল্ড ট্রাম্প, আমার নাম বানা আলাবেদ। আমি সিরিয়ার আলেপ্পোর সাত বছর বয়সী একটি মেয়ে। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে অবরুদ্ধ পূর্ব আলেপ্পো ত্যাগ করার আগ পর্যন্ত আমি সিরিয়াতেই বাস করেছি। সিরিয়ার যুদ্ধে যেসব শিশু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, আমি তাদেরই একজন। কিন্তু ঠিক এখন আমি তুরস্কে আমাদের নতুন বাড়িতে শান্তিতে আছি। আলেপ্পোতে আমি স্কুলে যেতাম। কিন্তু এটা বোমা বর্ষণের কারণে ধ্বংস হয়ে গেছে। আমার অনেক বন্ধু মারাও গেছে। তাদের মৃত্যুতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত। তারা বেঁচে থাকলে কতই না ভালো হতো। কারণ আমি এখনও তাদের সঙ্গেই খেলতে চাই। আমি আলেপ্পোতে খেলতে পারতাম না, এটা ছিল একটি মৃত্যুপুরী।’
তুরস্কে এখন স্বাধীনভাবে খেলাধুলা করতে পারছে উল্লেখ করে আলাবেদ ট্রাম্পকে লিখেছে, ‘সিরিয়ার লাখ লাখ শিশুরই আমার মতো ভাগ্য হয়নি। তারা এখনও সিরিয়ার বিভিন্ন স্থানে দুর্দশার মধ্যে রয়েছে। আর তাদের এই দুর্দশার কারণ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষরা। আমি জানি আপনি আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন। আপনি কি তাই দয়া করে সিরিয়ার শিশু ও জনগণের জীবন রক্ষা করবেন? আপনার অবশ্যই সিরিয়ার শিশুদের জন্য কিছু করা উচিত। কারণ এই শিশুরা আপনার সন্তানদের মতোই। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন